সীমান্তে ভারতের হাতে নিহতদের ঢাকায় গায়েবানা জানাজা

দেশের বিভিন্ন সীমান্তে ভারতীয় সীমান্তরক্ষী বাহিনী বিএসএফের হাতে নিহত বাংলাদেশিদের গায়েবানা জানাজা অনুষ্ঠিত হয়েছে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে। শনিবার (২৫ জানুয়ারি) বিকেলে বিশ্ববিদ্যালয়ের সন্ত্রাসবিরোধী রাজু ভাস্কর্যে ‘বাংলাদেশের নাগরিকগণ’ এর ব্যানারে গায়েবানা জানাজার আয়োজন করা হয়।

এতে ছাত্র-শিক্ষক, মানবাধিকারকর্মী ও সাধারণ জনগণ অংশ নেন। ইমামতি করেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সমাজবিজ্ঞান বিভাগের চতুর্থ বর্ষের শিক্ষার্থী আকরাম হোসেন।

জানাজা পূর্ববর্তী সমাবেশে বক্তব্যে ব্র্যাক বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক খন্দকার রাকিব বলেন, মানবাধিকার সংগঠন ‘অধিকার’ এর তথ্যমতে, ২০১১ সাল থেকে আজ পর্যন্ত সর্বমোট ১১৮৫ জন মানুষকে বিনা বিচারে, বিনা কারণে খুন করা হয়েছে। তার সঙ্গে সঙ্গে ১১২৮ জনকে আহত করা হয়েছে। তার চেয়ে ভয়ঙ্কর তথ্য হলো ১৪’শর মতো মানুষকে গুম করা হয়েছে। একইসঙ্গে অনেক নারীকে ধর্ষণ করা হয়েছে।

সমাবেশে আরেক নাগরিক মাহমুদুন নবী বলেন, সীমান্তে হত্যার পর কেন বাংলাদেশ সরকার কোনোকিছু বলছে না। আমরা কি বুঝে নেব ভারতের কাছে আমাদের হাত-পা বাঁধা, নাকি ভারতের কাছে আমাদের সরকারের মাথা। আমরা কি ভারতের কাছে আমাদের মাথা বেচে দিয়েছি, না সরকার ভারতের কাছে মাথা বেচে দিয়েছে। আজ সময় এসেছে প্রতিবাদ করার। আমাদের ঘুরে দাঁড়াবার।

জানাজা শেষে ক্যাম্পাসে বিক্ষোভ মিছিল বের করা হয়। বিক্ষোভ মিছিলে ‘দিল্লি না ঢাকা? ঢাকা ঢাকা’, ‘সিকিম বা ভুটান নয়, এটা সোনার বাংলাদেশ’, ‘দালালি আর করিস নারে, পিঠের চামড়া থাকবে নারে’, ‘ভারতের দালালরা, হুঁশিয়ার সাবধান’, ‘সীমান্তে হত্যা কেন? শেখ হাসিনা জবাব দাও’ ইত্যাদি স্লোগান দেন।

(জাগোনিউজ, ঘাটাইলডটকম)/-