৩ দিনের ১৪৪ ধারার দ্বিতীয় দিন শুক্রবারে থমথমে টাঙ্গাইল

টাঙ্গাইল শহরের বিভিন্ন এলাকায় তিন দিনের ১৪৪ ধারার দ্বিতীয় দিন শুক্রবারও (২২ নভেম্বর) শহরের পরিবেশ থমথমে অবস্থা বিরাজ করছে। শহরের গুরুত্বপূর্ণ পয়েণ্টে ১৪৪ ধারার বহাল রাখা ও পরিস্থিতি স্বাভাবিক রাখতে নিয়মিত পুলিশ ও ডিবি পুলিশের পাশাপাশি অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। টাঙ্গাইল- ৩ (ঘাটাইল) আসনের এমপি আতাউর রহমান খানের ছেলে আমিনুর রহমান খান বাপ্পির ১৬তম মৃত্যুবার্ষিকী পালন নিয়ে আওয়ামী লীগের বিবদমান দুই গ্রুপ মুখোমুখি অবস্থান নেওয়ায় সংঘর্ষ এড়াতে টাঙ্গাইল শহরে ও আশেপাশের এলাকায় ৩ দিন ১৪৪ ধারা জারি করে প্রশাসন। এদিকে বাপ্পীর ১৬তম মৃত্যুবাষির্কী উপলক্ষে আজ শুক্রবারের (২২ নভেম্বরের) আলোচনা সভাসহ সকল কর্মসুচী স্থগিত করা হয়েছে বলে পরিবারের পক্ষ থেকে জানিয়েছেন তার ভাই সাবেক এমপি আমানুর রহমান খান রানা। আজ শুক্রবার (২২ নভেম্বর) দুপুরে তার ফেসবুক পেইজে এ বিষয়ে ঘোষনা দেন তিনি।

শুক্রবার ভোর থেকে শহরের বিভিন্ন অলি-গলি ও গুরুত্বপূর্ণ মোড়গুলোতে অতিরিক্ত পুলিশের সতর্ক অবস্থান লক্ষ করা যায়। শহরে থমথমে অবস্থা বিরাজ করায় যেকোন অপ্রীতিকর পরিস্থিতি মোকাবেলায় পুলিশসহ প্রশাসন সর্তক অবস্থায় রয়েছে।

টাঙ্গাইল মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ(ওসি) মীর মোশারফ হোসেন জানান, আওয়ামী লীগের দু’গ্রুপের পাল্টা-পাল্টি কর্মসূচির কারণে সংঘর্ষের সম্ভাবনা দেখা দেয়ায় জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে ১৪৪ ধারা জারি করা হয়। জনগনের জান-মাল রক্ষার্থে শহরে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। অতিরিক্ত নিরাপত্তার স্বার্থে বেশ কিছু জায়গায় চেকপোষ্ট বসানো হয়েছে।

টাঙ্গাইল-২ (গোপালপুর-ভূঞাপুর) আসনের সংসদ সদস্য ও জেলা আওয়ামী লীগের বিজ্ঞান ও প্রযুািক্ত বিষয়ক সম্পাদক তানভির হাসান ছোট মনির জানান, গণধিকৃত খান পরিবারের পক্ষ থেকে তাদের পেশী শক্তির মহড়া ও বীর মুক্তিযোদ্ধা ফারুক আহমদ হত্যাকান্ডের বিচার প্রক্রিয়ায় প্রভাব বিস্তারের জন্যই আমিনুর রহমান খান বাপ্পীর ১৬তম মৃত্যুবার্ষিকীতে নানা কর্মসূচি ঘোষণা করে। বাধ্য হয়ে নির্যাতিত আওয়ামী পরিবারের পক্ষে আ’লীগ নেতারা পাল্টা কর্মসূচি দেয়।

তিনি আরো জানান, তারা আইনের শাসনে বিশ্বস করেন। প্রশাসন যেহেতু ১৪৪ ধারা জারি করেছে, তারা তা মেনে ঘোষিত কর্মসূচিগুলো পরবর্তীতে করবেন।

এ প্রসঙ্গে টাঙ্গাইল-৫(সদর) আসনের সংসদ সদস্য মো. ছানোয়ার হোসেন জানান, জেলা প্রশাসন জনসাধারণের মঙ্গল চিন্তা করেই শহরে ১৪৪ ধারা জারি করেছেন। সকলেরই ধৈর্যের সাথে আইনের প্রতি শ্রদ্ধাশীল থাকা উচিত।

টাঙ্গাইলের অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট মো. শহিদুল্লাহ জানান, টাঙ্গাইলের সাবেক এমপি আমানুর রহমান খান রানার বড় ভাই আমিনুর রহমান খান বাপ্পীর মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে বিভিন্ন কর্মসূচি পালনের অনুমতি চেয়ে আবেদন করা হয়। অপরদিকে, আরেকটি পক্ষ একই সময় একই স্থানে বিভিন্ন কর্মসূচি পালনের অনুমতি চেয়ে আবেদন করলে আইনশৃঙ্খলা অবনতির শঙ্কায় শহরের শহীদ স্মৃতি পৌর উদ্যান, শহীদ মিনার, নিরালার মোড়, পুরাতন বাসস্ট্যান্ড ও বিভিন্ন সড়কের গুরুত্বপূর্ণ স্থান এবং এর আশেপাশের এলাকায় বৃহস্পতিবার(২১ নভেম্বর) ভোর পাঁচটা থেকে শনিবার (২৩ নভেম্বর) সন্ধ্যা সাতটা পর্যন্ত ১৪৪ ধারা জারি করা হয়েছে।

(টাঙ্গাইল সংবাদদাতা, ঘাটাইলডটকম)/-