ভুঞাপুরে মাদকাসক্ত আ’লীগ নেতার বিরুদ্ধে স্ত্রীকে নির্যাতনে মেয়ের অভিযোগ

টাঙ্গাইলের ভূঞাপুর উপজেলার নিকরাইল ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মাসুদুল হক মাসুদের বিরুদ্ধে স্ত্রীকে নির্যাতনের অভিযোগ উঠেছে। এ ঘটনায় বুধবার (১ জানুয়ারি) মাসুদের মেয়ে ভূঞাপুর থানায় বাবাকে আসামি করে অভিযোগ দায়ের করেছেন।

নির্যাতিতা মাসুদের স্ত্রী জানান, হিন্দু ধর্মাবলম্বী হয়েও মাসুদকে বিয়ে করি। মাসুদের সাথে প্রেমের সম্পর্ক থাকায় গত ২০ বছর পূর্বে ইসলাম ধর্ম গ্রহণ করে বাড়ি থেকে পালিয়ে গিয়ে বিয়ে করি। বিয়ের পর বেশ ভালোই ছিলো তাদের সংসার। তাদের একটি মাত্র মেয়ে রয়েছে। ইতিমধ্যে মেয়েটির বিয়েও হয়েছে।

তিনি জানান, গত দুই তিন বছর যাবত মাসুদ মাদকসহ নানা অনৈতিক কাজের সাথে জড়িয়ে পড়েছে। মাদক সেবন করে গভীর রাতে বাড়ি ফিরে বাড়ির আসবাবপত্র ভাংচুরসহ আমাকে মারধর করতো। আস্তে আস্তে তার মাদক সেবনের পরিমাণ বেড়ে যায় এবং নিয়মিত সে এখন বাড়িতেই মাদক সেবন করে।

তিনি আরও জানান, বুধবার (০১ জানুয়ারি) ভোরে সে নেশাগ্রস্থ অবস্থায় বাড়ি ফিরে আসে। এর আগে দুই দিন সে কোথায় ছিলো জানতে চাওয়ায় এলোপাতাড়িভাবে মারপিট করতে থাকে। একপর্যায়ে গলা টিপে হত্যার চেষ্টা করে মাসুদ। এ সময় প্রতিবেশীরা এগিয়ে এসে উদ্ধার করে। পরে চিকিৎসার জন্য টাঙ্গাইল জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি হই।

এদিকে নির্যাতিতার মেয়ে মন্নি আক্তার (১৮) জানান, দীর্ঘদিন যাবত তার বাবা তার মাকে নানাভাবে অত্যাচার করে আসছে। সে নেশা করে প্রতিদিন গভীর রাতে বাড়ি ফিরে এবং মাঝে মাঝেই রাতে পতিতা নিয়ে এসে ফুর্তি করে। প্রতিবাদ করলে মাকেসহ আমাকেও মারধর করে।

মাসুদুল হক মাসুদ জানান, পারিবারিক কারণে স্ত্রীর সাথে ভুল বোঝাবুঝি হয়েছে। তার স্ত্রী টিউবওয়েলে কাজ করার সময় পড়ে ব্যথা পেয়েছে।

টাঙ্গাইল জেনারেল হাসপাতালের কর্তব্যরত চিকিৎসক ডা. সজিব হোসেন জানান, বুধবার সকালে নির্যাতিতা মুমূর্ষু অবস্থায় ভর্তি হয়েছেন। বর্তমানে শঙ্কামুক্ত রয়েছেন।

ভূঞাপুর থানার অফিসার ইনচার্জ রাশিদুল ইসলাম জানান, এ ব্যাপারে নির্যাতিতার মেয়ে বাদী হয়ে থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করেছে। তদন্তপুর্বক আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

(ভুঞাপুর সংবাদদাতা, ঘাটাইলডটকম)/-