মুন্সিগঞ্জে কর্মরত মধুপুরের ফারুক হোসেন ঢাকা অঞ্চলে শ্রেষ্ঠ অফিসার ইনচার্জ

মুন্সিগঞ্জ জেলার চর আব্দুল্লাহপুর নৌ পুলিশ ফাঁড়ীর অফিসার ইনচার্জ ফারুক হোসেন ঢাকা অঞ্চলের শ্রেষ্ঠ অফিসার ইনচার্জ নির্বাচিত হয়েছেন। তিনি টাঙ্গাইলের মধুপুর উপজেলার মহিষমারা গ্রামের কৃতী সন্তান।

৩১শে আগষ্ট সোমবার সকাল ১০টায় মিরপুরে ঢাকা অঞ্চলের পুলিশ সুপার ফরিদ উদ্দিন আহমেদ এর কার্যালয়ের কনফারেন্স রুমে জুলাই/২০২০ মাসের মাসিক অপরাধ সভা অনুষ্ঠিত হয়।

সভায় সভাপতিত্ব করেন, ঢাকা অঞ্চলের পুলিশ সুপার (এসপি) ফরিদ উদ্দিন আহমেদ।

উক্ত সভায় ঢাকা অঞ্চলের ৪৫টি ইউনিটের আইন-শৃঙ্খলা পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ সহ বিভিন্ন বিষয়ে আলোচনা করা হয় এবং ভালো কাজের স্বীকৃতি স্বরূপ বিভিন্ন পদমর্যাদার পুলিশ সদস্যদেরকে পুরস্কৃত করা হয়।

এসময় সাহসিকতার সাথে চর আব্দুল্লাহপুর নৌ পুলিশ ফাঁড়ী এলাকার ২৭ জন কুখ্যাত ডাকাতকে গ্রেফতার, বিপুল পরিমাণে অবৈধ কারেন্ট জাল জব্দ করা, নদী থেকে অবৈধভাবে বালু উত্তোলন বন্ধ করা এবং মৎস সম্পদ সংরক্ষণে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখার পাশাপাশি ৫টি নিয়মিত মামলা রুজু করার স্বীকৃতি হিসাবে তার হাতে সফল অফিসার ইনচার্জের পুরষ্কার তুলে দেন ঢাকা অঞ্চলের পুলিশ সুপার (এসপি) ফরিদ উদ্দিন আহমেদ।

জানা যায়, ফারুক হোসেন গত জুন মাসে চর আব্দুল্লাহপুর নৌ ফাঁড়ীর অফিসার ইনচার্জ হিসাবে যোগদান করেন। যোগদান করার দুই মাসের মধ্যেই তিনি প্রায় ত্রিশ জন জলদস্যুকে গ্রেফতারের পাশাপাশি পাঁচটি নিয়মিত মামলা রুজু করা সহ অবৈধ কারেন্ট জাল জব্দ, নদী থেকে অবৈধভাবে বালু উত্তোলন বন্ধ এবং মৎস্য সম্পদ সংরক্ষণে অসামান্য অবদান রেখেছেন। যার স্বীকৃতি স্বরূপ তাকে এই পুরষ্কার প্রদান করা হয়।

উল্লেখ্য, ফারুক হোসেন ২০১০ সালে আউটসাইড ক্যাডেট হিসাবে ৩২তম ব্যাচে সাব ইন্সপেক্টর হিসেবে বাংলাদেশ পুলিশে যোগদান করেন। এরপর ২০১১ সালে সারদা পুলিশ একাডেমী থেকে সফলভাবে প্রশিক্ষণ শেষে ময়মনসিংহের বিভিন্ন থানায় সাব ইন্সপেক্টর হিসেবে দ্বায়িত্ব পালন করেন। পরবর্তীতে পোস্টিং নিয়ে ঢাকার মোহাম্মদপুর থানায় যোগদান করেন। মোহাম্মদপুর থানার মাদক নিয়ন্ত্রণ এবং কিশোর গ্যাং ধ্বংস করার ক্ষেত্রে অসামান্য অবদানের স্বীকৃতি হিসাবে তিনি অফিসার ইনচার্জ হিসাবে পদোন্নতি লাভ করেন।

পরবর্তীতে তিনি অফিসার ইনচার্জ হিসাবে মুন্সিগঞ্জের চর আব্দুল্লাহপুর নৌ পুলিশ ফাঁড়ীতে সফলভাবে দ্বায়িত্ব পালন করে আসছেন।

জানা যায়, অর্থের পিছনে না ছুটে মানবতার সেবায় নিজেকে সর্বদাই নিজেকে নিয়োজিত রেখেছেন এই অকুতোভয় যোদ্ধা। গ্রামের বাড়ির জরাজীর্ণ ঘরটা যার জলন্ত প্রমাণ। টাঙ্গাইলের মধুপুর উপজেলার মহিষমারা গ্রামের কৃতী সন্তান ফারুক হোসেন নিষ্ঠা ও সততার সঙ্গে দ্বায়িত্ব পালনের মাধ্যমে পুলিশ ডিপার্টমেন্ট এবং দেশের ভাবমূর্তি উজ্জ্বল করবেন এমনটাই প্রত্যাশা মধুপুরবাসীর।

ফারুক হোসেনের বাবার নাম আবু সাইদ মিয়া, মা রেখা বেগম। তার স্ত্রী ও চার বছরের এক ছেলে সন্তান রয়েছে।

(স্টাফ রিপোর্টার, ঘাটাইল ডট কম)/-

Print Friendly, PDF & Email