ঘাটাইলে ৪ লাখ টাকার ৭১টি সরকারী গাছ কেটে নিয়েছে সোলায়মান

গুম হত্যা মামলার ভয় দেখিয়ে সরকারী রাস্তার মুল্যবান গাছ কেটে নিলো মোঃ সোলায়মান। তার বাড়ি টাঙ্গাইলের ঘাটাইল উপজেলার লোকেরপাড়া ইউনিয়নের চরবকশিয়া গ্রামে। সে আরফান আলীর ছেলে। ঘটনাটি ঘটেছে ইউনিয়নটির পাঁচটিকরী গ্রামে।

এ বিষয়ে গ্রামবাসীর শতাধিক লোকের যৌথ স্বাক্ষরিত উপজেলা নির্বাহী অফিসার ছাড়াও সরকারী বিভিন্ন দপ্তরে লিখিত অভিযোগ প্রেরণ করেছে।

লিখিত অভিযোগ ও গ্রামবাসীর সাথে কথা বলে জানা যায়, চলতি মাসের ১৪ তারিখে উপজেলার লোকেরপাড়া ইউনিয়েনের চরবকশীয়া গ্রামে আরফান আলীর ছেলে সোলায়মান তার অনুগত বাহিনী নিয়ে দিনে দুপুরে কোন প্রকার আইনের তোয়াক্কা না করে পাচঁটিকরী মৌজায় রাস্তার উভয় পাশের সরকারী রাস্তায় লাগানো সেগুন, আকাশমনি, ইউকিলেপটাস, ফলজ, বনজ, ঔষধী সহ নানা প্রজাতির ৭১টি গাছ কেটে নিয়ে যায়। যার আনুমানিক মুল চার লক্ষাধিক (৪০০০০০) টাকা।

সে সময় গ্রামবাসী বাধা দিলে তাদের তাদের হুমকি গালিগালাজ ও ভয়ভীতি প্রদর্শন, এমনকি মেরে ফেলার হুমকি দেয়।

গাছ কাটার বিষয়ে ঐ গ্রামের আলহাজ মতিউর রহমান (৬৫), বাদশা মিয়া (৭২), হাসান আলী (৪০), আবু বক্কর সিদ্দিক বাবু, ইসমাইল হোসেন (২৫), বেলাল (৪৫) ঘাটাইল ডট কমকে জানান, আমাদেরকে মামলার ভয় দেখিয়ে সোলায়মান হুমকি দিয়ে বলেন আমি রাস্তার গাছসহ জমি কিনে নিয়েছি। বেশী বাড়াবাড়ি করলে প্রাননাশের হুমকি দেয় সে।

এসব অভিযোগের বিষয়ে সোলায়মান গাছ কাটা বিষয়ের সত্যতা স্বীকার করে ঘাটাইল ডট কমকে জানান, আমি কোন রাস্তার গাছ কাটিনি। আমি আমার নিজের জায়গার গাছ কেটেছি।

লিখিত অভিযোগ পাওয়ার বিষয়ে উপজেলা নির্বাহী অফিসার অঞ্জন কুমার সরকার জানান, আমি লিখিত অভিযোগ পেয়েছি। তদন্ত করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।

(রবিউল আলম বাদল, ঘাটাইল ডট কম)/-