যুক্তরাষ্ট্রের হামলায় নিহতর প্রতিবাদে ইরাকে মার্কিন দুতাবাসে হামলা

সাম্প্রতিক সময়ে ইরান সমর্থিত ইরাকি মিলিশিয়াদের ওপর যুক্তরাষ্ট্র যে বিমান হামলা করেছিলো, তারই জের ধরে বাগদাদে যুক্তরাষ্ট্র দূতাবাস কম্পাউণ্ডে হামলা করেছে বিক্ষুব্ধ লোকজন। এ সময় তারা কম্পাউন্ডের কাছে প্রহরা চৌকিতে আগুন ধরিয়ে দেয়। যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প এই হামলায় উস্কানি দেয়ার জন্য ইরানকে দায়ী করেছেন।

রবিবার ইরাকের পশ্চিমাঞ্চলে মিলিশিয়াদের লক্ষ্য করে যুক্তরাষ্ট্র যে হামলা চালায়, তাতে অন্তত ২৫ জন যোদ্ধা নিহত হয়েছিলো। তবে যুক্তরাষ্ট্র বলছে, তারা কিরকুকে ইরাকের একটি সামরিক ঘাঁটিতে রকেট হামলার জবাব দিয়েছে, যে হামলায় একজন মার্কিন বেসামরিক ঠিকাদার নিহত হয়েছিল।

যুক্তরাষ্ট্রের হামলায় যারা নিহত হয়েছেন, আজ মঙ্গলবার (৩১ ডিসেম্বর) তাদেরই শেষকৃত্য হচ্ছিলো বাগদাদে। আর সেখান থেকেই যুক্তরাষ্ট্রের দূতাবাসে হামলার ঘটনা ঘটে।

আবু মাহদি আল-মুহান্দিসসহ কয়েকজন সিনিয়র মিলিশিয়া ও প্যারামিলিটারি নেতা হাজার হাজার শোকাহত মানুষের সঙ্গে হেঁটে ইরাকের গ্রিন জোনের দিকে যান। ওই এলাকায়ই ইরাকের অধিকাংশ সরকারি অফিস ও বিদেশী দূতাবাস অবস্থিত।

খবরে বলা হচ্ছে, ইরাকি নিরাপত্তা বাহিনীর সদস্যরাও তাদের ওই জোনে প্রবেশ করে যুক্তরাষ্ট্র দূতাবাসের বাইরে রাস্তায় সমবেত হওয়ার সুযোগ দেয়। ওই সমাবেশ থেকে কাতাইব হেজবুল্লাহ ও অন্য মিলিশিয়াদের পতাকা বহন করে আমেরিকা বিরোধী শ্লোগান দেয়া হয়। এক পর্যায়ে বিক্ষোভকারীরা দূতাবাসের প্রধান গেট লক্ষ্য করে ইট পাটকেল ছুঁড়তে থাকেন এবং এক পর্যায়ে সিকিউরিটি ক্যামেরা ভেঙ্গে ফেলেন। এ সময় গার্ড চৌকিতে আগুন দেয়া হয় এবং গুলির শব্দও শোনা যায়। এক পর্যায়ে কম্পাউন্ডের দেয়াল ভেঙ্গে ফেলা হয়। এমনকি যুক্তরাষ্ট্র সৈন্যদের টিয়ার গ্যাস ছোঁড়ার আগে তারা কম্পাউন্ডের বেশ খানিকটা ভেতরেও ঢুকে পড়েন।

পরে ঘটনাস্থলে ইরাকি সৈন্য ও দাঙ্গা পুলিশ মোতায়েন করা হয় এবং প্রধানমন্ত্রী আব্দুল মাহদি বিক্ষোভকারীদের অবিলম্বে দূতাবাস চত্বর ছেড়ে যাওয়ার নির্দেশ দেন।

তবে আল-সুমাইরা ওয়েবসাইটে বলা হয়েছে, কাতাইব হেজবুল্লাহ গোষ্ঠী যুক্তরাষ্ট্র দূতাবাস বন্ধ এবং দেশটির রাষ্ট্রদূতকে বহিষ্কার না করা পর্যন্ত দূতাবাসের সামনে বিক্ষোভের ডাক দিয়েছে।

