করোনা আক্রান্ত সাকিবের বাবা-মা

অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসানের বাবা মাশরুর রেজার পর এবার তার মা শিরিন রেজা (৫০) করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। তবে তার শরীরে তেমন কোনো উপসর্গ নেই।

বৃহস্পতিবার (২৩ জুলাই) জেলা স্বাস্থ্য বিভাগ এ তথ্য জানিয়েছে।

জানা গেছে, শিরিন রেজা বাসাতেই চিকিৎসা নিচ্ছেন এবং সুস্থ আছেন।

মাগুরা সিভিল সার্জন ডাক্তার প্রদীপ কুমার সাহা জানান, গত ১৯ জুলাই সাকিবের বাবা করোনা আক্রান্ত হলে গত ২০ জুলাই তার মা শিরিন রেজার নমুনা পরীক্ষা করা হয়। আজ সেই ফলাফলে করোনা পজিটিভ ধরা পড়ে।

সাকিব আল হাসান বর্তমানে স্ত্রী ও সন্তান নিয়ে যুক্তরাষ্ট্রে আছেন।

(অনলাইন ডেস্ক, ঘাটাইল ডট কম)/-

ভাইসহ মাশরাফি করোনামুক্ত, স্ত্রী এখনো পজিটিভ

মাত্র ৪৮ ঘণ্টা ব্যবধানে তামিম ইকবালের বড় ভাই সাবেক ক্রিকেটার নাফিস ইকবাল এবং বাঁ হাতি স্পিনার নাজমুল ইসলাম অপুর সঙ্গে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছিলেন মাশরাফি।

নিজের সংসদীয় এলাকা নড়াইল-২ এ করোনাভাইরাসকালীন জনদুর্ভোগে ব্যাপক কাজ করে আক্রান্ত হয়েছিলেন বাংলাদেশ ক্রিকেট ইতিহাসে সবচেয়ে সফল অধিনায়ক।

গত ২০ জুন মাশরাফির নমুনা পরীক্ষায় কভিড-১৯ পজিটিভ ধরা পড়ে। তিনদিন পর ছোট ভাই মোরসালিন মোর্তজা এবং ৫ দিন পর মাশরাফির স্ত্রী সুমনা হকের দেহে কভিড-১৯ পজিটিভ ধরা পড়ে। একসঙ্গে পরিবারের তিন সদস্য কভিড-১৯ পজিটিভ ধরা পড়ায় এই পরিবারকে ঘিরে ছিল উৎকণ্ঠা। পরিস্থিতির মুখে সন্তানদের নড়াইলে পাঠিয়ে দিয়ে ঘরে আইসোলেশনে ছিলেন মাশরাফি।

তবে মাসহ নাফিস ইকবাল, এবং বাবা-মাসহ নাজমুল ইসলাম অপু দ্বিতীয় পরীক্ষায় কভিড-১৯ নেগেটিভ আসলেও মাশরাফি পরিবারকে ঘিরে ছিল উৎকণ্ঠা।

মিরপুরে নিজের বাসায় প্রয়োজনীয় চিকিৎসা গ্রহণ করা মাশরাফি ১০ দিন পর দ্বিতীয়বার পরীক্ষায়ও কভিড-১৯ পজিটিভ আসলে স্ত্রী এবং ভাই-এর সঙ্গে পরবর্তী পরীক্ষা ১৪ দিন পর করেছেন। গত রোববারের সেই পরীক্ষার রিপোর্ট এসেছে মঙ্গলবার। তৃতীয়বারের পরীক্ষায় মাশরাফি কভিড-১৯ নেগেটিভ হয়েছেন।

ভাই মোরসালিন মোর্তজার রিপোর্টেও কভিড-১৯ এসেছে।

তবে স্ত্রী সুমনা হক সুমির রিপোর্টে সুসংবাদ আসেনি। এবারও তার রিপোর্টের ফল এসেছে পজিটিভ।

মাশরাফি নিজেই তার ফেসবুক পেজে দিয়েছেন এ খবর। স্ত্রীর জন্য চেয়েছেন দোয়া।

ফেসবুক স্ট্যাটাসে তিনি বলে:

