ঢাকায় সমাহিত শিশুর মাথা বিচ্ছিন্ন করে তন্ত্র সাধনা, আটক ৫

অমাবস্যার রাত ছিল গত সোমবার (৪ ফেব্রুয়ারি)। ওই রাতে এক লোমহর্ষক ঘটনা ঘটে গেছে ঢাকার পোস্তগোলা শ্মশান ঘাটে। সমাহিত মৃত শিশুকে মাটি খুঁড়ে তুলে তার মস্তক বিচ্ছিন্ন করে এক দল কিশোর। তারপর সে মস্তক সামনে রেখে বসে যায় তন্ত্র সাধনায়। পরে স্থানীয়দের কাছ থেকে খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে পাঁচ কিশোরকে গ্রেপ্তার করে।

মঙ্গলবার বিকেলে মৃত শিশুটিকে আবারও সমাহিত করা হয়।

শ্যামপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মিজানুর রহমান বলেন, ওই পাঁচ কিশোরকে আটক করা হয়েছে। ওই ঘটনায় শ্মশানের মোহর পলাশ চক্রবর্তী বাদী হয়ে মামলা করেছেন।

মামলায় পাঁচজনকে গ্রেপ্তার দেখিয়ে আজ বুধবার তাদের আদালতে পাঠানো হবে।

জাতীয় পোস্তগোলা শ্মশান ঘাট পরিচালনা কমিটির সাংগঠনিক সম্পাদক বি কে সমীর জানান, সোমবার গ্রিন রোডের একটি হাসপাতালে ঠাঁটারীবাজার এলাকার এক হিন্দু দম্পতির ছেলে সন্তান জন্মগ্রহণ করে। জন্মের আধঘণ্টা পরই ওই নবজাতক হাসপাতালেই মারা যায়।

তিনি আরো জানান, সোমবার বিকেলে ওই নবজাতককে হিন্দু ধর্মীয় রীতি অনুযায়ী পোস্তগোলা শ্মশানে সমাহিত করা হয়। রাত ২টার দিকে ১৪-১৫ বছরের পাঁচ কিশোর মাটি খুঁড়ে ওই শিশুর লাশ উত্তোলন করে।

এরপর তারা মৃত শিশুটির মস্তিষ্ক বিচ্ছিন্ন করে মাথাটি সামনে রেখে তন্ত্র সাধনা শুরু করে। পরে পুলিশে খবর দিলে পুলিশ গিয়ে তাদের আটক করে।

(অনলাইন ডেস্ক, ঘাটাইলডটকম)/-