টাঙ্গাইলে পিকআপ খাদে পড়ে বড় ভাইয়ের সামনে ছোট ভাইয়ের মৃত্যু, আহত ৫

ঢাকা-টাঙ্গাইল-বঙ্গবন্ধু সেতু মহাসড়কের টাঙ্গাইল সদর উপজেলার ধরুণ নামক এলাকায় পিকআপ খাদে পড়ে গিয়ে বড় ভাইয়ের সামনে তার এক ছোট ভাইয়ের মর্মান্তিক মৃত্যু হয়েছে। তাদের সাথে থাকা আহত হয়েছেন আরো ৫ জন।

নিহত কিশোর বগুড়া শেরপুর উপজেলার বাসিন্দা শানু হায়দারের ছেলে বিমল হায়দার (১৯), আহত হয়েছেন তার বড় ভাই রাবন হায়দার (৪৫)। এছাড়াও বগুড়া রানার হাট দেওয়া পাড়া এলাকার আক্তার আলীর ছেলে ওমর আলী (৫০) একই এলাকার বিনোদ কর্মকারের ছেলে বিজয় কর্মকার (৪০), শেওড়া এলাকার জয়লাল মিয়ার ছেলে আমিনুল ইসলাম (৩৫), নাটোর শিংড়া উপজেলার বিজয় কর্মকারের ছেলে হৃদয় কর্মকার (২০) তার বড় ভাই সৌম্য কর্মকার (২৫) গুরুতর আহত হয়।

মঙ্গলবার (১৯ মে) দুপুর ২ টায় মহাসড়কের ওই এলাকায় এই মর্মান্তিক দুর্ঘটনা ঘটে।

এ দুর্ঘটনার খবর পেয়ে টাঙ্গাইল ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্স স্টেশন অফিসার মো. সফিকুল ইসলামের নেতৃত্বে ফায়ার সার্ভিসের টিম দ্রুত ঘটনাস্থলে পৌঁছে নিহত ও আহতদের উদ্ধার করেন।

এ বিষয়ে টাঙ্গাইল ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্স স্টেশন অফিসার মো. সফিকুল ইসলাম জানান, মঙ্গলবার দুপুরে বগুড়ার শেরপুর থেকে ছেড়ে আসা ঢাকাগামী একটি পিকআপ মহাড়কের ধরুণ নামক এলাকায় পৌঁছলে পিকআপটি নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে খাদের ৩০ ফুট দূরে পড়ে যায়। এতে ঘটনাস্থলে এক কিশোর নিহত হয়। আহত হয় তার বড় ভাইসহ ৫ জন।

পরে আহতদের উদ্ধার করে ফায়ার সার্ভিসের এ্যাম্বুলেন্স যোগে টাঙ্গাইল জেনারেল হাসপাতালে পাঠানো হয় ও নিহতদের মরদেহ হাইওয়ে পুলিশের কাছে হস্তান্তর করা হয়।

(ফরমান শেখ, ঘাটাইল ডট কম)/-