‘আসসালামু আলাইকুম। আশা করি সবাই ভালো আছেন। আলহামদুলিল্লাহ। আল্লাহর রহমতে ও আপনাদের সবার দোয়ায় আমার করোনা ভাইরাস পরীক্ষার ফল এসেছে নেগেটিভ। আজকে রাতেই ফল জানতে পেরেছি।

এই পুরো সময়টায় যারা পাশে ছিলেন, দোয়া করেছেন, অনেকে উদ্বিগ্ন ছিলেন ও নানা ভাবে খোঁজ নিয়েছেন বা নেওয়ার চেষ্টা করেছেন, সবার প্রতি কৃতজ্ঞতা।

শনাক্ত হওয়ার পর দুই সপ্তাহের বেশি পেরিয়ে গেলেও আমার স্ত্রীর করোনাভাইরাস পরীক্ষার ফল এখনও পজিটিভ। তবে সবার দোয়ায় সে ভালো আছে। তার জন্য দোয়া প্রার্থনা করছি।

বাসায় থেকে চিকিৎসা নিয়েই আমি সেরে উঠেছি। যারা আক্রান্ত হয়েছেন, সবাই সাহস রাখবেন। আল্লাহর ওপর ভরসা রাখবেন। নিয়ম মেনে চলবেন। সবাই নিরাপদে থাকবেন, ভালো থাকবেন।

একসঙ্গে থেকে করোনাভাইরাসের সঙ্গে আমাদের লড়াই চালিয়ে যেতে হবে। আল্লাহ সবার সহায় হোন।’

(দ্য রিপোর্ট, ঘাটাইল ডট কম)/-

করোনা পজিটিভ মাশরাফি

বাংলাদেশের জাতীয় ক্রিকেট দলের সাবেক অধিনায়ক ও সংসদ সদস্য মাশরাফী বিন মোর্ত্তজা করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন।

শনিবার দুপুরে দেয়া তার টেস্টের রিপোর্টে করোনাভাইরাস সংক্রমণ নিশ্চিত করা হয়েছে বলে তার আত্মীয়স্বজনরা নিশ্চিত করেছেন।

তারা জানিয়েছেন , শুক্রবার থেকেই মাশরাফী বিন মোর্ত্তজার জ্বর ছিল।

তবে তার ভাই মুরসালিন বিন মোর্ত্তজা জানিয়েছেন, জ্বর ছাড়া তার আর কোন উপসর্গ নেই। মাশরাফি এখন ঢাকায় নিজ বাসাতেই আইসোলেশনে আছেন বলে পারিবারিক সূত্রে জানানো হয়।

তার আত্মীয়স্বজনরা জানিয়েছেন, এর আগে মাশরাফির শাশুড়ী এবং শালীর করোনাভাইরাস সংক্রমণ নিশ্চিত হয়েছিল।

সম্প্রতি তিনি দু’বার তার নিজ শহর নড়াইলে গিয়েছিলেন বলেও জানানো হয়।

নড়াইল-২ আসনের এমপি মাশরাফি বিন মোর্ত্তজা দেশে করোনা বিপর্যয়ের শুরু থেকেই নড়াইল ও দেশের বিভিন্ন শ্রেণীর মানুষের জন্য কাজ করছেন। শুরুর দিকে দুইবার নিজ সংসদীয় এলাকায় গিয়েছেন। অসহায় মানুষেদের জন্য নিশ্চিত করেছেন ত্রাণ।

দ্বিতীয়বার নড়াইল থেকে এসে কোয়ারেন্টিনেও ছিলেন তিনি। এরপর বেশ কয়েকদিন ধরে বাসাতেই আছে। তবে গত তিন-চার দিন সামান্য সর্দি-জ্বরে ভুগছিলেন বলে জানান মাশরাফি বিন মোর্ত্তজার ছোট ভাই মোরসালিন মোর্ত্তজা।

এর আগে গত কয়েকদিন আগে করোনায় আক্রান্ত হন মাশরাফির স্ত্রী সুমনা হক সুমির মা ও বড় বোন। তাদের নড়াইল থেকে ঢাকায় নিয়ে আসা হয়।

(বিবিসি, ঘাটাইল ডট কম)/-

করোনা আক্রান্ত পাকিস্তানের শহীদ আফ্রিদি

পাকিস্তানের সাবেক ক্যাপ্টেন শহীদ আফ্রিদি বলছেন, তিনি করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন।