ডোনাল্ড ট্রাম্প তার টুইটে লিখেছেন: “ইরান আমেরিকান ঠিকাদারকে খুন করেছে। বহু মানুষকে আহত করেছে। আমরা শক্ত জবাব দিবো। এখন ইরান দূতাবাসে হামলার ঘটনা সংগঠিত করেছে। তাদেরকে এজন্য জবাবদিহি করতে হবে। একই সাথে আশা করি ইরাক দূতাবাস সুরক্ষায় তার ফোর্স ব্যবহার করবে”।

(অনলাইন ডেস্ক, ঘাটাইলডটকম)/-

জনগণের আশা পূরণ করতে চান ইভিএমে পাশ করা ভুঞাপুরের ইউপি সদস্য

টাঙ্গাইলের ভূঞাপুর উপজেলার অর্জুনা ইউনিয়ন পরিষদের ৩ নং ওয়ার্ডের উপ-নির্বাচনে ডিজিটাল পদ্ধতি ইভিএমের মাধ্যমে ভোট গ্রহণ অনুষ্ঠিত হয়েছে। এ নির্বাচনে ৪ জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দিতা করেন। প্রার্থীরা হলেন- মনোহর ভূইয়া (মোরগ), মেহেদী হাসান খান (তালা), মো. মোজাম্মেল হোসেন (টিউবওয়েল), সোহেল খান (ফুটবল)। এদের মধ্য ৫৭২ ভোট পেয়ে সোহেল খান জয়লাভ করেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থী মো. মোজাম্মেল হোসেন ৪৮১ ভোট পেয়ে পরাজিত হয়।

সোমবার (৩০ ডিসেম্বর) অর্জুনা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে সকাল ৯ টা থেকে শুরু হয় ভোট গ্রহন। এই ওয়ার্ডে মোট ভোটার সংখ্যা ২১৬২ জন। অন্যদিকে নির্বাচনে আইনশৃঙ্খলা কাজে র‌্যাবের ২ টি ও পুলিশের ১ টি টহল টিম ছাড়াও ৩২ জন সদস্য নিয়োজিত ছিলেন বলে ভূঞাপুর থানার অফিসার ইনচার্জ রাশিদুল ইসলাম জানিয়েছেন।

মঙ্গলবার (৩১ ডিসেম্বর) দুপুরে বিজয়ী প্রার্থী সোহেল খান এক স্বাক্ষাতকারে বলেন, বিগত ২০১১ সালের নির্বাচনে আমার ৩ নং ওয়ার্ডের জনগণ ভোট দিয়ে বিজয়ী করে এলাকার সেবা করার সুযোগ করে দিয়ে ছিলেন। এবারের ২০১৯ সালের গত ৩০ ডিসেম্বরে উপ-নির্বাচনেও জনগণ তাদের মূল্যবান ভোট দিয়ে জয়যুক্ত করেছেন। এ জন্য জনগণের কৃতজ্ঞ।

নব-নির্বাচিত সোহেল খান বলেন, জনগণ যে আশা নিয়ে আমাকে বিজয়ী করেছেন তাদের আশাগুলো পূরণ করার চেষ্টা করব। এলাকার বিভিন্ন রাস্তা-ঘাট, শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের মান উন্নয়নে কাজ করে যাব। এলাকায় মাদক, সন্ত্রাস, জঙ্গিবাদ ও বাল্যবিয়ে প্রতিরোধ গড়ে তোলে ডিজিটাল এলাকা হিসেবে রুপান্তর করব সকলের সহযোগীতায়।

প্রসঙ্গত প্রকাশ, উপজেলার অর্জুনা ইউনিয়ন পরিষদের ৩ নং ওয়ার্ডের সদস্য শফিকুল ইসলাম সড়ক দূর্ঘটনায় মৃত্যুবরণ করায় এই ওয়ার্ডটি শূণ্য ঘোষণা করে নির্বাচন কমিশন। পরে ৩০ ডিসেম্বর এই ওয়ার্ডে ভোটগ্রহণের তারিখ ঘোষণা করা হয়।

