ওরিয়েন্টাল ব্যাংকের ৫ কর্মকর্তার ৬৮ বছরের সাজা

অর্থ আত্মসাতের ৪ মামলায় ওরিয়েন্টাল ব্যাংকের সাবেক ৫ কর্মকর্তাকে ৬৮ বছরের সাজা দিয়েছে আদালত। এর মধ্যে একটি মামলায় ২ ব্যবসায়ীকে ১৭ বছর করে কারাদণ্ডের পাশাপাশি অর্থদণ্ড দেয়া হয়। তবে খালাস পেয়েছেন ব্যাংকটির আরেক কর্মকতা।

সাজাপ্রাপ্তরা হলেন, ওরিয়েন্টালের প্রিন্সিপাল ব্রাঞ্চের সিনিয়র ভাইস প্রেসিডেন্ট শাহ মো. হারুন, সিনিয়র অ্যাসিস্ট্যান্ট ভাইস প্রেসিডেন্ট মো. আবুল কাশেম মাহমুদুল্লাহ, সিনিয়র এক্সিকিউটিভ ভাইস প্রেসিডেন্ট মাহমুদ হোসেন, এক্সিকিউটিভ ভাইস প্রেসিডেন্ট কামরুল ইসলাম ও অ্যাসিসট্যান্ট ভাইস প্রেসিডেন্ট মো. ফজলুর রহমান।

মঙ্গলবার (১৭ এপ্রিল) ঢাকার ৫ নম্বর বিশেষ জজ আদালতের বিচারক মো. আখতারুজ্জামান এ রায় দেন।

ব্যাপক অনিয়ম-দুর্নীতির কারণে বিগত বিএনপি-জামায়াত জোট সরকার আমলের শেষ দিকে সংকটে পড়ে তৎকালীন ওরিয়েন্টাল ব্যাংক। ২০০৫ সালের ২৭ জুলাই মেসার্স তানবীল এজেন্সি নামে একটি ভুয়া কোম্পানি ওরিয়েন্টাল ব্যাংকের বাবুবাজার শাখা থেকে এক কোটি টাকা ঋণ নেয়। ব্যাংকের কর্মকর্তা ও এজেন্সির মালিকের যোগসাজশে ওই টাকা আত্মসাৎ করা হয়।

২০০৬ সালের ২৯ ডিসেম্বর বিধিবহির্ভূতভাবে ঋণ প্রস্তাব ও অর্থ আত্মসাতের অভিযোগে দুদকের উপ-পরিচালক সৈয়দ আহম্মেদ তেজগাঁও থানায় মামলাটি দায়ের করেন। পরে ওরিয়েন্টাল ব্যাংকের পরিচালনা পর্ষদ ভেঙে দেয় বাংলাদেশ ব্যাংক।

২০০৯ সালে ব্যাংকটির নাম পরিবর্তন করে নতুন নাম করা হয় আইসিবি ইসলামিক ব্যাংক।

(ব্রেকিংনিউজ, ঘাটাইল.কম)/-