টুইটারে এক বার্তায় তিনি জানিয়েছেন, “বৃহস্পতিবার থেকে আমার শরীরটা ভাল যাচ্ছে না। শরীরে ব্যথা শুরু হয়েছে। আমার টেস্ট হয়েছে। এবং দু:খজনক হলো আমি পরীক্ষায় আমার করোনাভাইরাস ধরা পড়েছে। আমার দ্রুত আরোগ্যের জন্য দোয়া করবেন, ইনশা আল্লাহ।”

পাকিস্তানের আন্তর্জাতিক ক্রিকেটারদের মধ্যে শহীদ আফ্রিদি দ্বিতীয় যিনি করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হলেন। এর আগে তৌফিক উমরও করোনা পজিটিভ শনাক্ত হন। তবে কিছুদিন আগে তিনি জানিয়েছেন তিনি সম্পূর্ণ আরোগ্য লাভ করেছেন।

এর মধ্যে পাকিস্তানে লেগ স্পিনার রিয়াজ শেখসহ অন্তত দু’জন প্রথম শ্রেণির ক্রিকেটার করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মৃত্যুবরণ করেছেন।

ক্রিকেটের পিচে শহীদ আফ্রিদির পদচারণ শুরু হয় ১৯৯৬ সালে। তিনি এ পর্যন্ত ২৭টি টেস্ট, ৩৯৮ ওডিআই এবং ৯৯টি টি-২০ খেলেছেন। তিনি ২০১১ সালে ওডিআই ওয়ার্ল্ড কাপে পাকিস্তান দলে নেতৃত্ব দেন।

কিছু দিন আগে শহীদ আফ্রিদি ২০ হাজার ডলার দিয়ে বাংলাদেশের ক্রিকেটার মুশফিকুর রহিমের একটি ব্যাট কিনে নেন। দরিদ্রদের জন্য তহবিল তৈরির লক্ষ্যে তার একটি ঐতিহাসিক ব্যাট নিলামে তুলেছিলেন মুশফিক।

করোনাভাইরাসে কাজের সুযোগ বন্ধ হয়ে যাওয়ার ফলে জীবনযাপন কষ্টকর হয়ে যাওয়া মানুষের সহায়তায় তহবিল তৈরির চেষ্টা করছিলেন তিনি।

(বিবিসি, ঘাটাইল ডট কম)/-

বলে থুতু মাখানো নিষিদ্ধ করলো আইসিসি

করোনাভাইরাস আতঙ্কের মধ্যেই মাঠে গড়াবে বল। এজন্য মানতে হচ্ছে সর্বোচ্চ নিরাপত্তার বিধি নিষেধ। আইসিসির পক্ষ থেকে আপদকালীন খেলায় পরিবর্তন আনা হয়েছে কিছু নিয়মে। ক্রিকেটারদের স্বাস্থ্য সুরক্ষার দিকেই সবচেয়ে বেশি নজর দেয়া হবে। অন্তর্বর্তীকালীন হিসেবে ক্রিকেটে এই নিয়মগুলি পরিবর্তিত হচ্ছে।

বলের পালিশ ধরে রাখতে লালার ব্যবহারে নিষেধাজ্ঞা:

বলের পালিশ ধরে রাখতে লালা বা থুতুর ব্যবহার নিষিদ্ধ করা হয়েছে। প্রাথমিকভাবে পরিস্থিতির সঙ্গে মানিয়ে নিতে অসুবিধে হবে তাই বলে কেউ থুতু বা লালা ব্যবহার করলে আম্পায়াররা ব্যবস্থা নেবেন। কিন্তু একই ভুলের পুনরাবৃত্তি হলে সতর্ক করা হবে সংশ্লিষ্ট দলকে। ইনিংস প্রতি দুবার সতর্ক করার পরেও একই জিনিস করলে ব্যাটিং দল পাঁচ রান পেনাল্টি পাবে।

কোভিড-১৯ হলে খেলোয়াড় পরিবর্তন:

কনকাশন সাবস্টিটিউট-এর মতোই টেস্ট ম্যাচ চলাকালীন কোনও ক্রিকেটারের কোভিড-১৯ উপসর্গ ধরা পড়লে সঙ্গে সঙ্গে পরীক্ষা করে তাকে কোয়ারেন্টিনে পাঠিয়ে দিতে হবে। সংশ্লিষ্ট ক্রিকেটার সমকক্ষ কোনও ক্রিকেটারকে পরিবর্ত হিসেবে মাঠে নামাতে পারবে ওই দল। টেস্টে এই পরিবর্ত ব্যবহার করা গেলেও টি-টোয়েন্টি এবং ওয়ান ক্রিকেটে এই নিয়ম প্রযোজ্য হবে না।

নিরপেক্ষ আম্পায়ার নয়:

বর্তমান পরিস্থিতির কথা বিচার করে নিরপেক্ষ ম্যাচ অফিসিয়াল কয়েকদিনের জন্য আপাতত বন্ধ রাখতে চলেছে। পরিবর্তে সংশ্লিষ্ট দেশের আইসিসি এলিট প্যানেলের আম্পায়ারদের সঙ্গে অন্যান্য ম্যাচ অফিসিয়ালসরা থাকবেন।

অতিরিক্ত ডিআরএস ব্যবহার :

স্থানীয় ম্যাচ অফিসিয়ালস দিয়ে যেহেতু ম্যাচ পরিচালনা করা হবে তাই ডিশিয়ন রিভিউ সিস্টেমের পরিমান বাড়ানো হচ্ছে। আগে যেখানে টেস্টে ইনিংস প্রতি দুটো করে ডিআরএস ব্যবহার করতে পারত এখন তা ইনিংস প্রতি বেড়ে দাঁড়াচ্ছে তিন। তবে সাদা বলের ক্রিকেটে ডিআরএস দুটো করেই থাকছে।

অতিরিক্ত লোগোর ব্যবহার:

আগামী এক বছরের জন্য আইসিসি-র চিফ এক্সিকিউটিভ কমিটি লোগো ব্যবহারের ক্ষেত্রে বিশেষ ছাড় দিচ্ছে।

(অনলাইন ডেস্ক, ঘাটাইল ডট কম)/-

নিলামে ১৭ লাখ টাকায় মুশফিকের ব্যাট কিনলেন আফ্রিদি

অবশেষে বিক্রি হলো মুশফিকুর রহিমের নিলামে তোলা ব্যাটটি। ক্রেতা কোনো সাধারণ ব্যক্তি কিংবা ভক্ত নন। ব্যাটটি কিনেছেন কিংবদন্তী পাকিস্তানি ক্রিকেটার শহীদ আফ্রিদির ফাউন্ডেশন।

নিলামে ২০ হাজার ইউএস ডলারে (প্রায় ১৭ লাখ টাকায়) ব্যাটটি কিনে নেয় তারা। প্রাপ্ত পুরো অর্থ ব্যয় করা হবে করোনা যুদ্ধে।

বাংলাদেশের অন্যতম সেরা ব্যাটসম্যানের ব্যাটটি নিলামে তোলে নিবকো স্পোর্টস ম্যানেজমেন্টের সহযোগী প্রতিষ্ঠান স্পোর্টস ফর লাইভ। তারা ই-কমার্সভিত্তিক সাইট পিকাবো ডটকমের সঙ্গে চুক্তি করে। যেখানে গত ৯ মে রাতে ব্যাটটি নিলামে তোলা হয়।

গত বুধবার নিবকো এবং পিকাবো কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, ব্যাটটির নিলাম প্রক্রিয়া সাময়িকভাবে বন্ধ করে দেয়া হয়েছে। মঙ্গলবার পর্যন্ত ৫৩টি বিড হয়েছে যেখানে ব্যাটটির মূল্য সর্বোচ্চ ৪১ লাখ পর্যন্ত উঠেছে। 

নিবকোর এক কর্মকর্তা বলেছিলেন, এই দাম অস্বাভাবিক। আমরা দেখেছি, কিছু বিডার কৃত্রিমভাবে দাম বাড়িয়ে নিলামকে নষ্ট করার চেষ্টা করেছে। আমরা প্রতিবারে সর্বোচ্চ ১০ হাজার টাকা পর্যন্ত দাম বাড়ানো যাবে বলে নির্ধারণ করে দিয়েছিলাম। কিন্তু কেউ কেউ একবারেই ৮০ হাজার টাকা পর্যন্ত দাম তুলেছে। আমরা আশঙ্কা করছি, এটা প্রকৃত বিডারদের নিরুৎসাহিত করবে।

