মধুপুরে গোবরের মধ্যে কুরআন ফেলে অবমাননায় রাস্তা অবরোধ

টাঙ্গাইল জেলার মধুপুর উপজেলার জলছত্র বাজার সংলগ্ন এলাকায় অজ্ঞাত ব্যক্তি বা ব্যক্তিরা রহিমা নামক এক বৃদ্ধার বাসা থেকে তিনটি কুরআন শরীফ গোবরের মধ্যে ফেলে দেয়।

শুক্রবার (২৭ শে নভেম্বর) সকাল সাড়ে ১০ টা থেকে ১২ টা পর্যন্ত পবিত্র কুরআন শরীফ অবমাননার প্রতিবাদে টাঙ্গাইল-ময়মনসিংহ মহাসড়কের মধুপুর জলছত্র বাজারে প্রায় ঘণ্টাখানিক সময় অবরুদ্ধ করে রেখেছিল স্থানীয় জনগণ ও মুসলিমসমাজ।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, “শুক্রবার ভোর সকালে গোবরের মধ্যে রহিমার কুরআন শরীফগুলো পাওয়া যায়। ওই গোবরের পাশে বৃহস্পতিবার সন্ধ্যা অবধি রাত পর্যন্ত নেশাখোর তন্ময়কে এলাকাবাসী নেশাগ্রস্থ অবস্থায় দেখতে পেলে সেখান থেকে তাকে বাসায় পৌছে দেয়।”

এক্ষেত্রে প্রাথমিকভাবে সন্দেহপূর্বক ধারণা করা হচ্ছে, “অশোক বাবুর ছেলে তন্ময় পবিত্র কোরআন শরীফ গোবরে ফেলে ইসলামবিরোধী ধর্মবিরোধী একটি ন্যাক্কারজনক কাজ করেছেন।”

বেরীবাইদ ইউনিয়নের চেয়ারম্যান জুলহাস উদ্দিন ও অরণখোলা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আব্দুর রহিম বলেন, “ঘটনাটি খুবই ন্যাক্কারজনক। এটি মেনে নিতে পারছি না। এক্ষেত্রে প্রকৃতদোষীকে খুজে বের করে কঠিন শাস্তি প্রদান করা হোক এবং কোনো নির্দোষী ব্যক্তিকে যেন শাস্তি প্রদান না করা হয় সেদিকেও লক্ষ্য রাখা জরুরি।”

(স্টাফ রিপোর্টার, ঘাটাইল ডট কম)/-

Print Friendly, PDF & Email