টাঙ্গাইলে ভাগিনাকে বাঁচাতে গিয়ে মামা খুন, আসামিরা প্রকাশ্যে

টাঙ্গাইলে ভাগিনাকে বাঁচাতে গিয়ে মামা খুন হওয়ার ঘটনায় দায়ের করা মামলার আসামিরা প্রকাশ্যে ঘুরছেন। মামলা দায়েরের দেড় মাসে ঘটনায় জড়িত তিনজনকে গ্রেফতার করছে পুলিশ।

এজাহারে উল্লেখিত আট আসামির পাঁচজন ও অজ্ঞাতরা গ্রেফতার না হওয়া, আসামিদের প্রকাশ্যে চলাফেরা নিয়ে চরম আতঙ্কে রয়েছেন মামলার বাদী। গত ১৯ জুলাই খুনের ঘটনাটি ঘটে টাঙ্গাইল পৌর শহরের ভাল্লুককান্দি এয়ারপোর্ট এলাকায়।

মামলার বিবরণে জানা যায়, পূর্বশত্রুতার জের ধরে চলতি ১৯ জুলাই সকালে বাড়ি থেকে ডেকে নিয়ে অস্ত্র দিয়ে কবির (১৭) নামের এক কিশোরের ওপর হামলা চালানো হয়। হামলায় কবির আহত হয়। তাকে বাঁচাতে গিয়ে গুরুতর আহত হন মামা মো. মনির হোসেন (৪৫) ও লিটন মিয়া (৪৫)। ওই দিনই হামলায় গুরুতর আহত লিটন মিয়া হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান।

এ ঘটনায় একই এলাকার তুষার, তুহিন, লুৎফর রহমান, ইয়াসিন, সিয়াম, জাহিদুল, রাতুল মিয়া ও দোলনসহ আটজনকে আসামি করে টাঙ্গাইল মডেল থানায় মামলা করেন মো. মনির হোসেন।

মামলার বাদী মো. মনির হোসেন বলেন, মামলার প্রায় দেড় মাস অতিবাহিত হচ্ছে। মাত্র তিনজন আসামিকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। বাকিরা এলাকায় প্রকাশ্যে চলাফেরা করাসহ নানাভাবে মামলা তুলে নেয়ার হুমকি দিচ্ছেন।

মামলার তদন্ত কর্মকর্তা ও টাঙ্গাইল মডেল থানা পুলিশের উপপরিদর্শক (এসআই) মো. নাসির উদ্দিন বলেন, ইতোমধ্যে আমরা তিনজনকে গ্রেফতার করেছি। গ্রেফতারকৃতদের মধ্যে রয়েছে মামলার অন্যতম আসামি তুষার, সিয়াম আর দোলন। অন্যরা পলাতক রয়েছে। তাদের খুঁজছে পুলিশ।

(আরিফ উর রহমান টগর, ঘাটাইল ডট কম)/-

Print Friendly, PDF & Email