‘ভুঞাপুরে বখাটে স্টাইলে চুল কাটলেই ৪০ হাজার টাকা জরিমানা’

টাঙ্গাইলের ভুঞাপুরে বিকৃত হেয়ার স্টাইল এবং দাঁড়ি ও গোঁফ মডেলিং এর উপর নিষেধাজ্ঞা জারি করেছে উপজেলা শীল সমিতি। উপজেলা শীল সমিতির সভাপতি শেখর চন্দ্র শীল এবং সাধারণ সম্পাদক অরুন চন্দ্র শীল সাক্ষরিত এক বিজ্ঞপ্তিতে এই তথ্য পাওয়া যায়।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, বিকৃত হেয়ার স্টাইল এবং দাঁড়ি ও গোঁফ মডেলিং এর উপর সরকারিভাবে নিষিদ্ধ ঘোষণা করা হয়েছে। এই আদেশ অমান্যকারীদের বিরুদ্ধে ৪০ হাজার টাকা অর্থদণ্ড সহ আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণের কথা বিজ্ঞপ্তিতে উল্লেখ করা হয়েছে। এতে আরও বলা হয়েছে, হেয়ার স্টাইলের কোন ক্যাটালগ দোকানে প্রদর্শনও করা যাবে না।

এই আদেশ অমান্য করলে ভুঞাপুর উপজেলা শীল সমিতি কোন দায়ভার গ্রহণ করবে না বলেও বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়েছে।

ভুঞাপুর উপজেলা শীল সমিতির সভাপতি শেখর চন্দ্র শীল ঘাটাইলডটকমকে বলেন, আমরা আমাদের সমিতির সদস্যদের লিখিত বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে সতর্ক করেছি। এ নির্দেশনা অত্যন্ত কঠোরভাবে কার্যকর করা হবে এবং এতে কাউকে কোন ছাড় দেওয়া হবে না।

এ বিষয়ে স্থানীয় সাংবাদিক আল আমিন শোভন ঘাটাইলডটকমকে বলেন, কোন ভাল ছেলেরা বিকৃতভাবে হেয়ার স্টাইল করে না। ভুঞাপুরে বখাটেরা বিভিন্ন স্টাইলে চুল কেটে এবং চুলে রং করে নানা ধরনের অপকর্মে লিপ্ত হচ্ছে। এখানে মাদকসেবক, ব্যবসায়ী, বেপরোয়াভাবে মোটর সাইকেল চালানো এবং স্কুল ও কলেজের মেয়েদের উত্যক্তকারীদের অধিকাংশই বিকৃতভাবে হেয়ার স্টাইল করা।

স্থানীয় আবু বকর মৃধা ঘাটাইলডটকমকে বলেন, ভুঞাপুর উপজেলা শীল সমিতির এই সিদ্ধান্ত সাধুবাদ পাওয়ার যোগ্য। অন্যান্য উপজেলার শীল সমিতিরও এমন সিদ্ধান্ত নেওয়া উচিৎ। পাশাপাশি আমাদের অভিভাবক, শিক্ষক, সমাজ সেবক, রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দদের এখানে সার্বিক সহযোগিতা করা উচিৎ।

(নিজস্ব প্রতিবেদক, ঘাটাইলডটকম)/-

269total visits,1visits today