মির্জাপুরে বন্যায় প্লাবিত হচ্ছে ঘরবাড়ি, পানিবন্দি হাজারো মানুষ

টাঙ্গাইলের মির্জাপুর উপজেলার বিভিন্ন এলাকা প্লাবিত হচ্ছে। তলিয়ে যাচ্ছে বাড়িঘর। পানিবন্দি হয়ে পড়েছে হাজারো পরিবার। এদিকে বন্যা ও নদী ভাঙন আতঙ্কে আছেন নদী পারের মানুষ।

সরজমিনে দেখা যায়, অবিরাম ভারী বর্ষণ ও নদ-নদীর পানি বৃদ্ধির সাথে সাথে নতুনসব এলাকা প্লাবিত হচ্ছে টাঙ্গাইলের মির্জাপুর উপজেলায়।

মির্জাপুর পৌর শহরের কয়েকটি ওয়ার্ড বর্তমানে পানির নিচে। এতে করে বাড়িঘরের সাথে রাস্তাঘাট প্লাবিত হওয়ায় প্রধান বাজারে আসার বেশ কয়েকটি সড়ক দিয়ে যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়েছে।

উপজেলার ফতেপুর ইউনিয়নে নদী ভাঙনের কবলে পড়েছে শতাধিক পরিবার। ইতোমধ্যে বেশকিছু বাড়িঘর নদীগর্ভে বিলীন হয়ে গেছে।

ইউনিয়নের প্রধানসব রাস্তা প্লাবিত হয়েছে। এতে করে দুর্ভোগে পড়েছে ওই ইউনিয়নের মানুষ।

এছাড়াও বহুরিয়া মহেড়া, ভাদগ্রাম, লতিফপুর, আনাইতারা, বানাইল, ভাওড়া, জামুর্কী, উয়ার্শী, তরফপুর ইউনিয়নে বন্যার পানি বৃদ্ধি পেয়েছে।

উপজেলার ১১টি ইউনিয়ন ও ১টি পৌরসভার প্রায় হাজার হাজার পরিবার বন্যার কবলে পড়ে ক্ষতিগ্রস্থ হয়েছে এবং পানিবন্দি হয়ে পড়েছে।

এদিকে বানভাসী মানুষের জন্য বিভিন্ন সহায়তার কথা জানিয়েছেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. আবদুল মালেক।

তিনি বলেন, ইতোমধ্যে আমাদের ত্রাণ সহায়তা বন্যা কবলিত এলাকা ফতেপুর, মহেড়া, ভাদগ্রাম, তরফপুর, লতিফপুর, বহুরিয়া ইউনিয়ন ও পৌর এলাকায় ২৭ টন চাল বিতরণের কার্যক্রম শুরু হয়েছে।

পর্যাপ্ত ত্রাণ ও শুকনা খাবার আছে উল্লেখ করে বলেন, পানিবন্দি মানুষের তালিকা করা হচ্ছে, এছাড়াও আমাদের হট লাইন নাম্বার-০১৩০০৭৪৮২৮৭ চালু আছে। সেখানে কেউ যোগাযোগ করলে তাদের সহায়তা করা হবে।

(রাইসুল ইসলাম লিটন, ঘাটাইল ডট কম)/-