ঘাটাইলে সৎসঙ্গ তপোবন উচ্চ বিদ্যালয়ের এমপিও বাতিল চেয়ে দরখাস্ত!

টাঙ্গাইলের ঘাটাইল উপজেলার সৎসঙ্গ তপোবন উচ্চ বিদ্যালয়ের এমপিও ভুক্তির বাতিল চেয়ে আবেদন করেছে স্কুল কতৃপক্ষ। বিষয়টি নিয়ে ঐ স্কুলের শিক্ষকদের মাঝে দির্ঘদিন ধরে চাপা ক্ষোভ বিরাজ করছে।এমপিও ভুক্তি যাতে বাতিল না হয় সে বিষয় বিভিন্ন জায়গায় লিখিত অভিযোগ দিয়েছে স্কুলের শিক্ষকবৃন্দ।

লিখিত অভিযোগ থেকে জানা যায়, ঘাটাইল উপজেলার পাকুটিয়া সৎসঙ্গ আশ্রম পরিচালিত উচ্চ বিদ্যালয়টি শিক্ষা মন্ত্রনালয়ের এমপিও ভুক্তি বাছাইয়ের তালিকায় স্থান পেয়েছে। কিন্তু আশ্রম কতৃপক্ষ শিক্ষা মন্ত্রনালয়কে বৃদ্ধাঙ্গুলী দেখিয়ে উপরোক্ত বাতিলের জন্য বিভিন্ন মন্ত্রনালয়ে লিখিত দরখাস্ত দিয়েছে।ফলে ঐ স্কুলে শিক্ষকতায় পেশায় যারা আছেন তাদের মাঝে চাপা ক্ষোভ বিরাজ করছে। এমনকি তারা স্কুল থেকে যে সামান্য বেতন পান তাদের পরিবার পরিজন নিয়ে কষ্ট দিনপাত করছেন।

তাদের অঙ্গসংগঠন পাবনা, এমনকি ভারতে দেওগর উচ্চ বিদ্যালয়ের এমপিও ভুক্তি থাকলেও আশ্রমের সহ সাধারণ সম্পাদক সুব্রত আদিত্যের ব্যাক্তিগত আক্রোশের কারণে এমন পদক্ষেপ নিয়েছে বলে অনুসন্ধানে জানা যায়।

এ বিষয়ে স্কুলের প্রধান শিক্ষক শেফালী রানী কর্মকার জানায়, সুব্রত আদিত্য তার স্ত্রীকে স্কুল থেকে অব্যাহতি দেয়ার কারনে ব্যাক্তিগত আক্রোশে সে এমপিও বাতিলের জন্য বিভিন্ন মন্ত্রনালয়ে দরখাস্ত করেছেন।

সৎসঙ্গ আশ্রমের সহ সাধারণ সম্পাদক সুব্রত আদিত্যকে এ বিষয়ে জিজ্ঞেস করা হলে তিনি জানান, এটা একটি সেবামুলক প্রতিষ্ঠান, এটা কোন চাকরী নয়। যাদের পুষবে না তারা যেনো স্কুল ছেড়ে চলে যায়। আমরা এমপিও ভুক্তি করবো না তবে সরকারকে সহযোগিতা করবো।

এমপিও বিরুদ্ধে দরখাস্ত দেওয়ার বিষয়ে উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার এ কে এম শামসুল ইসলাম সত্যতা স্বীকার করে জানান, উপজেলা নির্বাহী অফিসার অনেক বুঝিয়েছেন তবে আমাদের কথায় কোন কর্নপাত করে নি।

(ষ্টাফ রিাপোর্টার, ঘাটাইলডটকম)/-