তবে শেষ পর্যন্ত প্রকৃত আগ্রহী পাওয়া গেল। প্রায় ১৭ লাখ টাকা আসছে ব্যাটটি বিক্রি থেকে। যার পুরোটাই খবর করা হবে করোনায় ক্ষতিগ্রস্তদের জন্য।

পিকাবোর প্রধান নির্বাহী মনির তালুকদার সংবাদমাধ্যমকে বলেন, প্রাথমিকভাবে কিছু সমস্যার মুখোমুখি হলেও শেষ পর্যন্ত তারা সঠিক বায়ার পেয়ে গেছেন। আর এটি হলো- শহীদ আফ্রিদি ফাউন্ডেশন।

(সময়, ঘাটাইল ডট কম)/-

৪ মাস বেতন না দেয়ায় সাকিবের ফার্মে শ্রমিকদের বিক্ষোভ

চার মাস ধরে বেতন পান না ক্রিকেটার সাকিব আল হাসানের মালিকানাধীন ফার্মের শ্রমিকরা। করোনা পরিস্থিতিতে ঘরে খাবার না থাকায় বাধ্য হয়ে বিক্ষোভে নেমেছেন বলে জানান শ্রমিকরা।

সাকিবের মালিকানাধীন অ্যাগ্রো ফার্ম লিমিটেড নামে কাঁকড়া হ্যাচারির শ্রমিকরা বিক্ষোভ করেন।

সোমবার (২০ এপ্রিল) সকাল ১০টায় সাতক্ষীরায় কাঁকড়া হ্যাচারির সামনে রাস্তার উপর দুই শতাধিক শ্রমিক বিক্ষোভে অংশ নেন।

তবে সামাজিক দূরত্ব বজায় না রেখে বিক্ষোভ করায় র‌্যাবের একটি টহল টিম ও শ্যামনগর থানা ওসি শ্রমিকদের হটিয়ে দেন।

সাকিব আল হাসানের হ্যাচারির শ্রমিক মহিদুল ইসলাম জানান, গত চার মাস যাবত তাদের কোনো বেতন দেওয়া হয় না। করোনা প্রাদুর্ভাবে কঠিন অবস্থায় তারা দিন কাটাচ্ছেন। বাড়িতে তাদের খাবার নেই।

নারী শ্রমিক মনোয়ারা জানান, অসহায় হয়েই সাকিবের কাঁকড়া ফার্মে কাজ করি। কিন্তু গত ৪ মাস বেতন পাই না। করোনা পরিস্থিতিতে ঘরে খাবার নেই। না খেয়ে দিন কাটাচ্ছে ছেলে-মেয়েরা।

শ্রমিক রহিমা বেগম জানান, অভাবের তাড়নায় তার হ্যাচারিতে কাজ করি। অথচ তাদের ঠিকমতো বেতন না দেওয়ায় খুবই কষ্টে আছি।

স্থানীয় বুড়িগোয়ালীনি ইউনিয়নের ইউপি সদস্য কামরুল ইসলাম জানান, কর্তৃপক্ষের সঙ্গে আলোচনা করেছি। ফার্ম কর্তৃপক্ষ বিক্ষোভরত শ্রমিকদের ৩০ এপ্রিলের মধ্যে বেতন পরিশোধ করবেন বলে জানিয়েছেন।

ক্রিকেটার সাকিব আল হাসানের কাঁকড়া ফার্ম প্রজেক্টের তত্বাবধায়ক সগীর হোসেন পাভেলের সঙ্গে একাধিকবার যোগাযোগ করা হলেও তিনি তার ফোন রিসিভ করেননি।

শ্যামনগর থানার ওসি নাজমুল হুদা জানান, বিক্ষোভের খবর জানতে পেরে ঘটনাস্থলে গিয়ে শ্রমিকদের শান্ত করা হয় করা হয়।

