সখীপুরে ধর্মসভায় যাওয়ার পথে স্কুলছাত্রীকে ধর্ষণ চেষ্টা ব্যবসায়ীর

টাঙ্গাইলের সখীপুরে লুৎফর রহমান (৪০) নামের এক ব্যবসায়ীর বিরুদ্ধে ৭ম শ্রেণির এক ছাত্রীকে ধর্ষণের চেষ্টার অভিযোগ পাওয়া গেছে। গত শুক্রবার রাতে স্থানীয় একটি মসজিদের ধর্মসভায় যাওয়ার পথে ওই ছাত্রীকে জোরপূর্বক ধর্ষণের চেষ্টা করে। এ সময় মেয়েটির চিৎকারে আশপাশের লোকজন চলে এলে বখাটে লুৎফর দৌড়ে পালিয়ে যায়। বিষয়টি মীমাংসায় ওই রাত থেকেই মেয়েটির পরিবারকে চাপদিতে থাকে লুৎফরের পরিবার। অবশেষে সোমবার (২০ জানুয়ারি) রাতে ওই ছাত্রীর মা বাদী হয়ে বখাটে লুৎফর রহমানকে একমাত্র আসামী করে সখীপুর থানায় ধর্ষণের চেষ্টার অভিযোগে মামলা করেন।

বখাটে লুৎফর রহমান উপজেলার কচুয়া ভূইয়াপাড়া গ্রামের শামসু মিয়ার ছেলে এবং কচুয়া বাজারে রুমাইয়া ইলেকট্রনিক্স ব্যবসা প্রতিষ্ঠানের মালিক।

ঘটনার পর থেকে মেয়েটি লজ্জায় আর বাড়ি থেকেও বের হচ্ছে না বিদ্যালয়েও যাচ্ছে না। অন্যদিকে অভিযুক্ত লুৎফর রহমানও ব্যবসা প্রতিষ্ঠান বন্ধ করে ঘা ডাকা দিয়েছে।

মেয়েটির মা মামলার বাদী জানান, শুক্রবার রাতে বাড়ির পাশে একটি মসজিদের ধর্মসভা শুনতে গেলে মেয়েটির গতিরোধ করে লুৎফর রহমান জোরপূর্বক ধর্ষণের চেষ্টা করে। এ সময় তার চিৎকারে আশপাশের লোকজন এগিয়ে এলে লুৎফর দৌড়ে পালিয়ে যায়। তিনি বলেন- পরিবারের সম্মানের কথা ভেবে ও গ্রামের মাতাব্বরদের অনুরোধে বিষয়টি মীমাংসার চেষ্টা হওয়ায় মামলা করার জন্য আমরা সঠিক সময়ে থানায় আসতে পারিনি। তিনি বখাটে লুৎফর রহমানের দৃষ্টান্তমূলক বিচার দাবি করেন।

অভিযুক্ত ব্যবসায়ী লুৎফর রহমানের মুঠোফোনে বারবার যোগাযোগ করা হলে তিনি ফোন রিসিভ করেননি।

সখীপুর থানা অফিসার্স ইনচার্জ মো.আমির হোসেন বলেন- ধর্ষণের চেষ্টার অভিযোগে থানায় মামলা হয়েছে। অভিযুক্ত লুৎফর রহমানকে গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।

(সখীপুর সংবাদদাতা, ঘাটাইলডটকম)/-