(ভুঞাপুর সংবাদদাতা, ঘাটাইলডটকম)/-

মির্জাপুরে সমান ভোট পাওয়ায় লটারীতে আ’লীগ সম্পাদক নির্বাচিত

অবশেষে লটারীর মাধ্যমে মো. লিটন সিকদার টাঙ্গাইল জেলার মির্জাপুর উপজেলার বহুরিয়া ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত হয়েছেন। মঙ্গলবার (৩১ ডিসেম্বর) সন্ধায় সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি একাব্বর হোসেন এমপির বাস ভবনে এ লটারী অনুষ্ঠিত হয়।

এ সময় উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি একাব্বর হোসেন এমপি, উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মীর শরীফ মাহমুদ, সহ সভাপতি মোফাজ্জল হোসেন দুলাল, জেলা পরিষদ সদস্য সাইদুর রহমান খান বাবুল, উপজেলা যুবলীগের আহবায়ক শামীম আল মামুনসহ বহুরিয়া ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ ও সহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।

গত ১৫ অক্টোবর বহুরিয়া ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়। সম্মেলনে সভাপতি সম্পাদক পদে একাধিক প্রার্থী থাকায় কাউন্সিলরদের ভোট নেয়া হয়। ভোটে আব্দুল লতিফ সভাপতি নির্বাচিত হলেও সাধারণ সম্পাদক পদে মো. লিটন সিকদার ও আব্দুস সালাম সমান সমান ভোট পান। পরে কেউ কাউকে পদ ছেড়ে না দেয়ায় দীর্ঘ আড়াই মাস পর মঙ্গলবার লটারীর ব্যবস্থা করা হয়। এতে লিটন মিয়া সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত হয়েছেন।

এদিকে লটারীর মাধ্যমে নেতা নির্বাচিত করাকে কেন্দ্র করে বহুরিয়া ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ ও সহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মীদের মধ্যে কৌতুহলের সৃষ্টি হয়।

(মির্জাপুর সংবাদদাতা, ঘাটাইলডটকম)/-

বিদায় ২০১৯, স্বাগত ২০২০

আজ আমাদের জীবন থেকে বিদায় নেবে আরেকটি খ্রিস্টীয় বছর। ২০১৯ সালের শেষ সূর্যটি গোধূলির পর হারিয়ে যাবে মহাকালের গর্ভে। আর রাত ১২টা পেরোলেই শুরু হবে নতুন খ্রিস্টীয় বছর ২০২০। আজ রাত ১২টা পেরোলেই শুরু হবে নতুন খ্রিস্টীয় বছর ২০২০। আর ভোরবেলাতেই উদয় হবে নতুন বছরের নতুন সূর্য।

খ্রিস্টীয় বছর, গ্রেগরীয় বর্ষপঞ্জী, গ্রেগোরিয়ান বর্ষপঞ্জী, পাশ্চাত্য বর্ষপঞ্জী, ইংরেজি বর্ষপঞ্জি বা খ্রিষ্টাব্দ হল আন্তর্জাতিকভাবে প্রায় সর্বত্র স্বীকৃত বর্ষপঞ্জী। ১৫৮২ সালের ২৪ ফেব্রুয়ারি পোপ ত্রয়োদশ গ্রোগোরির এক আদেশানুসারে এই বর্ষপঞ্জীর প্রচলন ঘটে। সেই বছর কিছু মুষ্টিমেয় রোমান ক্যাথলিক দেশ গ্রেগোরিয় বর্ষপঞ্জী গ্রহণ করে এবং পরবর্তীকালে ক্রমশ অন্যান্য দেশসমূহেও এটি গৃহীত হয়।

পোপ ত্রয়োদশ গ্রেগরি কর্তৃক বর্ষপঞ্জী সংস্কারের প্রয়োজনীয়তা ছিল কারণ পূর্ববর্তী জুলিয়ান বর্ষপঞ্জীর গণনা অনুসারে একটি মহাবিষুব থেকে আরেকটি মহাবিষুব পর্যন্ত সময়কাল ধরা হয়েছিল ৩৬৫.২৫ দিন, যা প্রকৃত সময়কাল থেকে প্রায় ১১ মিনিট কম। এই ১১ মিনিটের পার্থক্যের ফলে প্রতি ৪০০ বছর অন্তর মূল ঋতু থেকে জুলিয়ান বর্ষপঞ্জীর প্রায় তিন দিনের ব্যবধান ঘটত। পোপ ত্রয়োদশ গ্রেগরির সময়ে এই ব্যবধান ক্রমশ বেড়ে দাঁড়িয়েছিল ১০ দিনের এবং ফলস্বরূপ মহাবিষুব ২১ মার্চের পরিবর্তে ১১ মার্চ পড়েছিল। যেহেতু খ্রিস্টীয় উৎসব ইস্টারের দিন নির্ণয়ের সাথে মহাবিষুব জড়িত সেহেতু মহাবিষুবের সাথে জুলিয়ান বর্ষপঞ্জীর এই ব্যবধান রোমান ক্যাথলিক গির্জার কাছে অনভিপ্রেত ছিল।

