নাগরপুরে দুর্ঘটনায় অন্তঃসত্ত্বার মর্মান্তিক মৃত্যু

টাঙ্গাইলের নাগরপুরে এক প্রাইভেট ক্লিনিকে চিকিৎসা নিতে এসে শুক্রবার (৩০ মার্চ) সকালে রিকশার সাথে গলায় ওড়না পেঁচিয়ে ব্রিজ থেকে খাদের ৫০ ফুট নিচে পড়ে রাহেলা বেগম (৪৫) নামে এক অন্তঃসত্ত্বার মর্মান্তিক মৃত্যু হয়েছে। উপজেলা সদরে উপজেলা কমপ্লেক্সের সামনে বেইলি ব্রিজে এ দুর্ঘটনা ঘটে।

অন্তঃসত্ত্বা রাহেলা বেগম পাশের সিরাজগঞ্জের চৌহালি উপজেলার কুরকি গ্রামের বেলায়েত সিকদারের স্ত্রী।

নাগরপুর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো. মাইন উদ্দিন দুর্ঘটনায় অন্তঃসত্ত্বার মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, অন্তঃসত্ত্বা গৃহবধূ রাহেলা বেগম সকাল সাড়ে দশটার দিকে আল্ট্রাসনোগ্রাম করার জন্য নাগরপুর পদ্মা ক্লিনিকে আসেন। সেখানে সিরিয়াল লিখে বাজারের অদূরে মীরনগর গ্রামে তার এক আত্মীয়ের বাড়ির উদ্দেশে রিকশাযোগে রওয়ানা দেন। রিকশাটি উপজেলা কমপ্লেক্স সংলগ্ন বেইলি ব্রিজের ওপর ওঠামাত্র তার গলার ওড়নাটি রিকশার চাকায় পেঁচিয়ে যায়। এ সময় ওই গৃহবধূ রিকশাটি থামাতে বলে। চালক আচমকা রিকশাটি নিয়ন্ত্রণ করলে ভারসাম্য রক্ষা করতে না পারায় গৃহবধূ ব্রিজের ওপর থেকে কমপক্ষে ৫০ফুট নিচে খাদে পড়ে যায়। এ সময় স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত বলে ঘোষণা করেন।

নাগরপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের আবাসিক মেডিকেল অফিসার (আরএমও) ডা. মো. রোকনুজ্জামান খান জানান, হাসপাতালে পৌঁছার আগেই ওই অন্তঃসত্ত্বা গৃহবধূর মৃত্যু হয়।

(দৃষ্টি, ঘাটাইল.কম)/-