১৯৭৫ সালের ১৫ আগষ্ট আমি মারা গেছি: কাদের সিদ্দিকী

কৃষক শ্রমিক জনতা লীগ প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি বঙ্গবীর আব্দুল কাদের সিদ্দিকী বীর উত্তম বলেছেন, আগষ্ট মাস আমার জন্য কঠিন মাস। ১৯৭৫ সালের ১৫ আগষ্ট আমি (কাদের) মারা গেছি। শুক্রবার (২ আগস্ট) বিকালে টাঙ্গাইলের সখীপুরে নিজ বাসায় উপজেলা কৃষক শ্রমিক জনতা লীগ সভাপতি মুক্তিযোদ্ধা আতোয়ারের স্বরন সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

তিনি বলেন, এখন আর বঙ্গবন্ধুর আদর্শের রাজনীতি নেই। একজন মুক্তিযোদ্ধা মারা গেলে সকল মুক্তিযোদ্ধা মৃত মুক্তিযোদ্ধার পাশে দাঁড়ানোর কথা। কিন্তু মুক্তিযোদ্ধা আতোয়ারের স্মরণ সভায় কোন মুক্তিযোদ্ধা আসেনি। একজন মুক্তিযোদ্ধাকে গায়েবী মামলায় ১৬ ডিসেম্বর গ্রেফতার করা হয় এবং দুইহাতে হ্যান্ডকাপ পড়ানো হয়েছে। আবার সেই আতোয়ার মারা যাওয়ার পর মুক্তিযোদ্ধা হিসাবে রাস্ট্রীয় মর্যাদায় দাফন করা হয়।

তিনি আরও বলেন, আমি মুক্তিযোদ্ধাদের জন্য ভাতা চেয়েছিলাম বলে আজ ১০/১২ হাজার টাকা ভাতা পায়। অথচ এ ভাতা এক লাখ টাকা হওয়া উচিত।

আব্দুস সবুর এর সভাপতিত্বে উক্ত স্মরণ সভায় অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন, হাবিবুর রহমান খোকা বীরপ্রতীক, নাসরিন সিদ্দিকী, কুঁড়ি সিদ্দিকী, দুলাল হোসেন, হাবিবুন্নবী সোহেল প্রমুখ।

কাদের সিদ্দিকী আরো বলেন, আমি মানুষ হয়েই বেঁচে থাকবো, মানুষকে অমানুষ করা কোন নেতার কাজ না, মানবতাহীন মানুষ পশুর সমান। দেশের প্রধানমন্ত্রী দূর্যোগের সময় মানুষের পাশে না থেকে বিদেশ থেকে খোঁজ-খবর রাখেন, আরেক মন্ত্রী তা বলে বেড়ান।

(সখীপুর সংবাদদাতা, ঘাটাইলডটকম)/-