গ্রেগোরিয়ান বর্ষপঞ্জীর সংস্কার দু’টি ভাগে বিভক্ত ছিল: পূর্ববর্তী জুলিয়ান বর্ষপঞ্জীর সংস্কার এবং ইস্টারের তারিখ নির্ণয়ের জন্য গির্জায় ব্যবহৃত চান্দ্র পঞ্জিকার সংস্কার। জনৈক চিকিৎসক অ্যালয়সিয়াস লিলিয়াস কর্তৃক দেয় প্রস্তাবের সামান্য পরিবর্তন ঘটিয়ে এই সংস্কার করা হয়।

আমাদের জীবনের সব কর্মকাণ্ড ইংরেজি সালের গণনায় হয়, তাই খ্রিস্টীয় বছর অনেক গুরুত্বপূর্ণ। সেই বিবেচনায় বিদায়ী বছরটা কেমন গেল তার হিসাব কষবেন অনেকেই। ভালো, মন্দ, আনন্দ, বেদনার স্মৃতিগুলো আরো একবার রোমন্থন করবেন। একইভাবে জীবনের সব ধরনের নেতিবাচক বিষয়গুলোকে দূরে ঠেলে সুন্দর আগামীর প্রত্যাশায় নতুন করে পথচলার প্রত্যয় ব্যক্ত করবেন।

২০১৯ সালের সর্বশেষ দিন আজ। যার যার ব্যক্তিগত অভিজ্ঞতা, ভাবনায় বছরটি নানাভাবে মূল্যায়িত হবে। তবে আমাদের জাতীয় জীবনে বিদায়ী বছরটি ছিল অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। রাজনৈতিক, সামাজিক, অর্থনৈতিক, সাংস্কৃতিক, শিক্ষাসহ বিভিন্ন ক্ষেত্রে ২০১৯ বেশ ঘটনাবহুল একটি বছর। নানা ক্ষেত্রে অনেক চ্যালেঞ্জ এসেছে, ঘটেছে উত্থান-পতনের ঘটনা। তারপরও এগিয়ে যাচ্ছি আমরা।

শেষের ঘটনা দিয়ে শুরু করলে বলতে হয়- আরো একবার ডাক দিচ্ছে নির্বাচন। সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনের জন্য প্রস্তুত হচ্ছে ঢাকা। তাই এ নিয়ে নানা জল্পনা-কল্পনা চলছে সর্বত্র।

বিদায়ী বছরজুড়েই আলোচনায় ছিল বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার মুক্তির বিষয়টি। নানাভাবে আলোচিত হলেও তার মুক্তি মেলেনি। বিএনপি শুরু থেকেই এটাকে বলে এসেছে সরকারের কূটকৌশল আর আওয়ামী লীগ সব সময়ই বলে এসেছে এটা বিচারিক বিষয়।

ভৌগোলিক রাজনীতিতে ভারত উপমহাদেশ খুবই গুরুত্বপূর্ণ। কিন্তু ভারত সরকারের নতুন নাগরিকত্ব আইন সেখানে জনরোষের জন্ম দিয়েছে। যার আঁচ এসেছে তার আশপাশের দেশেও। রোহিঙ্গা গণহত্যায় মিয়ানমার সরকার আন্তর্জাতিকভাবে ধিকৃত হয়েছে।

আর বিশ্ববাসী দেখেছে কিভাবে আদালতে অং সান সু চি মিথ্যার অবতারণা করেছে। বছরজুড়ে দেশে আলোচনায় ছিল ডেঙ্গু। ডেঙ্গুর প্রকোপে মারা গেছে অনেক মানুষ। উৎকণ্ঠায় কেটেছে দেশবাসীর সময়। ফেনীতে ঘটে যাওয়া নুসরাত জাহান রাফি হত্যাকাণ্ড ও বুয়েটের আবরার ফাহাদ হত্যাকাণ্ড পুরো দেশকে নাড়িয়ে দিয়ে গেছে।

