৬ দফা দাবিতে ঘাটাইলে মুক্তিযোদ্ধার একাকী প্রতিবাদ

ঘাটাইলে মুক্তিযোদ্ধার অভিনব দাবি

বুকে ব্যানার, মুখে প্রতিবাদের ভাষা। একাকি দাড়িয়ে আছেন তিনি। তার এ দাবি আর প্রতিবাদ দীর্ঘ দিনের। এ যেন এক সুতোয় গাঁথা । তার দাবি ও প্রতিবাদ সংবাদ পত্রেও প্রকাশ হয়েছে একাধিকবার। কিন্তু কোন কাজ হয় নাই। তবুও থেমে নেই তার প্রতিবাদের ভাষা।

মরে যাবার আগে তার দাবি বাস্তবায়ন দেখতে চান তিনি। আর এ জন্য তিনি চাইছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার হস্তক্ষেপ।

বুধবার (২৫ মার্চ) বিকেল সাড়ে ৫ টায় টাঙ্গাইলের ঘাটাইল উপজেলা পরিষদ চত্বরে নির্বাক দাড়িয়ে থাকতে দেখা যায় সত্তুরোর্ধ এ বৃদ্ধকে। আর তিনি হচ্ছেন বীর মুক্তিযোদ্ধা মকবুল হোসেন।

অভিনব এ দাবির বিষয় জানতে চাইলে তিনি ঘাটাইল ডট কমকে বলেন, ঘাটাইল উপজেলায় সব মিলিয়ে সত্যিকারে মুক্তিযোদ্ধা হতে পারে ৫‘শ জন। সেখানে ভাতা পাচ্ছে ১২ শতাধিক। তাই নির্ভুল তালিকা না করে গেজেট প্রকাশ না করা হচ্ছে আমার প্রথম দাবি।

দ্বিতীয় দাবি হচ্ছে- যাচাই বাছাই না করে মুক্তিযোদ্ধাদের গৃহ নির্মান করে দিলে প্রকৃত মুক্তিযোদ্ধারা বঞ্চিত হবে। রাজাকার আলবদর ও অমুক্তিযোদ্ধাদের ভাতা বন্ধ করতে হবে।

মুজিব শতবর্ষে এ দাবিসহ ৬ দাবি বাস্তবায়ন হলে মরেও আত্মার শান্তি হবে বলে তিনি জানান।

(খান ফজলুর রহমান, ঘাটাইল ডট কম)/-