ধনবাড়ীতে ইউপি চেয়ারম্যানের বিচারের দাবিতে মানববন্ধন

টাঙ্গাইলের ধনবাড়ী উপজেলায় বানিয়াজান ইউপি চেয়ারম্যান সামছুল আলম তালুকদার বাবুলের হাতে বানিয়াজান সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক রফিকুল ইসলাম শারীরিকভাবে লাঞ্ছিত হওয়ার প্রতিবাদ ও ইউপি চেয়ারম্যানের শাস্তির দাবিতে উপজেলা নির্বাহী অফিসারের কাছে স্মারকলিপি দিয়েছে তার সহকর্মীরা। বৃহস্পতিবার (৭ ফেব্রুয়ারি) ওই শিক্ষকের সহকর্মী ও স্থানীয়রা বিক্ষোভ মিছিল নিয়ে উপজেলা নির্বাহী অফিসারের কাছে স্মারকলিপি দেয়।

এরআগে তারা ধনবাড়ী উপজেলা নির্বাহী অফিসারের কার্যালয়ের সামনে ন্যাক্কারজনক এ ঘটনার তীব্র নিন্দা এবং সুষ্ঠু বিচার দাবি করে মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করে।

মানববন্ধন চলাকালে ওই শিক্ষকের সহকর্মী সহকারী শিক্ষক হাবিবুর রহমান, আনোয়ারা বেগম ও দেলোয়ারা বেগম সহ বক্তারা বলেন, চেয়ারম্যান সামছুল আলম তালুকদার বাবুল এর আগেও বানিয়াজান বাসস্ট্যান্ড এলাকার ঘোনাপাড়া গ্রামের রফিক মাষ্টারের প্রাবাসী ছোট ভাইয়ের স্ত্রীর সাথে অবৈধ মেলামেশা করার সময় স্থানীয় জনতার হাতে আটক হন। পরে চেয়ারম্যান বাবুলকে ধনবাড়ী থানা পুলিশে সোপর্দ করা হয়। তার কিছু দিন পরেই বানিয়াজান খানপুর গ্রামের এক গৃহবধূকে কু-প্রস্তাব দেন ইউপি চেয়ারম্যান। কু-প্রস্তাবে রাজি না হওয়ায় ওই গৃহবধূকে মিথ্যা অপবাদ দিয়ে ইউনিয়ন পরিষদে নিয়ে মারপিট করেন।

স্মারকলিপিতে উল্লেখ করা হয়, বানিয়াজান সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের দপ্তরী কাম নৈশ প্রহরী নুরুল ইসলামের চুক্তিভিত্তিক নিয়োগবিধির শেষ ধাপ গত ৭ জানুয়ারি অতিক্রম হয়েছে। এ সময়ে বানিয়াজান ইউপি চেয়ারম্যান সামছুল আলম তালুকদার বাবুলের ভাগ্নে চৌধুরী গোলাম মুক্তাদির ওরফে তানজিল বিদ্যালয়ের নির্মাণ কাজের বিদ্যুৎ লাইন থেকে অবৈধ সংযোগ নিয়ে নলকূপে পানি তুলতেন। নৈশ প্রহরী কাম দপ্তরী নুরুল ইসলাম বিদ্যালয় কর্তৃপক্ষের অগোচরে বন্ধু তানজিল চৌধুরীকে সহযোগিতা করতেন। এ নিয়ে উর্ধ্বতন কর্তপক্ষের কাছে লিখিত অভিযোগ দেয়া হয়েছে। পূর্বাপর এহেন নানা বিতর্কিত ও নেতিবাচক কাজে বিদ্যালয়ের এসএমসিসহ সংশ্লিষ্টরা নুরুল ইসলামের চাকুরি (নিয়োগবিধি অনুযায়ী) নবায়নের সুপারিশ করেনি। এমনকি স্বপদে থাকতে নুরুল ইসলাম বিধিমতে আবেদনও করেননি। ফলে গত ৩১ জানুয়ারি সংশ্লিষ্টরা মিটিংএ তাকে নবায়নের সুপারিশ থেকে বিরত থাকেন।

এ নিয়ে সৃষ্ট জটিলতায় নুরুল ইসলামের পক্ষে বন্ধু তানজিল চৌধুরীর মামা চেয়ারম্যান সামছুল আলম তালুকদার বাবুল গত ২ ফেব্রুয়ারি প্রধান শিক্ষক রফিকুল ইসলামকে পরিষদে ডেকে নেন। তিনি নুরুল ইসলামের চাকুরি নবয়ানের সুপারিশের ব্যবস্থা করতে বললে প্রধান শিক্ষক বিধিবিধানের বিষয় উল্লেখ করেন। এতে ক্ষুব্ধ হয়ে ইউপি চেয়ারম্যান সামছুল তালুকদার বাবুল উপস্থিত লোকজনের সামনে প্রধান শিক্ষককে মারপিট করেন।

ধনবাড়ী উপজেলা নির্বাহী অফিসার আরিফা সিদ্দিকা স্মারকলিপি পাওয়ার কথা স্বীকার করে বলেন, নিয়মানুযায়ী প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে।

(ধনবাড়ী সংবাদদাতা, ঘাটাইলডটকম)/-

180total visits,2visits today