এছাড়া সারা বছরই নেতিবাচক অবস্থার কারণে বারবার সংবাদ শিরোনাম হয়েছে শেয়ারবাজার। ঘটনাবহুল ২০১৯ চলে যাচ্ছে। আরেকটি নতুন বছর আসছে জাতির জীবনে।

সবার প্রত্যাশা নানা চড়াই-উতরাই পেরিয়ে বাংলাদেশ উন্নয়নের পথে যে যাত্রা শুরু করেছে তা অব্যাহত থাকবে নতুন বছরেও। নানা বাধা-বিপত্তি পেরিয়ে ২০২০ সালে বাংলাদেশ এগিয়ে যাবে তার লক্ষ্যে।

(স্টাফ রিপোর্টার, ঘাটাইলডটকম)/-

সাফল্য ধরে রেখেছে ঘাটাইলের মুকুল একাডেমি কিন্ডারগার্টেন

টাঙ্গাইলের ঘাটাইল উপজেলার আধুনিক ও শিশুদের জন্য অন্যতম বিদ্যাপীঠ মুকুল একাডেমি কিন্ডার গার্টেন তাদের সাফল্য ধারাবাহিকভাবে অক্ষুন্ন রেখেছে। এবার পিএসসি পরীক্ষায় অংশগ্রহণকারী ছাত্র-ছাত্রীরা শতভাগ উত্তীর্ণ হয়েছে।

মুকুল একাডেমি কিন্ডার গার্টেন ২০১৯ সালে পিএসসি পরীক্ষায় অংশগ্রহণকারী ৩৫ জন পরীক্ষার্থীর মধ্যে ২৩ জন এ+, ১২ জন এ গ্রেড সহ শতভাগ পরীক্ষার্থী উত্তীর্ণ হয়েছে।

এ বিষয়ে পরীক্ষায় সাফল্যর বিষয়ে ঘাটাইল মুকুল একাডেমি স্কুলের অধ্যক্ষ উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) নূর নাহার বেগম জানান, আসলে আমরা বরাবর চেয়েছি মানসম্মত শিক্ষা ব্যাবস্থা নিশ্চিত করার। এ লক্ষে নিরলস চেষ্টা করে গেছি। যার ফলে আমরা সাফল্য পেয়েছি। ভবিষ্যতে ধারাবাহিকতা ধরে রাখার জন্য আপ্রাণ চেষ্টা করে যাবো ।

(উত্তম আর্য্য, ঘাটাইলডটকম)/-

সূর্যের দেখা মেলায় জনজীবনে স্থবিরতা কাটিয়ে স্বস্তি

টানা কয়েকদিনের তীব্র শীতে জনজীবনে স্থবিরতা নেমে এলেও গত দু’দিনে সূর্যের দেখা মেলায় কিছুটা স্বস্তি ফিরেছে জনজীবনে। তবে এখনো উত্তরের জনপদ পঞ্চগড় ও ঠাকুরগাঁওয়ে ছিন্নমূল মানুষের দুর্ভোগ কমেনি।

মঙ্গলবার (৩১ ডিসেম্বর) সকালে দেশের সর্বনিম্ন তাপমাত্রা পঞ্চগড়ে রেকর্ড করা হয়েছে ৫ দশমিক ২ ডিগ্রী সেলসিয়াস। সূর্যের মুখ দেখা গেলেও তীব্র ঠান্ডার কারণে সাধারণ মানুষকে খড়কুটো জ্বালিয়ে শীত নিবারণ করতে দেখা যায়। হেডলাইট জ্বালিয়ে রাস্তায় গাড়ি চলাচল করে।

এদিকে কুয়াশার সাথে হিমেল বাতাসে আরও কাহিল করে তুলেছে ঠাকুরগাঁওয়ের মানুষদের। সূর্যের দেখা মিললেও কনকনে ঠান্ডা উপেক্ষা করে কাজে ফিরতে শুরু করেছে খেটে-খাওয়া মানুষ।

