গোপালপুরে বিয়ের প্রলোভনে স্কুলছাত্রী ধর্ষণ, যুবক গ্রেফতার

টাঙ্গাইলের গোপালপুরে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে স্কুলছাত্রীকে ধর্ষণের অভিযোগে এক যুবককে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। মঙ্গলবার উপজেলার নবগ্রাম দক্ষিণপাড়া থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়।

গ্রেফতারকৃত হাফিজুর রহমান (২০) একই এলাকার হায়দার আলীর ছেলে। ধর্ষণের শিকার মেয়েটি স্থানীয় একটি বিদ্যালয়ের দশম শ্রেণির ছাত্রী।

পুলিশ সূত্রে জানা যায়, উপজেলার নবগ্রাম দক্ষিণপাড়া এলাকার হাফিজুর রহমানের সাথে প্রায় দুই বছর ধরে ওই ছাত্রীর প্রেমের সম্পর্ক ছিল। এক পর্যায়ে হাফিজুর গত ৪ মাস ধরে একাধিকবার বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে তার সাথে মিলিত হয়। সর্বশেষ গত ৩১ মার্চও তার নিজ বাড়িতে ডেকে নিয়ে গিয়ে বিয়ের কথা বলে ওই ছাত্রীকে ধর্ষণ করে। পরে ওই ছাত্রী হাফিজুর রহমানকে বিয়ে করতে বললে অস্বীকার করে এবং তার সাথে কোনো সম্পর্ক গড়ে উঠেনি বলে জানায়।

এ অবস্থায় ওই ছাত্রী বিষয়টি তার মাকে খুলে বলে। পরে সোমবার রাতে ধর্ষিতার মা বাদি হয়ে হাফিজুর রহমানের নামে মামলা করে। পরে মঙ্গলবার পুলিশ অভিযান চালিয়ে হাফিজুরকে গ্রেফতার করে।

এ ব্যাপারে গোপালপুর থানার ওসি হাসান আল মামুন বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, এ ঘটনায় ধর্ষিতার মা বাদি হয়ে হাফিজুর রহমানের নামে মামলা করেছেন। গ্রেফতারকৃত হাফিজুর রহমানকে মঙ্গলবার দুপুরে টাঙ্গাইল কোর্টে পাঠানো হয়েছে। এছাড়া ধর্ষণের শিকার মেয়েটিকেও মেডিকেল পরীক্ষার জন্য টাঙ্গাইল জেনারেল হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

(গোপালপুর সংবাদদাতা, ঘাটাইল.কম)/-