ঘাটাইলে শিক্ষককে মারধরের ঘটনায় সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান আটক

টাঙ্গাইলের ঘাটাইল উপজেলার দেওজানা মুলবাড়ি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক আরিফুল ইসলাম রিপনকে মারপিটের ঘটনায় উপজেলার দেউলাবাড়ি ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান সোহরাব আলীকে আটক করেছে ঘাটাইল থানা পুলিশ।

আজ বুধবার (৮ জানুয়ারি) রাত নয়টায় দিকে তাকে আটক করা হয়।

পুলিশ ও শিক্ষক নেতারা জানান, আজ রাত সাড়ে সাতটার দিকে উপজেলার পাকুটিয়া এলাকায় পূর্ব শত্রুতার জের ধরে সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান সোহরাব আলী নির্দেশে তার ছেলেরা শিক্ষক আরিফুল ইসলামকে বেদম মারপিট করে আহত করে। খবর পেয়ে প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষকরা তাৎক্ষনিক সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান সোহরাবের আটকের দাবীতে ঘাটাইল থানায় অবস্থান নেয়। পরে টহল পুলিশ রাত নয়টার দিকে উপজেলার পাকুটিয়া এলাকা থেকে তাকে আটক করে থানায় নিয়ে যায়।

আহত শিক্ষক ঘাটাইল হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন। তিনি দেওজানা কড়ালিয়া গ্রামের আরফান আলির ছেলে।

লিখিত অভিযোগপত্র থেকে জানা যায়, দেউলাবাড়ি ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান সোহরাব আলী ও তার দুই ছেলে নিরব ও ইমরান সহকারী শিক্ষক আরিফুল ইসলাম রিপনকে মারধর করে। ঘটনার বিবরণে জানা যায়, ইউপি চেয়ারম্যান সোহরাবের মালিকানাধীন ইটভাটা হতে ২০১৬ সালে সাত লক্ষ টাকা প্রদান করে ১০ লক্ষ টাকার ইট ক্রয় করে শিক্ষক রিপন। কিন্তু সে ক্রয়কৃত ইট বুঝিয়ে না দিয়ে হুমকি ধমকি দিয়ে আসছিলো। এর প্রেক্ষিতে আজ রাত সাড়ে সাতটার সময় মোটরসাইকেল যোগে রিপন ঘাটাইলের পাকুটিয়া বাসস্ট্যান্ডে গেলে তারা তাকে মারধরের মাধ্যমে রক্তাক্ত জখম করে এবং রিপনের থেকে ৩৫ হাজার টাকা ছিনিয়ে নেয়। এ সময় সাধারণ লোকজন রিপনকে উদ্ধারে এগিয়ে আসলে তারা চলে যায়।

(স্টাফ রিপোর্টার, ঘাটাইলডটকম)/-