নাগরপুরে যুবলীগ নেতার বিরুদ্ধে স্কুলছাত্রী ধর্ষণের অভিযোগ

টাঙ্গাইলের নাগরপুরে এক যুবলীগ নেতার বিরুদ্ধে অষ্টম শ্রেণির এক ছাত্রীকে হাত-পা বেঁধে ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে। উপজেলার দপ্তিয়র ইউনিয়নের জালাই গ্রামে গত শনিবার (২১ এপ্রিল) রাতে এ ঘটনা ঘটে। ধর্ষিতা ওই ছাত্রী (১৩) স্থানীয় একটি স্কুলের অষ্টম শ্রেণির ছাত্রী।

ধর্ষক যুবলীগ নেতা সাজ্জাত হোসেন (৩২) শাহাদৎ হোসেনের ছেলে। তিনি দপ্তিয়র ইউনিয়ন যুবলীগের যুগ্ম-আহ্বায়ক।

এ ব্যাপারে সোমবার ধর্ষিতার পিতা নাগরপুর থানায় একটি লিখিত অভিযোগ করেছেন।

জানা যায়, উপজেলার দপ্তিয়র ইউনিয়নের জালাই গ্রামের শাহাদৎ হোসেনের ছেলে (যুবলীগ নেতা) সাজ্জাত হোসেন (৩২) প্রায় ৬ মাস ধরে প্রেমের সর্ম্পক গড়ে তোলেন ওই ছাত্রীর সাথে। এরই ধারাবাহিকতায় গত শনিবার রাতে মোবাইল ফোনে ওই ছাত্রীকে বাইরে ডেকে নিয়ে একটি বাঁশবাগানে হাত-পা বেঁধে ধর্ষণ করেন। পরে ওই ছাত্রীকে সেখানে ফেলে রেখে পালিয়ে যান তিনি। ধর্ষিতার স্বজনরা অনেক খোঁজাখুঁজি করে ওই বাঁশবাগান থেকে তাকে উদ্ধার করে।

ঘটনাটি জানাজানি হওয়ার পর একাধিকবার সালিশি বৈঠক হয়। কিন্তু বিষয়টি অমীমাংসিত থাকায় সোমবার ধর্ষিতার পিতা নাগরপুর থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন।

নাগরপুর থানার ওসি মাইন উদ্দিন বলেন, এ বিষয়ে একটি অভিযোগ পেয়েছি।

এ ব্যাপারে যুবলীগ নেতা সাজ্জাত হোসেনের সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, আমরা বিরুদ্ধে আনা সকল অভিযোগ মিথ্যা ও ভিত্তিহীন। আমি এ ধরনের কোনো কাজ করিনি।

(নাগরপুর সংবাদদাতা, ঘাটাইল.কম)/-