টাঙ্গাইলে নতুন ৪৪ জন সহ করোনা পজিটিভ বেড়ে ৮৩৭

টাঙ্গাইলে প্রতিদিনই বাড়ছে করোনা রোগীর সংখ্যা। আর এতে জেলার করোনা পরিস্থিতি ভয়াবহ রূপ ধারণ করেছে। জেলায় নতুন করে আরো ৪৪ জন করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন। এ নিয়ে জেলায় মোট আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা দাঁড়ালো ৮৩৭ জনে।

নতুন আক্রান্তদের মধ্যে সদর উপজেলায় ১৫ জন, মির্জাপুরে ১১ জন, ভূঞাপুর ১ জন, নাগরপুর ১ জন, দেলদুয়ার ১ জন, গোপালপুর ২ জন, ঘাটাইল ২ জন, মধুপুর ৭ জন এবং সখীপুর উপজেলায় ৪ জন রয়েছেন।

বুধবার (৮ জুলাই) সকালে টাঙ্গাইলের সিভিল সার্জন ডা. মো. ওয়াহিদুজ্জামান আক্রান্ত হওয়ার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

টাঙ্গাইল সিভিল সার্জন অফিস সূত্র বলেন, ঢাকায় পাঠানো নমুনার ফলাফল আজ সকালে আসে। এতে নতুন করে ৪৪ জনের পজেটিভ আসে। এখন পর্যন্ত মোট ১৭ জনের মৃত্যু হয়।

সূত্র আরো জানায়, জেলায় এপ্রিল মাসে ২৪ জন, মে মাসে ১৪১ জন, জুন মাসে ৪৪৭ জন এবং জুলাই মাসে (আজ পর্যন্ত) ২২৫ জন করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। মাসভিত্তিক করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা বাড়ছে।

সখীপুর পৌরসভার মেয়র বীর মুক্তিযোদ্ধা আবু হানিফ আজাদ করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। করোনার উপসর্গ থাকায় গত শনিবার তার নমুনা সংগ্রহ করা হয়। পরে রোববার নমুনা ঢাকায় পাঠানো হয়। পরবর্তীতে মঙ্গলবার রাতে নমুনার ফলাফলে তার পজেটিভ আসে।

শ্বাসকষ্ট বেড়ে যাওয়ায় মধ্যরাতেই ঢাকার ধানম‌ন্ডি আনোয়ার খান মডার্ণ হস‌পিটা‌লে ভ‌র্তি করা হয়েছে। এছাড়া একই উপজেলার স্বামী-স্ত্রী করোনায় আক্রান্ত হন।

অপরদিকে মির্জাপুর উপজেলায় পুলিশ ট্রেনিং সেন্টারের ৩ পুলিশ সদস্য করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। তারা হলেন, ওই ট্রেনিং সেন্টারের পুলিশ পরির্দশক (নিরস্ত্র), একজন এএসআই এবং অপরজন কনস্টেবল।

এছাড়া একই উপজেলার স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের ড্রাইভার, ইমাম, ২ জন শিক্ষার্থী, পোশাক কারখানার কর্মী এবং ব্রাককর্মী আক্রান্ত হয়েছেন।

অপরদিকে ভূঞাপুর পৌরসভার মেয়র মাসুদুল হক মাসুদের ব্যক্তিগত সহকারী আব্দুল আলীম করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন।

অপরদিকে ঘাটাইল উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের ফার্মাসিস্ট, দেলদুয়ার উপজেলায় স্বাস্থ্য সহকারী (স্বাস্থ্যকর্মী) করোনা আক্রান্ত হয়েছেন।

এদিকে জেলায় মোট ৩৮ জন পুলিশ সদস্য করোনায় আক্রান্ত হলেন।

এদের মধ্যে জেলার বিভিন্ন থানা ও পুলিশ লাইনের ১৮ জন এবং পুলিশ ট্রেনিং সেন্টারের ১৯ জন রয়েছেন।

(টাঙ্গাইল সংবাদদাতা, ঘাটাইল ডট কম)/-