রেজিস্ট্রেশন এবং টাকা জমা দিয়েও হজে যেতে পারছেন না ৪৭৭৬ বাংলাদেশি

চলতি বছর হজে যাওয়ার জন্য রেজিস্ট্রেশন এবং টাকা জমা দিয়েও এজেন্সির গাফিলতিতে সৌদি যেতে পারছেন না ৪৭৭৬ বাংলাদেশি। কারণ সংশ্লিষ্ট এজেন্সি সময় মতো ভিসার আবেদনই জমা দেয়নি। হজের ভিসার আবেদন জমা দেওয়ার সময় বৃহস্পতিবার শেষ হয়েছে। এদিকে আজও যাত্রী সঙ্কটে বাংলাদেশ বিমানের আরো দুটি হজ ফ্লাইট বাতিল ঘোষণা করা হয়েছে। এ নিয়ে মোট হজ ফ্লাইট বাতিলের সংখ্যা দাঁড়ালো ২৭টি।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, এখন পর্যন্ত ভিসা হয়েছে মোট ১ লাখ ২০ হাজার ৮২৯ জনের। হজের উদ্দেশ্যে সৌদি পৌঁছেছেন ৭৩ হাজার ৪৫ জন। ভিসার জন্য আবেদন জমা হয়েছে ১ লাখ ২২ হাজার ৪২২ জনের। শেষ দিনেও আবেদন জমা পড়েনি ৪৭৭৬ হজযাত্রীর। তাই এ ৪৭৭৬ জন হজযাত্রী এ বছর আর হজে যেতে পারছেন না।

কেন এজেন্সিগুলো সময় মতো ভিসার আবেদন জমা দেয়নি এ বিষয়ে জানতে চাইলে হজ অফিসের পরিচালক মো. সাইফুল ইসলাম বলেন, ‘কেন যে এতো আবেদন জমা পড়েনি সেটা আমরা ঠিক বুঝতে পারছি না। আমরা এজেন্সিগুলোর সঙ্গে কথা বলছি। জানার চেষ্টা করছি কেন এমন হলো। যদি এজেন্সিগুলো দায়ী হয় তাহলে তাদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেওয়া হবে। তবে কোন কোন এজেন্সি এর জন্য দায়ী ঠিক এখনই বলতে পারছি না।’

ভিসা জটিলতায় যাত্রী সঙ্কটে বাংলাদেশ এয়ারলাইন্স ও সৌদি এয়ারলাইন্সের মোট ২৭টি হজ ফ্লাইট বাতিল করা হয়েছে। এর মধ্যে ২৩টি বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের আর বাকি ৪টি সৌদি এয়ারলাইন্সের।

এ বছর সরকারি ও বেসরকারি ব্যবস্থাপনায় মোট হজযাত্রীর সংখ্যা ১ লাখ ২৭ হাজার ১৯৮ জন। হজযাত্রীদের সৌদি আরবে যাত্রার প্রথম ফ্লাইট পৌঁছে ২৪ জুলাই। শেষ ফ্লাইট ২৮ আগস্ট। ফিরতি ফ্লাইট শুরু হবে ৬ সেপ্টেম্বর ও শেষ ফিরতি ফ্লাইট ৫ অক্টোবর। এ বছর চাঁদ দেখা সাপেক্ষে হজ অনুষ্ঠিত হবে ১ সেপ্টেম্বর।

 

(পরিবর্তন/ ঘাটাইল.কম)/-

84total visits,3visits today