এবারের ১৮ ডিসেম্বর থেকে হঠাৎই শুরু হয় শীতে দাপট। আবহাওয়া অফিসের পক্ষ থেকে জানানো হয় উত্তরের হাওয়া জোরদার, ঘন কুয়াশা এবং সূর্যের আলো দেখা না যাওয়ার কারণে এ সময়ে শীতের তীব্রতা বেড়ে যায়। ফলে রাজধানী ঢাকাসহ সারাদেশে শীতের কাঁপন শুরু হয়।

আবহাওয়াবিদরা জানান, এই সময়ে মূলত ঢাকা বিভাগ এবং ময়মনসিংহ বিভাগে শীত বেশি অনুভূত হয়েছে। এর কারণ হিসেবে তারা বলেন, এই দুই বিভাগে দিনের তাপমাত্রা যেমন কম ছিল তেমনি সর্বোচ্চ এবং সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ব্যবধান অনেক কম ছিল। ফলে গত কয়েকদিন ধরে ঢাকায় শীতে প্রচণ্ড দাপট লক্ষ্য করা যায়। তবে পরে সূর্যের দেখা মিললে তাপমাত্রা বেড়ে যায়। অবশ্য আকাশে মেঘের আনাগোনা রয়েছে।

তবে এখন তাপমাত্রা বাড়ায় ঢাকা সহ সারাদেশে শীতের তীব্রতা কমে এসেছে। সূর্যের হাসি শীতার্ত মানুষের মনে এনে দেয় খানিকটা স্বস্তি।

(স্টাফ রিপোর্টার, ঘাটাইলডটকম)/-

টাঙ্গাইলে ভাসানী বিশ্ববিদ্যালয়ে নিষিদ্ধ র‌্যাগিং

টাঙ্গাইল মাওলানা ভাসানী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ব বিদ্যালয়ে র‌্যাগিং নিষিদ্ধ করে মঙ্গলবার (৩১ ডিসেম্বর) বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করেছে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর- এর কার্যালয়। বিশ্ববিদ্যালয়ের সর্ব্বোচ্চ পর্ষদ রিজেন্ট বোর্ডের ২০৯ তম সভায় র‌্যাগিং নিষিদ্ধ করা হয়।

বিজ্ঞতিতে বলা হয়, র‌্যাগিং একটি সামাজিক অপরাধ। র‌্যাগিংয়ের ফলে বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার পরিবেশ বিঘ্নিত হয় এবং র‌্যাগিংয়ের শিকার ছাত্র-ছাত্রীর শারীরিক ও মানসিক সমস্যার সৃষ্টি হয়। রিজেন্ট বোর্ডের সিদ্ধান্ত মোতাবেক বিশ্ববিদ্যালয়ে র‌্যাগিং নিষিদ্ধ করা হয় ।

এরপরও কেউ যদি র‌্যাগিং করে বা র‌্যাগিং করতে উদ্বুদ্ধ করে মর্মে অভিযোগ পাওয়া যায় তবে তার বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ এবং তাৎক্ষণিক বহিস্কার করা হবে।

এ বিষয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর প্রফেসর ড. মোঃ সিরাজুল ইসলাম বলেন, আগামী ৫ ও ৬ জানুয়ারী, ২০২০ থেকে ২০১৯-২০ শিক্ষাবর্ষের ১ম বর্ষ ¯ স্নাতক শ্রেণীর ভর্তি কার্যক্রম শুরু হবে। এই সময়েই র‌্যাগিংয়ের প্রবণতা বেশি থাকে। আমরা প্রক্টরিয়াল বডি সব সময়ের জন্য সজাগ। র‌্যাগিংয়ের নামে শারীরিক ও মানসিক নির্যাতনের ব্যাপারে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন জিরো টলারেন্স নীতি মেনে চলবে এবং র‌্যাগিংয়ের সাথে সংশ্লিষ্টতা মিললেই তাৎক্ষণিক বহিস্কার করা হবে।

(ইমরুল হাসান বাবু, ঘাটাইলডটকম)/-

নাগরপুরে ২টি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ভবন ও রাস্তার ভিত্তি প্রস্তর স্থাপন

