সিরাজগঞ্জে ১০ মিনিটে শিশুশ্রমিক থেকে ছাত্রী হয়ে গেলো সুমি

সিরাজগঞ্জের চৌহালী উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ভার:) জনাব মো: আনিসুর রহমানের মহানুভবতায় সুমি খাতুন নামক একটি মেয়ে মাত্র ১০ মিনিটে শিশুশ্রমিক বা দিনমজুর থেকে স্কুলছাত্রী হয়ে গেছে। ঘটনাটি ঘটেছে আজ বুধবার (১১ এপ্রিল) উপজেলার নাগডেমরা ইউনিয়নে।

জানা যায়, চৌহালী উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো: আনিসুর রহমান ৪০ দিনের কাজের বিনিময়ে খাদ্য কর্মসুচী দেখতে নাগডেমরায় গিয়েছিলেন। সেখানে একশ আট জন শ্রমিকের মধ্যে উপস্থিত রয়েছেন ৭২ জন। অনুপস্থিত ৩৬ জনের বিল কর্তনের আদেশ দিলেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার। এরমধ্যে এই মেয়েটিকে (সুমি) দেখেই ইউএনও জিজ্ঞাসা করলেন, এত ছোট মেয়ে কাজে কেন? সবাই বলল, তার বাবা-মা নাই, নানীর সাথে বদলী হিসেবে আছে। সুমি বললো, অভাবের কারনে লেখাপড়া বাদ দিয়েছে। তখনই তাকে নিজের ব্যবহৃত গাড়িতে করে নিয়ে উপজেলার সোনাতলা পশ্চিম পাড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে (সে যে স্কুলে পড়ত) নতুন করে চতুর্থ শ্রেণীতে ভর্তি করিয়ে দিয়ে নতুন বই যত্নে তুলে দিলেন আনিসুর রহমান।

চৌহালী উপজেলা নির্বাহী অফিসার আনিসুর রহমান

পাশাপাশি সুমির পড়ালেখার যাবতীয় খরচ চালানোর প্রতিশ্রুতি দিলেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার। এসময় স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান, উপজেলা সহকারী শিক্ষা অফিসার এবং সোনাতলা পশ্চিম পাড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষককে নিয়মিত তার খোজখবর রাখার অনুরোধ জানিয়ে কর্মস্থলে ফিরে আসলেন মোঃ আনিসুর রহমান।

স্কুলে সুমির রোল নম্বর হয়েছে ২৬। মেয়েটির বাবার নাম মোঃ জুয়েল শেখ।

এ বিষয়ে চৌহালী উপজেলা নির্বাহী অফিসার আনিসুর রহমান বলেন, ‘আমাদের আশেপাশে এরকম আরও অনেক সুমি আছে। সবাই যদি তাদের পাশে একটু দাড়াই, তাহলে দেশটা আরেকটু এগিয়ে যেত।’

(নিজস্ব প্রতিবেদক, ঘাটাইল.কম)/-