মির্জাপুরে সরকারি বই ৮ টাকা কেজি দরে বিক্রি করছেন প্রধান শিক্ষক!

শিক্ষাই জাতির মেরুদন্ড। যে বই দিয়ে শুরু হয় শিক্ষা জীবন সেই বিনামূল্যের সরকারি বই সরকারকে ফেরত না দিয়ে কেজি দরে বিক্রি করা হচ্ছে। ঘটনাটি ঘটেছে টাঙ্গাইলের মির্জাপুর উপজেলার বহুরিয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে। শনিবার (১৬ ফেব্রুয়ারি) সরেজমিনে ঘুরে বিদ্যালয়ের ভিতরেই এর প্রমাণ মেলে। বইগুলো বস্তাবন্দি করার চিত্রটি সাংবাদিকরা স্বচোখে দেখলেও চুরি করে বই বিক্রির কথা অস্বীকার করেছেন বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক কাজী গোলাম সারোয়ার।

তবে নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক বই ক্রেতাদের মধ্যে একজন জানান, আট টাকা কেজিতে ওই বইগুলো ক্রয় করেছেন তারা। সে অনুযায়ী প্রধান শিক্ষক তাদের কাছ থেকে নিয়েছেন দুই হাজার ৭৫০ টাকা। বিনামূল্যে সরকারি বই বিক্রি করার কোন এখতিয়ার না থাকা স্বত্তেও প্রধান শিক্ষক ওই বইগুলো বিক্রি করেন। বইয়ের পরিমাণ বেশি হলে শিক্ষা অফিসে জমা দেয়ার কথা থাকলেও তিনি বইগুলো জমা দেননা। ওই বইগুলোর মধ্যে বর্তমান শিক্ষাবর্ষের নতুন বইও রয়েছে বলে জানা গেছে।

বই ক্রেতা আরও জানান, উপজেলার অধিকাংশ স্কুলেই এভাবে বই বিক্রি হয়ে থাকে। ৭ থেকে ৮ টাকা দরে এই বইগুলো কিনে থাকেন তারা। তবে এগুলো বিক্রয় করা যে অবৈধ তা জানেন না পুরাতন বই ক্রেতা স্বল্পশিক্ষিত ওই লোকেরা।

এ ব্যাপারে শিক্ষা অফিসার আলমগীর হোসেন জানান, বিষয়টি তার জানা নেই, তবে বিষয়টি তিনি খতিয়ে দেখবেন।

এ ব্যাপারে মুঠোফোনে উপজেলা নির্বাহী অফিসার আব্দুল মালেক বলেন, সরকারি নতুন কিংবা পুরাতন বই কোনটাই বিক্রি করে দেয়ার সুযোগ নেই। যদি কেউ এ কাজ করে থাকে তবে তা তদন্ত করে দেখা হবে এবং দোষি প্রমাণিত হলে তার বিরুদ্ধে কঠোর আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

(জাহাঙ্গীর আলম, ঘাটাইলডটকম)/-

125total visits,2visits today