টাঙ্গাইলের নাগরপুরে দুইটি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের নতুন ভবন ও একটি রাস্তার নির্মাণ কাজের ভিত্তি প্রস্তর স্থাপন করেছেন স্থানীয় সাংসদ আহসানুল ইসলাম টিটু। মঙ্গলবার (৩১ ডিসেম্বর) সকালে, দোয়া ও মোনাজাতের মধ্য দিয়ে এ সকল ভবন ও রাস্তার ভিত্তি প্রস্তরগুলো স্থাপন করা হয়।

চাহিদা ভিত্তিক সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় উন্নয়ন প্রকল্পের (১ম পর্যায়) আওতায় (ঘইওউএচঝ) উপজেলার গাংবিহালী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, ডাংগা শালিনাপাড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় ও (গজজওউচ) এর আওতায় তেবাড়িয়া জিসি-দপ্তিয়র ইউপিসি অফিস রাস্তা চেইনেজ সড়ক নির্মাণ কাজের ভিত্তি প্রস্তর স্থাপন করা হয়।

এ উপলক্ষে গাংবিহালী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় মাঠে এক আলোচনা সভার আয়োজন করা হয়।

আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে স্থানীয় সাংসদ আহসানুল ইসলাম টিটু বলেন, বর্তমান সরকার প্রাথমিক শিক্ষার উন্নয়নে নানাবিধ পরিকল্পনা নিয়েছে। ভবন সংকটে বাচ্চাদের শিক্ষা গ্রহনে যেন কোন প্রকার বিঘ্ন না ঘটে সেই দিকে লক্ষ্য রেখে সরকার প্রতিটি বিদ্যালয়ে পর্যায় ক্রমে নতুন নতুন নির্মানের উদ্যোগ গ্রহন করেছে।

তিনি উপস্থিত জন সাধারনের উদ্দেশ্যে আরও বলেন, আপনারা সরকারের প্রতিটি উন্নয়ন প্রকল্পে সাথে থেকে সহযোগিতা করুন এবং আপনাদের বাচ্চাদের নিয়মিত বিদ্যালয়ে পাঠান।

এ সময় অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন, উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান মো. হুমায়ুন কবীর, উপজেলা প্রকৌশলী মো.মাহবুবুর রহমান , জেলা পরিষদের সদস্য শেখ কামাল হোসেন, দপ্তিয়র ইউপি চেয়ারম্যান এম ফিরোজ সিদ্দিকী, ভাদ্রা ইউপি চেয়ারম্যান মো. হাবিবুর রহমান, উপজেলা যুবলীগের আহবায়ক মীর আহম্মেদ শাহীন, যুগ্ম আহবায়ক মাফুজ রানা এমবি প্রমুখ।

(মাসুদ রানা, ঘাটাইলডটকম)/-

বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকী অনুষ্ঠানে ঢাকায় আসছেন ম্যারাডোনা

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী উপলক্ষে ঢাকায় আসছেন বিশ্বকাপজয়ী ফুটবলার ডিয়েগো ম্যারাডোনা।

মঙ্গলবার (৩১ ডিসেম্বর) বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশন (বাফুফে) সভাপতি কাজী মোহাম্মদ সালাউদ্দিন বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

তবে আর্জেন্টাইন কিংবদন্তি কবে নাগাদ এখানে আসবেন তা স্পষ্ট করে বলেননি তিনি।

বাফুফে সভাপতি জানিয়েছেন, মূলত বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকীতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে শুভেচ্ছা জানাতে আসবেন ম্যারাডোনা। প্রধানমন্ত্রী যেদিন সময় দিতে পারবেন, সেদিনই বাংলাদেশে আসবেন তিনি।

প্রসঙ্গত, ২০২০ সালের ১৭ মার্চ বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মগ্রহণের শততম বছর পূর্ণ হবে। এর আগে ১০ জানুয়ারি থেকে মুজিববর্ষ উদযাপন কার্যক্রম শুরু হবে।

(স্টাফ রিপোর্টার, ঘাটাইলডটকম)/-

দুর্নীতির দায়ে সখীপুরের সেই প্রধান শিক্ষক কফিল উদ্দিন চুরান্তভাবে বরখাস্ত

টাঙ্গাইলের সখীপুরের সুরীরচালা আবদুল হামিদ চৌধুরী উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মোহাম্মদ কফিল উদ্দিনকে চূড়ান্তভাবে বরখাস্ত করা হয়েছে। গত সোমবার (৩০ ডিসেম্বর) বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটির সভায় এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়।  ৩১ ডিসেম্বর মঙ্গলবার থেকে এ সিদ্ধান্ত কার্যকর হবে বলে ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক নুরুল ইসলাম জানিয়েছেন।

