‘নারী নির্যাতন প্রতিরোধে সমাজের সব শ্রেণীর মানুষের সম্মিলিত প্রয়াস প্রয়োজন’

টাঙ্গাইলে আন্তর্জাতিক নারী নির্যাতন প্রতিরোধ পক্ষ (২৫ নভেম্বর-১০ ডিসেম্বর) ও বিশ্ব মানবাধিকার দিবস উপলক্ষে সংবাদ সম্মেলনে নারী নেত্রীরা বলেছেন, নারী নির্যাতন প্রতিরোধে সমাজের সব শ্রেণির মানুষের সম্মিলিত প্রয়াস প্রয়োজন। সব শ্রেণির নারী-পুরুষ সচেতন হলে সমাজে নারী নির্যাতনের মাত্রা অনেকাংশে কমে যাবে।

টাঙ্গাইল প্রেসক্লাবের বঙ্গবন্ধু অডেটোরিয়ামে সোমবার(২৫ নভেম্বর) দুপুরে বাংলাদেশ মহিলা পরিষদ টাঙ্গাইল জেলা শাখা আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে জেলা শাখার সাবেক সভাপতি বেগম শামছুন নাহারের সভাপতিত্বে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন, টাঙ্গাইল জেলা মহিলা পরিষদের সাধারণ সম্পাদক শাহনাজ খান নার্গিস।

তিনি বলেন, বাংলাদেশ মহিলা পরিষদ নারীর মানবাধিকার প্রতিষ্ঠা এবং নারী ও কন্যাশিশু নির্যাতন বিরোধী সংস্কৃতি গড়ে তোলার উদ্দেশে সারা বিশ্বের ন্যায় প্রতি বছর ২৫ নভেম্বর থেকে ১০ডিসেম্বর পর্যন্ত আন্তর্জাতিক নারী নির্যাতন প্রতিরোধ পক্ষ ও বিশ্ব মানবাধিকার দিবস পালন করে থাকে। এবারের প্রতিপাদ্য হচ্ছে ‘ধর্ষণ ও যৌন নিপীড়ন মানবতার বিরুদ্ধে অপরাধ, আসুন এ অপরাধের বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়াই’।

মহিলা পরিষদ প্রতিবছর কেন্দ্র থেকে জেলা ও তৃণমূল শাখা পর্যন্ত বিভিন্ন কর্মসূচি পালন করছে। এই নারী নির্যাতন প্রতিরোধ পক্ষে মহিলা পরিষদ নানা কর্মসূচি গ্রহন ও আয়োজনের মধ্য দিয়ে সরকারের কার্যক্রমের পর্যালোচনা ও করণীয় নির্ধারণ করতে সুপারিশ প্রদান, সমমনা নারী ও মানবাধিকার সংগঠনকে সাথে নিয়ে সমাজের অসচেতন নাগরিকদের সচেতন করে। পরিবার, সমাজ, ও রাষ্ট্রে নারী নির্যাতন নির্মূলে কাজ করছে।

তিনি বলেন, বর্তমান সময়ে নারীর প্রতি সহিংসতা বিশেষ করে শিশু ও তরুণী নারীদের যৌন হয়রানি, ধর্ষণ, গণধর্ষণ, ধর্ষণের পর হত্যার মত ঘটনা ঘটছে। ছাত্র, তরুণ ও বয়স্কদের কেউ কেউ এসব ঘটনা ঘটালেও প্রতিবাদ ও প্রতিরোধ বিষয়ে অনেক ক্ষেত্রে সকলস্তরের মানুষের উদসীনতা লক্ষ করা যায়। মধ্যপ্রাচ্যের দেশগুলোসহ বিভিন্ন দেশে অভিবাসী নারী শ্রমিকরা যৌন নির্যাতনের শিকার হয়ে দেশে ফিরে আসছে।

এ সময় জেলা মহিলা পরিষদের পক্ষ থেকে আন্তর্জাতিক নারী নির্যাতন প্রতিরোধ পক্ষ উদযাপন উপলক্ষে সুস্পষ্ট ১৫ দফা তুলে ধরা হয়। সংবাদ সম্মেলনে বাংলাদেশ মহিলা পরিষদ টাঙ্গাইল জেলা শাখার সহ-সাধারণ সম্পাদক মাহমুদা খাতুন, আন্দোলন সম্পাদক ডলি সিদ্দিকী, প্রোগ্রাম এক্সিকিউটিভ সাকেরা খাতুন শান্তা প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

(টাঙ্গাইল সংবাদদাতা, ঘাটাইলডটকম)/-