(ইত্তেফাক, ঘাটাইল ডট কম)/-

আবারও কন্যা সন্তানের বাবা হয়েছেন সাকিব

কয়েকদিন আগে যুক্তরাষ্ট্রে গিয়ে একটি হোটেলে কোয়ারেন্টিনে থাকতে হয়ছিল সাকিব আল হাসানকে। পরিবারের কাছে ফিরেই একটি সুসংবাদ দিলেন। আবারও বাবা হয়েছেন বিশ্বসেরা অলরাউন্ডার।

মঙ্গলবার (৭ এপ্রিল) বাংলাদেশ সময় দুপুরে নিজ অফিসিয়াল ফেসবুকে একটি পোস্টের মাধ্যমে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন সাকিব।

মেয়ে আলায়না হাসান অব্রির ছবি পোস্ট করেছেন সাকিব। সেখানে আলায়নার হাতে একটি ছোট মেয়ে বাচ্চার ড্রেস রয়েছে, যেখানে লেখা আছে ‘ওয়েলকাম হোম’। ক্যাপশনে লিখা রয়েছে ‘বিগ সিস্টারহুড’।

২০১২ সালে যুক্তরাষ্ট্র প্রবাসী উম্মে শিশির আহমেদের সঙ্গে বিয়ে করেন সাকিব। ২০১৫ সালের প্রথমবারের মতো বাবা হন সাকিব।সেই বছর ৮ নভেম্বর শিশিরের কোলজুড়ে পৃথিবীতে এসেছিল আলায়না হাসান অব্রি।

(আর টিভি, ঘাটাইল ডট কম)/-

সখীপুরে ক্রিকেট জুয়াড়ির বিরুদ্ধে বিভিন্ন দফতরে লিখিত অভিযোগ

টাঙ্গাইলের সখীপুরে ক্রিকেট ও মোবাইলে গেমস্ জুয়া বন্ধে এলাকাবাসীর গণস্বাক্ষরিত লিখিত অভিযোগ টাঙ্গাইল পুলিশ সুপারসহ বিভিন্ন দফতরে দেওয়া হয়েছে। উপজেলার কাকড়াজান ইউনিয়নের ভূয়াইদ এলাকাবাসী ওই গ্রামের ছামাদ সিকদারের ছেলে ক্রিকেট ও গেমস্ জুয়াড়ি লালমিয়া ওরফে প্রিন্স’র বিরুদ্ধে এ অভিযোগ করেন।

অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, দীর্ঘদিন ধরে প্রিন্স তার নিজ গ্রাম ভূইয়াদসহ আশপাশের যুব সমাজকে নিয়ে টাকার বিনিময়ে মোবাইল ফোনে ক্রিকেট ও গেমস্ জুয়া খেলে যাচ্ছেন। স্থানীয়রা বাঁধা দিতে গেলে নানা হুমকি ধামকি দেওয়ার অভিযোগ করেন এলাকাবাসী।

প্রিন্সের দুই ভাই আমিনুল ও মনির সিকদার তার সহযোগি হিসেবে কাজ করে আসছেন বলেও লিখিত অভিযোগে জানা যায়।

প্রিন্স ও তার সহযোগিদের হাত থেকে এলাকার যুব সমাজকে ধ্বংসের পথ হতে পরিত্রান পেতে নিরুপায় এলাকাবাসী টাঙ্গাইল পুলিশ সুপার, ডিবি অফিস, সিআইডি অফিস টাঙ্গাইল এবং সখীপুর থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা বরাবর লিখিত অভিযোগ করেন।

লিখিত অভিযোগ পাওয়ার সত্যতা নিশ্চিত করে সখীপুর থানার অফিসার্স ইনচার্জ মো. আমির হোসেন বলেন- বিষয়টি তদন্ত করে প্রয়োজনয় ব্যবস্থা নিতে উপ-পরিদর্শক (এসআই) আসাদুজ্জামানকে দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে।