এর আগে নানা অনিয়ম ও বিদ্যালয়ের অর্থ আত্মসাত করার অভিযোগ এনে গত ৩১ অক্টোবরের ম্যানেজিং কমিটির সভায় তাঁকে (ওই প্রধান শিক্ষককে) সাময়িকভাবে বরখাস্ত করা হয়েছিল। ফলে ওইসময় জেএসসি পরীক্ষার কচুয়া ভেন্যু কেন্দ্রের হলসুপারের পদ থেকেও ওই প্রধান শিক্ষককে সরিয়ে দেওয়া হয়।

এ ব্যাপারে ওই বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি কাকড়াজান ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান তারিকুল ইসলাম জানান, ২০১৩ সালে কফিল উদ্দিন প্রধান শিক্ষক পদে নিয়োগ পাওয়ার পর তাঁর স্ত্রীকে গোপনে সহকারী গ্রন্থগারিক পদে নিয়োগ দেয়। এছাড়াও বিদ্যালয়ের এক লাখ ৭০ হাজার টাকা ব্যাংক থেকে তুলে তার বিপরীতে কোনো খরচের ভাউচার বিদ্যালয়ে জমা দেননি। অন্যদিকে বিদ্যালয়ের নিজস্ব সম্পত্তি ও অন্যান্য খাত থেকে আয় হওয়া ১৫ লাখ ১৫ হাজার ৪১০ টাকাও ব্যাংক হিসাবে জমা না দিয়ে আত্মসাত করেন।

প্রধান শিক্ষকের বিরুদ্ধে অর্থ আত্মসাত ও গোপনে স্ত্রীকে নিয়োগসহ নানা অনিয়ম তদন্তে তিন সদস্যের একটি কমিটি গঠন করা হয়। ওই তদন্ত কমিটি ওইসব অনিয়মের সত্যতা খুঁজে পায় ও প্রধান শিক্ষকের বিরুদ্ধে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের সুপারিশ করেন।  তদন্ত কমিটির প্রতিবেদন পর্যালোচনা করে গত ৩১ অক্টোবরের সভায় প্রধান শিক্ষক কফিল উদ্দিনকে সাময়িকভাবে বরখাস্ত করার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয় বলে তিনি জানান।

উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা মফিজুল ইসলাম  বলেন,  বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটির দেয়া প্রধান শিক্ষককে চূড়ান্তভাবে বরখাস্ত করার চিঠির অনুলিপি আমার কার্যালয়ে এসে পৌঁছেছে। এখন ওই বরখাস্তের কপি মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা অধিদপ্তরের আপিল অ্যান্ড অরপিটিশন বোর্ডের অনুমতির জন্য পাঠানো হবে।

চূড়ান্তভাবে বরখাস্ত করার বিষয়ে জানতে চাইলে  কফিল উদ্দিন বলেন, তাঁর বিরুদ্ধে আনীত অভিযোগ সত্য নয়। তিনি ষড়যন্ত্রের শিকার হয়েছেন। তিনি আরও বলেন সাময়িক বরখাস্তের চিঠি পাওয়ার পর ওই বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি তারিকুল ইসলামকে বিবাদী করে টাঙ্গাইলের আদালতে গত ১৯ নভেম্বর একটি মামলা করা হয়েছে। মামলাটি মীমাংসা না হওয়ার আগেই আমাকে চূড়ান্তভাবে বরখাস্ত করা বৈধ হয়নি।

সুরীরচালা আবদুল হামিদ চৌধুরী উচ্চবিদ্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক নুরুল ইসলাম কফিল উদ্দিনের বরখাস্ত বিষয়ের সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, আগামী ৫ জানুয়ারির মধ্যে বরখাস্ত হওয়া প্রধান শিক্ষককে বিদ্যালয়ের যাবতীয় দায়িত্ব হস্তান্তরপূর্বক অব্যাহতি নেওয়ার জন্য অনুরোধ করা হয়েছে।

(সখীপুর সংবাদদাতা, ঘাটাইলডটকম)/-