সখীপুরে প্রশ্নফাঁস; ৭ শিক্ষকের কারাদণ্ড ও জরিমানা, ১ পরীক্ষার্থীর বিরুদ্ধে মামলা

টাঙ্গাইলের সখীপুরে মুঠোফোনে ছবি তুলে চলতি এসএসসি পরীক্ষার প্রশ্নপত্র ফেইসবুকে ছড়িয়ে দেওয়ার অভিযোগে এক পরীক্ষার্থীর বিরুদ্ধে মামলা করেছেন সংশ্লিষ্ট কেন্দ্রের সহকারী সচিব মো. আনোয়ার হোসেন। অন্যদিকে দায়িত্বে অবহেলার জন্যে দুই কক্ষ পরিদর্শককে (শিক্ষক) একমাস করে বিনাশ্রম কারাদণ্ড ও কেন্দ্রে মুঠোফান রাখার অপরাধে অপর পাঁচ শিক্ষককে ২০০ টাকা করে জরিমানা করেছেন ভ্রাম্যমাণ আদালত।

সোমবার (১১ ফেব্রুয়ারি) দুপুরে উপজেলা উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মো. আমিনুর রহমান দণ্ডাদেশ দেন।

কারাদণ্ড প্রাপ্ত দুই শিক্ষক হলেন- উপজেলার সখীপুর পাইলট বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক মো. মোশারফ হোসেন ও ছোট মৌশা উচ্চ বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক নিলুফা ইয়াসমিন। ওই দুই শিক্ষক সখীপুর পাইলট বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের ২নং ভেন্যুর ১৩ নং কক্ষ পরিদর্শকের দায়িত্বে ছিলেন।

অপরদিকে একই ভেন্যুতে মোবাইল ফোন রাখার অপরাধে পাঁচ শিক্ষককে ২০০ টাকা করে জরিমানা করেন ভ্রাম্যমাণ আদালত। তারা হলেন- সাড়াসিয়া উচ্চ বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক আবু তাহের, ইছাদিঘী উচ্চ বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক মো. ওয়াদুদ হোসেন, ঢনঢনিয়া ছোটচওনা উচ্চ বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক আবু সাঈদ তালুকদার, রাজাবাড়ি উচ্চ বিদ্যালয়ে দুই সহকারী শিক্ষক আবদুর রউফ এবং আহসান হাবিব।

পরীক্ষা কেন্দ্রে মোবাইল ফোনে প্রশ্নপত্র ফাঁসে অভিযুক্ত সখীপুর পিএম পাইলট মডেল সরকারি স্কুল এন্ড কলেজের পরীক্ষার্থী সাব্বির আহমেদ সজিবের বিরুদ্ধে ওই ভেন্যুর সহকারী সচিব মো. আনোয়ার হোসেন বাদী হয়ে সখীপুর থানায় মামলা করেছেন।

উপজেলা নির্বাহী অফিসর (ইউএনও) মো. আমিনুর রহমান বলেন, প্রশ্নপত্র ফাঁস ছাত্রকে বহিষ্কার ও দায়িত্বে অবহেলার দায়ে দুই শিক্ষককে কারাদণ্ড অপর পাঁচ শিক্ষককে অর্থদণ্ড এবং অভিযুক্ত পরীক্ষার্থীর বিরুদ্ধে নিয়মিত মামলার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

(সখীপুর সংবাদদাতা, ঘাটাইলডটকম)/-

73total visits,1visits today