যশোরে একই দড়িতে ফাঁস দিয়ে স্কুল পড়ুয়া প্রেমিক-প্রেমিকার আত্মহত্যা

যশোরের অভয়নগরে প্রেমের টানে একই দড়িতে গলায় ফাঁস দিয়ে প্রেমিক-প্রেমিকার আত্মহত্যার ঘটনা ঘটেছে।

মঙ্গলবার বিকেলে অভয়নগর উপজেলার নলপাড়া গ্রামের খালপার থেকে তাদের মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ।

তারা হলো- জয়ারাবাদ সম্মিলনী মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের সপ্তম শ্রেণির ছাত্র লিপা বিশ্বাস (১৩) ও দশম শ্রেণির ছাত্র সৈকত কুমার সেন (১৮)।

তবে কি কারণে তারা আত্মহত্যা করেছে বিষয়টি নিশ্চিত হতে পারেনি কেউ।

অভয়নগর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শেখ গণি মিয়া জানান, মঙ্গলবার সকালে খবর পেয়ে পুলিশ নলামারা গ্রামের খালপাড় এলাকা থেকে দুজনের মরদেহ উদ্ধার করেছে।

গাছের ডালে একই দড়িতে গলায় ফাঁস দেয়া অবস্থায় ঝুলন্ত মরদেহ দুটি পাওয়া যায়। ধারণা করা হচ্ছে প্রেমঘটিত কারণে ওই দুই শিক্ষার্থী আত্মহত্যা করেছে। তাদের মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে।

মৃত লিপা বিশ্বাসের বাবা গোবিন্দ বিশ্বাস জানান, সোমবার গভীর রাতে লিপা প্রকৃতির ডাকে সাড়া দেয়ার কথা বলে ঘরের বাইরে যায়। পরে আজ সকালে তার মরদেহ পাওয়া গেছে। তবে মেয়ের সঙ্গে কারো প্রেমের সম্পর্ক ছিল কি না এ বিষয়ে কিছু জানেন না বলে জানান গোবিন্দ বিশ্বাস।

মৃত সৈকত কুমার সেনের বাবা সুশান্ত সেন জানান, সোমবার পার্শ্ববর্তী গ্রামে স্বপন নামের এক যুবকের বিয়ের অনুষ্ঠানে গিয়েছিল সৈকত। রাতে বাড়ি না ফেরায় সকালে খোঁজাখুঁজি শুরু করি। পরে খালপারে গলায় ফাঁস দেয়া অবস্থায় তার মরদেহ পাওয়া যায়।

(আরটিভি, ঘাটাইলডটকম)/-

68total visits,1visits today