টাঙ্গাইলে ১২ উপজেলার ৫ লাখ শিশুকে শনিবার খাওয়ানো হবে ভিটামিন ‘এ’ প্লাস ক্যাপসুল

জাতীয় ‘ভিটামিন এ প্লাস’ ক্যাম্পেইনে আগামী শনিবার (৯ ফেব্রুয়ারি) টাঙ্গাইল জেলায় ৫ লাখ ১৪ হাজার শিশুকে এ ক্যাপসুল খাওয়ানো হবে।

এর মধ্যে ৬ থেকে ১১ মাস বয়সী ৪৫ হাজার শিশুকে একটি করে নীল রংয়ের ও ১২ থেকে ৫৯ মাস বয়সী ৪ লাখ ৬০ হাজার শিশুকে একটি করে লাল রংয়ের ভিটামিন ‘এ’ ক্যাপসুল খাওয়ানোর লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করা হয়েছে।

সেই সঙ্গে ভিটামিন এ ক্যাপসুল সম্পর্কে স্বাস্থ্য বার্তা প্রচার করা হবে। ভিটামিন ‘‘এ’’ ক্যাপসুলে কোনো পার্শ্ব প্রতিক্রিয়া নেই। শিশুদের ভরা পেটে এটি খাওয়াতে হবে।

দেশ থেকে অপুষ্টিজনিত অন্ধত্ব নির্মূল এবং অপুষ্টিজনিত শিশু মৃত্যু প্রতিরোধ করার লক্ষ্যে সারাদেশের ন্যায় টাঙ্গাইল জেলার ১২টি উপজেলায় পালন করা হবে জাতীয় ভিটামিন এ প্লাস ক্যাম্পেইন।

এ কর্মসূচি বাস্তবায়নের লক্ষ্যে ১০ হাজার ৭৪১জন লোক কাজ করবে। এর মধ্যে রয়েছে ৫৫৩জন স্বাস্থ্য সহকারি, ৫৫৬জন পরিবার কল্যাণ সহকারি, ৪১৯জন কমিউনিটি হেলথ্ কেয়ার প্রোভাইডার (সিএইচসিপি), ২৬জন পৌর কর্মী, ৯০৪৮জন ভলান্টিয়ার (প্রতি কেন্দ্রে ৩জন), ১৩৯জন অতিরিক্ত ভলান্টিয়ার (প্রতি ইউনিয়নে ১জন ও প্রতি উপজেলায় ৩জন) করে।

এছাড়াও জেলায় স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা বিভাগের বিভিন্ন পর্যায়ের ৫১৪জন তদারককারী ক্যাম্পেইনের কাজ পর্যবেক্ষণ করবেন।

বুধবার টাঙ্গাইল সিভিল সার্জনের সভা কক্ষে জাতীয় ভিটামিন ‘‘এ’’ প্লাস ক্যাম্পেইন (২য় রাউন্ড) উদযাপন উপলক্ষে জেলা পর্যায়ের সংবাদকর্মীদের সাথে ওরিয়েন্টেশন সভায় এ তথ্য জানানো হয়।

সিভিল সার্জন অফিসের মেডিক্যাল অফিসার ডাঃ মোহাম্মদ ইব্রাহীম-এর সভাপতিত্বে আলোচনায় অংশ নেন সিনিয়র স্বাস্থ্য শিক্ষা কর্মকর্তা মঞ্জুর হাসান তালুকদার, জেলা ইপিআই সুপারেনটেন্ড্যান্ট মোঃ সোলায়মান ও পরিসংখ্যানবিদ মো. কেরামত আলী।

(টাঙ্গাইল সংবাদদাতা, ঘাটাইলডটকম)/-