ঘাটাইলে অলিগলির দেয়ালে সিনেমার অশ্লীল পোস্টার

0Shares

টাঙ্গাইলের ঘাটাইলে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানসহ শহরের বিভিন্ন অলিগলির দেয়ালে সাঁটানো হয়েছে সিনেমার অশ্লীল পেস্টার। জনসমাগম ও শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের সামনে লাগানো এমন পোস্টারে মানুষজন বিব্রতবোধ করছেন। শুধু ইউজডম ভ্যালি নয়, ঘাটাইল সরকারি জিবিজি কলেজ ও কলেজ রোডে, নানা স্কুল ও বাসস্ট্যান্ডের বিভিন্ন স্থানে অশ্লীল এ পোস্টারগুলো দেখা যাচ্ছে।

ঘাটাইলের শিশুশিক্ষা প্রতিষ্ঠান ইউজডম ভ্যালির গেইট সংলগ্ন দেয়ালে সাঁটানো হয়েছে মধুপুরের কল্লোল সিনেমা হলে চলছে ’প্যানথারর’ ছবির দু’টি পোস্টার। সে পোস্টারের পুরোটা জুরেই জুড়েই রয়েছে অশ্লীলতা। এ প্রতিষ্ঠানে প্রায় সাত শতাধিক শিক্ষার্থী রয়েছে। শিশু শিক্ষার্থীরা এবং তাদের অভিভাবকরা রঙ্গিন এমন পোস্টার দেখে বিব্রত হচ্ছেন।

শুধু ইউজডম ভ্যালি নয়, ঘাটাইল সরকারি জিবিজি কলেজ ও কলেজ রোডে, নানা স্কুল ও বাসস্ট্যান্ডের বিভিন্ন স্থানে অশ্লীল এ পোস্টারগুলো দেখা যাচ্ছে। জনসমাগম ও শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের সামনে লাগানো কুরুচিপূর্ণ এমন পোস্টারে ওই স্থান দিয়ে যাতায়াতকারী অনেকেই মাথা নিচু করে হাঁটেন।

ঘাটাইলের শিক্ষক সোহেল রানা বলেন, এলাকার সৌন্দর্য রক্ষায় বিব্রতকর এমন অশ্লীল পোস্টার সাঁটানো নিয়ে কখনও কোনো পদক্ষেপই সাধারণত কর্তৃপক্ষ নেয়না। যারা চলচ্চিত্রের এমন অদ্ভুদ অশ্লীল নাম ও পোস্টার অনুমোদন দিচ্ছেন, তারা এর ক্ষতিকর প্রতিক্রিয়া সম্পর্কে হিনমন্যভাবে ওয়াকিবহাল হয়তোবা নন। আমরা এখন ডিজিটাল যুগে বাস করছি, সবকিছুই বিশ্বর অত্যাধুনিক তথ্যপ্রযুক্তির সাথে তাল মেলানো। অথচ আমাদের দেশের চলচ্চিত্র শিল্পর একাংশের মানুষ এখনও যেন সেকেলে! তাদের বোঝা উচিত, এই অশ্লীল সিনেমা ও অশ্লীলতার জন্য আমাদের দেশের দর্শকরা চলচ্চিত্র ও সিনেমা হল বিমুখ হয়েছেন।

ইউজডম ভ্যালির ২য় শ্রেণীর ছাত্র নাবিলের বাবা নজরুল ইসলাম বলেন, স্কুলে যাওয়া আসার পথে ছেলে ছবির দিকে তাকিয়ে থাকে। বারবার নিষেধ করার পরও ফেরানো যায় না।

আরেক অভিভাবক দুরুল হূদা বলেন, এমন পোস্টার দেয়ালে লাগানোর ফলে রাস্তা দিয়ে ছেলে মেয়ে নিয়ে যাওয়ার সময় আমরা বিব্রত বোধ করি।

ইউজডম ভ্যালির অধ্যক্ষ মোহাম্মদ কামাল হোসাইন বলেন, দেয়ালে লাগানো এসব পোস্টার অত্যন্ত আপত্তিকর। দ্রুত অপসারণের জন্য প্রশাসনের দৃষ্টি আকর্শন করছি।

এ বিষয়ে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোহাম্মদ কামরুল ইসলাম বলেন, নাগরিক হিসেবে প্রতিটা মানুষের দায়িত্ব এমন পোস্টার ছিঁড়ে ফেলা। বিষয়টি আমার জানা ছিলনা। যেহেতু জানতে পারলাম ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

(মাসুম মিয়া, ঘাটাইলডটকম)/-