স্ত্রীর মামলায় আটক সখীপুর ছাত্রদলের সাবেক সভাপতি

টাঙ্গাইলের সখীপুরে স্ত্রীর ও দুই কন্যা শিশুর পিতৃ পরিচয়ের দাবীতে দায়ের করা মামলায় সখীপুর উপজেলা ছাত্রদলের সাবেক সভাপতি ইলিয়াছ কাসেম ওরফে কটা কাসেমকে (৪২) গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

মঙ্গলবার (১৫ সেপ্টেম্বর) রাতে পৌরসভার মুক্তার ফোয়ারা চত্ত্বর থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়।

গত ১৬ জানুয়ারি বিজ্ঞ সিনিঃ জুডি: ম্যাজিস্ট্রেট সখীপুর আমলী আদালত, টাঙ্গাইল-এ  নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে  একই ওয়ার্ডের বসবাসকারী লাকী আক্তার (৩৩) এর  স্ত্রীর ও সন্তানদের অধিকার দাবিতে দায়ের করা মামলায় ইলিয়াস কাশেমকে গ্রেফতার করা হয়।

গ্রেফতারকৃত কাসেম পৌরসভার ৮ নম্বর ওয়ার্ডের মো: নুরুল ইসলাম ওরফে বঙ্গনূর মাস্টার-এর ছেলে ।

জানা যায়, ২০১০ সালের ১০ ফেব্রুয়ারী  সখীপুর পৌরসভার ৮ নং ওয়ার্ডের মো: নুরুল ইসলাম ওরফে বঙ্গনূর মাস্টার-এর ছেলে ইলিয়াস কাশেম ১,০০,০০০/= (এক লক্ষ) টাকা দেনমোহর ধার্য করে গোপালপুর উপজেলার আলমনগর ইউনিয়ন কাজি শেখ মো: আবুল হোসেন মেয়াজীর মাধ্যমে অভিযোগকারীর লাকী আক্তার-এর বিবাহ সম্পন্ন হয়।

ইলিয়াছ কাসেমের পূর্বের বউ থাকায় বিয়ের পর থেকেই  লাকী আক্তারকে অন্যত্র বাসা ভাড়া করে রাখতেন। তাদের ঘরে  সান্তনা (৯) ও  সুমাইয়া (৫) নামের দুটি কন্যা সন্তানেরও জন্ম নেয়। গত দুই বছর যাবৎ ইলিয়াছ কাসেম স্ত্রী লাকি আক্তার ও তার দুই সন্তানের কোন খোঁজ নেন না। বাসাভাড়া ও সন্তানদের খরচ বাবদ টাকা পয়সা চাইতে গেলে কাশেম এক পর্যায়ে স্ত্রী লাকী আক্তার  ও সন্তানদের অস্বীকার করেন।

পরে গত ১৬ জানুয়ারি লাকী আক্তার স্ত্রী ও সন্তানদের অধিকার দাবিতে  সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট সখীপুর আমলী আদালত, টাঙ্গাইল-এ  নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে মামলা করেন।

এ ব্যাপারে লাকী আক্তার বলেন, কাশেম আমাকে স্ত্রী ও সন্তানদের সন্তান হিসেবে অস্বীকার করায় আমি ও আমার সন্তানদের ভবিষ্যৎ নিয়ে অনিশ্চয়তার মধ্যে আছি। সামাজিকভাবে মান-সম্মান নিয়ে বেচেঁ থাকার মৌলিক অধিকারটুকুও হারাতে বসেছি। আমি সন্তানদের নিয়ে আমার অধিকার ফিরে পেতে চাই।

অপরদিকে ইলিয়াছ কাসেম আমাদের বিবাহের কাবিননামা ভুয়া দাবি করে নিকাহ রেজিস্টার (কাজি) কর্তৃক প্রাপ্ত সনদের ভিত্তিতে আমার বিরুদ্ধে আদালতে একটি প্রতারণা মামলাও দায়ের করেছেন।

সখীপুর থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) ওমর ফারুক বলেন, নারী ও শিশু নির্যাতন দমন মামলার ওয়ারেন্টভূক্ত আসামী ইলিয়াছ কাসেমকে গ্রেফতার করে টাঙ্গাইল আদালতে পাঠানো হয়েছে।

(এম সাইফুল ইসলাম শাফলু, ঘাটাইল ডট কম)/-