নাগরপুরে নির্মানাধীণ মসজিদের বাউন্ডারী দেয়াল ভেঙ্গে দিল জমিদাতার সন্তানরা

টাঙ্গাইলের নাগরপুরে নির্মানাধীণ মসজিদের বাউন্ডারীর দেয়াল ভেঙ্গে দিয়েছে মসজিদের জন্য জমিদাণকারীর সন্তানরা। সোমবার (০৮ জুলাই) দুপুরে উপজেলার ঘিওরকোল দক্ষিন পাড়া জামে মসজিদে এ ঘটনা ঘটে। এ ঘটনার পর নাগরপুর থানা পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে।

এলাকাবাসী সূত্রে জানা যায়, নাগরপুরের মরহুম আকবর কাজীর স্ত্রী সামছুন্নাহার ও তার পুত্র আব্দুলাহ হেল বারী দুজন মিলে ঘিওরকোল দক্ষিন পাড়া জামে মসজিদের নামে ৬ শতাংশ জমি দলিল করে দেয়। সেই জমিতে মসজিদের ভবনের নির্মাণ কাজ প্রায় শেষের দিকে, এখন চলছে চারপাশে দেয়াল নির্মাণের কাজ। বাউন্ডারী ওয়াল নির্মান কাজ চলা কালে সোমবার দুপুরে জমিদাতার তিন ছেলে বাকী, কাফী ও আসলাম কোন কথাবার্তা ছাড়াই শাবল ও হামারী দিয়ে মসজিদের বাইন্ডারী ওয়াল ভেঙ্গে ফেলে । এ নিয়ে এলাকায় ধর্মপ্রাণ মুসলমানদের ভিতর ক্ষোভের সৃষ্টি হয়েছে।

ঘিওরকোল দক্ষিন পাড়া জামে মসজিদ কমিটির সাধারন সম্পাদক মো. আব্দুর রাজ্জাক মিয়া বলেন, সামছুন্নাহার ও তার পুত্র আব্দুলাহ হেল বারী দুজন মিলে ঘিওরকোল দক্ষিন পাড়া জামে মসজিদের নামে ৬ শতাংশ জমি দলিল করে দেন। যার খতিয়ান নং ২৪১, পুরাতন দাগ নং ১০১, হাল দাগ ৪১৮, ডি পি ৩৫০ , ৭৮ কাতে মোট ৬ শতাংশ। দানকৃত ৬ শতাংশ জমির মধ্যে চার দিকে বাউন্ডারী ওয়াল ও মসজিদের ভবন নির্মাণ করি। এ সময় বাউন্ডারী ওয়ালের কাজ চলা কালে সোমবার দুপুরে বাকী, কাফী ও আসলাম কোন কথাবার্তা ছাড়াই শাবল ও হামারী দিয়ে ভেঙ্গে ফেলে মসজিদের বাইন্ডারী ওয়াল।

বাউন্ডারী ওয়াল ভাঙ্গার কথা স্বীকার করে আব্দুল্লাহ হেল কাফী বলেন, আমার জমি উপর দিয়ে মসজিদ কর্তৃপক্ষ জোর করে বাউন্ডারী ওয়াল নির্মাণ করছিল। খবর পেয়ে আমি আমার ভাইদের সঙ্গে নিয়ে মসজিদের বাউন্ডারী ওয়াল ভেঙ্গে দিয়েছি।

নাগরপুর থানার এস আই আব্দুল কুদ্দুস বলেন, মসজিদের বাউন্ডারী ওয়াল ভাঙ্গার খবর পেয়ে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছি। মসজিদের বাউন্ডারী ওয়ালের কাজ বন্ধ রাখা হয়েছে। মসজিদ ভবনের অন্যান্য কাজ চলবে। জমির সীমানা নিয়ে কোন জটিলতা থাকলে দুই পক্ষকে সাথে নিয়ে তা সমাধান করা হবে।

(নাগরপুর সংবাদদাতা, ঘাটাইলডটকম)/-