(সখীপুর সংবাদদাতা, ঘাটাইল ডট কম)/-

করোনাভাইরাসে বাংলাদেশে অনির্দিষ্টকালের জন্য ক্রিকেট বন্ধ ঘোষণা

বর্তমান করোনাভাইরাস পরিস্থিতি বিবেচনায় অনির্দিষ্টকালের জন্য বন্ধ করে দেয়া হয়েছে দেশের সব ধরনের ক্রিকেট। পরবর্তী ঘোষণা না দেয়া পর্যন্ত বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের স্বীকৃত কোনো টুর্নামেন্ট বা খেলা মাঠে গড়াবে না।

আজ (বৃহস্পতিবার) দুপুরে মিরপুরের শেরেবাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে এক সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যমে এ খবর জানিয়েছেন বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন।

ফলে স্থগিত হলো মাত্র শুরু হওয়া ঢাকা প্রিমিয়ার লিগ (ডিপিএল)। বিসিবি সভাপতির ভাষ্য অনুযায়ী, চলতি মাসে তো নয়ই, এপ্রিলের ১৫ তারিখের আগে আর প্রিমিয়ার লিগ মাঠে গড়ানোর সম্ভাবনা নেই।

সংবাদ সম্মেলনে পাপন বলেন, ‘আপনারা সবাই জানেন, করোনাভাইরাসের কারণে সারা পৃথিবীতেই যা হচ্ছে…বাংলাদেশেও এটা নিয়ে কাজ করা হচ্ছে। যে কারণে সব জায়গায়ই খেলাধুলা বন্ধ। আমাদের এখানেও বন্ধ হয়ে গেছে।’

গত ১৫ এপ্রিল থেকে শুরু হয়েছে এবারের ঢাকা প্রিমিয়ার লিগ। প্রথম রাউন্ড খেলা হওয়ার পর ১৮ ও ১৯ তারিখের দ্বিতীয় রাউন্ড স্থগিত করেছিল বিসিবি। এ ব্যাপারে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেয়ার আগে সব দিক বিবেচনা করার জন্য দুদিন সময় নেয়া হয়েছে বলে জানিয়েছেন বিসিবি সভাপতি।

তিনি বলেন, ‘বিশেষ করে প্রিমিয়ার লিগ প্রথম রাউন্ডের পরই আমরা বন্ধ করে দিয়েছিলাম। তখন সিদ্ধান্ত নিয়েছিলাম যে, দুটা দিন অপেক্ষা করি, অবস্থা ও পরিস্থিতি পর্যবেক্ষণ করে সিদ্ধান্ত নেই। তো (দ্বিতীয় রাউন্ড স্থগিত করা) ওটা একটা তাৎক্ষণিক সিদ্ধান্ত ছিল। এখন আমরা সবদিক বিবেচনা করেই সিদ্ধান্ত নিয়েছি।’

সব ধরনের ক্রিকেট বন্ধ করে দেয়ার কথা জানিয়ে বিসিবি সভাপতি বলেন, ‘আমরা দেখলাম যে, এখন অনেক কিছুই বদলাচ্ছে, খেলোয়াড়দের ইচ্ছাটাও আগের মতো নেই। এছাড়া কিছু ভিন্নমতও আসছে। তো সবদিক বিবেচনা করে আমরা সিদ্ধান্তে পৌঁছেছি যে, দেশের সব ধরনের ক্রিকেট বন্ধ, আপাতত স্থগিত। পরবর্তী ঘোষণা দেয়ার আগ পর্যন্ত, পরিস্থিতি উন্নতির আগে আমরা কিছু বলতে পারছি না। পরিস্থিতি বদলালে আমরা খেলা শুরুর নতুন সূচি ঘোষণা করব।’

তিনি বলেন, ‘আমার মনে হয় না ১৫ এপ্রিলের আগে ডিপিএল শুরুর সম্ভাবনা আছে। বরং এটা বাড়তেও পারে। শুধু খেলোয়াড়দের না, প্রত্যেক মানুষের সতর্ক হওয়া উচিত এ করোনাভাইরাস নিয়ে। কাজেই এখন ক্রিকেট খেলার পরিস্থিতি নয়। যদিও অন্য খেলার চেয়ে বডি কন্ট্যাক কম ক্রিকেটে। যত বেশি দূরে থাকা দরকার, তার চেয়ে দূরে থাকে ফিল্ডাররা। তবু আমরা মনে করি এটা খেলার সময় নয়।’

(সময় টিভি, ঘাটাইল ডট কম)/-