বাংলাদেশ তৈরি পোষাক রপ্তানীতে তৃতীয় এবং দ্বিতীয় অবস্থানে; বিশ্ব বাণিজ্য সংস্থা

বাংলাদেশ তৈরি পোশাক রপ্তানিতে ২০১৬ সালে ৬ শতাংশ প্রবৃদ্ধি অর্জন করে বিশ্বে তৃতীয় অবস্থানে রয়েছে, এবং দ্বিতীয় অবস্থানে থাকা ২৮ দেশের জোট ইইউ বাদ দিলে একক দেশ হিসেবে দ্বিতীয় সর্বোচ্চ পোশাক রপ্তানিকারক দেশ বাংলাদেশ। বিশ্ব বাণিজ্য সংস্থার (ডব্লিউটিও) ‘ওয়ার্ল্ড ট্রেড স্ট্যাটেসটিকস রিভিউ ২০১৭’ প্রতিবেদন থেকে এসব তথ্য জানা যায়।

বিশ্ব বাণিজ্য সংস্থার প্রতিবেদনে বলা হয়, বিভিন্ন দেশ থেকে গত বছর ৪৫ হাজার ৪০০ কোটি ডলারের পোশাক রপ্তানি হয়েছে। শীর্ষ দশ রপ্তানিকারক দেশ গত বছর ৩৪ হাজার কোটি ডলারের পোশাক রপ্তানি করেছে। বৈশ্বিক মোট পোশাক রপ্তানির চার ভাগের তিন ভাগই এই শীর্ষ দশ দেশের দখলে রয়েছে।

প্রতিবেদন অনুযায়ী, তৈরি পোশাক রপ্তানিতে বরাবরের মতো শীর্ষ অবস্থানে চীন। গত বছর ১৬ হাজার ১০০ কোটি ডলারের পোশাক রপ্তানি করেছে, যা বিশ্বের মোট পোশাক রপ্তানির ৩৬.৪ শতাংশ। তবে গেল বছর পোশাক রপ্তানি ৭ শতাংশ কমে গেছে চীনের।

দ্বিতীয় অবস্থানে ২৮ দেশের জোট ইইউ’র প্রবৃদ্ধি ৪ শতাংশ। রপ্তানি করেছে ১১ হাজার ৭০০ কোটি ডলারের পোশাক।

তৃতীয় অবস্থানের বাংলাদেশ গত বছর ২ হাজার ৮০০ কোটি মার্কিন ডলারের তৈরি পোশাক রপ্তানি করেছে, যা বিশ্বের মোট পোশাক রপ্তানির ৬.৪ শতাংশ।

চতুর্থ শীর্ষ পোশাক রপ্তানিকারক দেশ ভিয়েতনাম গত বছর ২ হাজার ৫০০ কোটি ডলারের পোশাক রপ্তানি করেছে। তাদের প্রবৃদ্ধি ৫ শতাংশ।

ভারত গত বছর ১ হাজার ৮০০ কোটি ডলারের পোশাক রপ্তানি করেছে, যা বিশ্বের মোট পোশাক রপ্তানির ৪ শতাংশ। তবে তাদের পোশাক রপ্তানি ২ শতাংশ কমে গেছে।

এ ছাড়া গত বছর হংকং ১ হাজার ৬০০ কোটি, তুরস্ক ১ হাজার ৫০০, ইন্দোনেশিয়া ৭০০, কম্বোডিয়া ও যুক্তরাষ্ট্র উভয়ই ৬০০ কোটি ডলারের পোশাক রপ্তানি করেছে।

 

(০২ আগস্ট ২০১৭/ ঘাটাইল.কম)/-

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না।