ঈদে গণপরিবহন নয়, পণ্য পরিবহন বন্ধ থাকবে

ঈদের আগে গণপরিবহন বন্ধের যে প্রজ্ঞাপন দেয়া হয়েছিল সেটাকে ভুল বোঝাবুঝি বলেছেন নৌ পরিবহন প্রতিমন্ত্রী খালিদ মাহমুদ চৌধুরী।

তিনি বলেন, আজকে (বুধবার) বৈঠকের আগেও আমরা বলেছিলাম ঈদের আগের ৫ দিন এবং পরের ৩ দিন গণপরিবহন বন্ধ থাকবে। সেটা একটা ভুল বুঝাবুঝি ছিল। এখন সিদ্ধান্ত হয়েছে পণ্যবাহী যে কোনো গণপরিবহন বন্ধ থাকবে।

আজ বুধবার দুপুরে নৌ-পরিবহন মন্ত্রণালয়ের সম্মেলনে কক্ষে ঈদুল আজহা উপলক্ষে লঞ্চ, ফেরি, স্টিমার চলাচল ও যাত্রীদের নিরাপত্তা নিশ্চিতকরণের কর্মপন্থা নির্ধারণী এক বৈঠকে প্রতিমন্ত্রী এসব কথা বলেন।

প্রসঙ্গত, বৈঠকের শুরুতে নৌ পরিবহন প্রতিমন্ত্রী জানান, ঈদের আগের ৫ দিন, ঈদের দিন ও পরের ৩ দিন গণপরিবহন বন্ধ থাকবে।

ঈদের আগে ৫ দিন ও পরে ৪ দিন গণপরিবহন বন্ধ রাখার নির্দেশনা দিয়ে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ থেকে সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয় ও বিভাগের কাছে চিঠি পাঠানো হয়েছে বলেও জানিয়েছিলেন প্রতিমন্ত্রী।

সভা শেষে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে খালিদ মাহমুদ চৌধুরী বলেন, আমরা যখন আজকে বৈঠক শুরু করেছিলাম তখনও বলেছিলাম গণপরিবহন ঈদের আগে ও পরে ৯ দিন বন্ধ থাকবে। পরবর্তী সময়ে আমাদের সঙ্গে মন্ত্রী পরিষদ সচিবের কথা হয়েছে, এখানে একটা ভুল বোঝাবুঝি হয়েছে।

এখানে যে সিদ্ধান্ত হয়েছে, সেটা হচ্ছে ঈদের আগে ৫ দিন ও পরে তিনদিন পণ্যবাহী যে কোনো ধরনের যানবাহন বন্ধ থাকবে। কিন্তু আমাদের গণপরিবহন, গণপরিবহনের একটা অংশ যাত্রীবাহী লঞ্চ বা ফেরি চালু থাকবে।

সেক্ষেত্রে ট্রেন বা বাসও কি চলাচল করতে পারে এমন প্রশ্নের জবাবে প্রতিমন্ত্রী বলেন, আমরা এটার সমন্বয় করে নেব। আমি যতটুকু বুঝতে পারছি ট্রেন এবং বাসও চলবে।

জিলহজ মাসের চাঁদ দেখা সাপেক্ষে আগামী ৩১ জুলাই বা ১ আগস্ট দেশে ঈদুল আজহা বা কোরবানির ঈদ উদযাপিত হবে। ঈদে ঘরমুখী মানুষের যাত্রার সুবিধার্থে আগে ও পরে ৯ দিন সড়কে পণ্য পরিবহন বন্ধ থাকবে।

(বাংলা নিউজ, ঘাটাইল ডট কম)/-