কোটা সংস্কার আন্দোলনে ‘গুজব ছড়ানো’য় সাইবার আইনে মামলা

কোটা সংস্কারের আন্দোলনের সময় সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে গুজব ছড়ানোয় ২০০ জনের ফেসবুক অ্যাকাউন্ট চিহ্নিত করে সাইবার আইনে মামলা করেছে কাউন্টার টেররিজম ইউনিটের সাইবার ক্রাইম বিভাগ। সাইবার ক্রাইমের বিভাগের উপ-পরিদর্শক (এসআই) এস এম শাহজালাল বাদী হয়ে মামলাটি করেন।

১৩ এপ্রিল, শুক্রবার সন্ধ্যায় সাইবার ক্রাইম বিভাগের অতিরিক্ত উপ-কমিশনার (এডিসি) নাজমুল ইসলাম এ খবর জানিয়েছেন।

নাজমুল ইসলামের বরাত দিয়ে ডেইলি স্টারের খবরে বলা হয়, ‘কোটা সংস্কারের আন্দোলনের সময় সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে গুজব ছড়ানোয় এখন পর্যন্ত ২০০ জনের ফেসবুক অ্যাকাউন্ট চিহ্নিত করা হয়েছে।’

নাজমুল ইসলাম বলেন, ‘এক ছাত্রের মৃত্যু ও এক ছাত্রীর পায়ের রগ কাটার গুজব ছড়ানোকে মূল বিষয় হিসেবে সংযুক্ত করা হয়েছে।’

প্রসঙ্গত গত ৮ এপ্রিল কোটা সংস্কারের দাবিতে গড়ে ওঠা আন্দোলন এক পর্যায়ে পুলিশের সঙ্গে সংঘর্ষে রূপ নেয়। সংঘর্ষ চলাকালীন সময়ে এক ছাত্রের মৃত্যু হয়েছে এমন গুজব ছড়িয়ে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসির বাংলোতে আগুন ধরিয়ে দিয়ে তাণ্ডব চালায় দুর্বৃত্তরা।

১০ এপ্রিল, মঙ্গলবার দিবাগত রাত ১২টার দিকে সুফিয়া কামাল হলের তিন ছাত্রীকে ইফফাত জাহান এশাকে মারধর করেন বলে অভিযোগ উঠে। এই খবর সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকে মুহূর্তেই ছড়িয়ে পড়ে। আহত ছাত্রীর রক্তাক্ত পা, স্যান্ডেল ও ফ্লোরের বিভিন্ন ছবি ফেসবুকে শেয়ার দিয়ে অনেকেই এর প্রতিবাদ জানান এবং বিক্ষোভ করেন।

অবশেষে গত ১১ এপ্রিল সন্ধ্যায় প্রধানমন্ত্রী সংসদে কোটাপদ্ধতি বাতিল করলে আন্দোলন স্থগিত হয়।

(অনলাইন ডেস্ক, ঘাটাইল.কম)/-