টাঙ্গাইলে লিফলেট বিতরণ করলো বিএনপি

বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবিতে কেন্দ্রীয় কর্মসূচির অংশ হিসেবে আজ রবিবার সকাল ১১টায় ভিক্টোরিয়া রোডে জেলা বিএনপি কার্যালয় হতে লিফলেট বিতরণ কর্মসুচীর উদ্বোধন করেন টাংগাইল জেলা বিএনপির সভাপতি কৃষিবিদ সামছুল আলম তোফা এবং সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট ফরহাদ ইকবাল।

আজ ভিক্টোরিয়া রোড থেকে শুরু করে পুরাতন আদালত রোড হয়ে নিরালা মোড় হয়ে পুরাতন বাসস্ট্যান্ড পর্যস্ত লিফলেট বিতরণ করা হয়। লিফলেট বিতরণ কর্মসূচিতে জেলা, পৌর ও উপজেলা বিএনপিসহ জেলা ছাত্রদল, যুবদল, শ্রমিক দল, সেচ্ছাসেবক দল, মহিলা দল, তাতী দল, কৃষক দল ও জাসাসের নেতাকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।

‘বিএনপির প্রচার সম্পাদক শহীদ উদ্দিন চৌধুরী এ্যানি কর্তৃক প্রকাশিত’ প্রথম লিফলেটের শিরোনাম দেয়া হয়েছে ‘প্রতিহিংসার বিচারে বন্দি, গণতন্ত্র, স্বাধীনতা–সার্বভৌমত্ব ও জনগণের আস্থার প্রতীক দেশনেত্রী খালেদা জিয়ার দেশবাসীর প্রতি আহ্বান’। আর দ্বিতীয় লিফলেটের শিরোনাম ‘শেখ হাসিনার ১৫ হাজার কোটি টাকার দুর্নীতির মামলা প্রত্যাহার/খারিজ বনাম উদ্দেশ্যপ্রণোদিত ভিত্তিহীন মামলায় খালেদা জিয়ার কারাদণ্ড’।

প্রথম লিফলেট লিফলেটে মোট নয়টি পয়েন্ট তুলে ধরা হয়েছে। এদিকে দ্বিতীয় লিফলেটটিতে মূলত দুর্নীতি মামলায় কারাদণ্ডপ্রাপ্ত খালেদা জিয়াকে ‘নির্দোষ’ প্রমাণের চেষ্টা করা হয়েছে। আর দুর্নীতির অভিযোগ তোলা হয়েছে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার বিরুদ্ধে।

খালেদা জিয়ার উদ্ধৃতি দিয়ে এতে বলা হয়েছে, ‘দেশের সব প্রথা-প্রতিষ্ঠানকে ধ্বংস করা হয়েছে। কথা বলার অধিকার নেই, গণতন্ত্র নেই, মানুষের ভোটের অধিকার নেই। ১০ টাকা দরে চাল খাওয়ানোর ওয়াদাকে ভাঁওতাবাজি প্রমাণ করে চালের দাম এখন ৭০ টাকা। তার সঙ্গে পাল্লা দিয়ে বেড়েছে নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্যের দাম। মানুষের কাজের সংস্থান নেই। চাকরির খোঁজে লুকিয়ে বিদেশ যাওয়ার পথে আমাদের তরুণরা সাগরে ডুবে মরছে।’

লিফলেটে আরো রয়েছে, ‘উন্নয়ন প্রকল্পের ব্যয় পাঁচ-দশগুণ বাড়িয়ে এরা লুটের রাজত্ব কায়েম করেছে। দুর্নীতি এখন লাগামছাড়া। দেশে ন্যায়বিচার নেই, ইনসাফ নেই, জনগণের নিরাপত্তা নেই। নারী ও শিশুরা পাশবিক নির্যাতনের শিকার।’

এতে বলা হয়েছে, ‘দেশে এখন সত্যিকারের সংসদ নেই। তথাকথিত সংসদে নেই প্রকৃত বিরোধী দল। শাসকদের কোথাও কোনো জবাবদিহিতা নেই। অনেক মানুষ গুম-খুনের শিকার হয়েছেন। দুঃসহ বন্দি জীবন কাটাচ্ছেন অগণিত নেতাকর্মী ও ভিন্নমতের মানুষরা। অসংখ্য মানুষ হামলা-মামলা-হুলিয়া নির্যাতনের শিকার হচ্ছেন।’

বাংলাদেশের মানুষ এই দুঃসহ অবস্থা থেকে মুক্তি চায় উল্লেখ করে খালেদা জিয়ার আহ্বানের লিফলেটে বলা হয়েছে, ‘আমাকে আপনাদের কাছ থেকে বিচ্ছিন্ন করার চেষ্টা হলেও বিশ্বাস করবেন আমি আপনাদের সঙ্গেই আছি। আপনারা গণতন্ত্রের জন্য, অধিকার প্রতিষ্ঠার জন্য, একটা সুষ্ঠু নির্বাচনের জন্য, জনগণের সরকার কায়েমের জন্য শান্তিপূর্ণ ও নিয়মতান্ত্রিক আন্দোলন চালিয়ে যাবেন। আমি অন্যায়ের কাছে মাথানত করবো না।’

(টাঙ্গাইল সংবাদদাতা, ঘাটাইল.কম)/-