প্রধান বিচারপতির তীব্র সমালোচনায় আইনমন্ত্রী

বঙ্গবন্ধু-আওয়ামী আইনজীবী পরিষদের সম্মেলন প্রস্তুতি কমিটির পরিচিতি ও কর্মী সমাবেশে অংশ নিয়ে প্রধান বিচারপতি সুরেন্দ্র কুমার সিনহা’র সমালোচনা করেছেন আইনমন্ত্রী আনিসুল হক। তিনি বলেছেন: আমরা যেখানে সবকিছু আলোচনার মধ্য দিয়ে সমাধান চাই। জনগনের উন্নয়ন করতে চাই, সেখানে তিনি এজলাসে উঠে বিভ্রান্তি মূলক বক্তব্য দিচ্ছেন। আমার  দুর্ভাগ্য, সকল অনুষ্ঠানেই আমরা পরে তিনি বক্তব্য দেন। তার অভিযোগ গুলো খণ্ডানোর সুযোগ আর আমার আসে না।

সেদিন তিনি বললেন: তার চেয়ারে নাকি পানি পড়ে। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী এটা জানার পর আমাকে ডেকে পাঠালেন। বললেন, আমার বিল্ডিংয়েও তো পানি পড়ে। তুমি একটু দেখো তো ওনার কোথায় সমস্যা। আমি তো সংস্কার করে দিয়েছি। প্রয়োজনে ওখানেও সংস্কার করতে হবে। পরে এখনকার আদলে না হয় নতুন বিল্ডিং করে দেওয়া যাবে। আমাদের প্রধানমন্ত্রী এবং আওয়ামী লীগ সরকার চায় সকল সমস্যা আলোচনার মধ্যদিয়ে সমাধান করতে।

রাষ্ট্রপতির যে ক্ষমতা, সেটা তারা নিয়ে নিতে চায়! আমি কিভাবে সেটা দেই? আপনারাই রায় দেন আপনারা বলেন, আমিতো সেটা দিতে পারি না।

উনি এজলাসে উঠে বললেন যে, ‘হাই কোর্টটা তাহলে উঠিয়ে দেন’। হাই কোর্টতো বঙ্গবন্ধু করে দিয়ে গেছেন। আমরা কি করে উঠিয়ে দেব! তাহলে এ কথা কি অপ্রাসঙ্গিক নয়?

আমি তো এসে উনাকে দিয়েছি। আমিতো এমন না যে, পিয়ন বা আমার সচিবকে দিয়ে উনার (প্রধান বিচারপতি) কাছে পাঠিয়ে দিয়েছি। আমি এসে উনাকে (প্রধান বিচারপতি) দিয়েছি। বলেছি, আপনি পড়েন, আপনি দেখেন। তার পরে যদি কোনো বক্তব্য থাকে, আমাকে জানান। তারপরেও আলোচনা করব।

তিনি প্রধান বিচারপতি। তার প্রতি আমার যথেষ্ট সম্মান আছে। আমি সেই সম্মান ও অধিকার রেখে মাননীয় প্রধান বিচারপতিকে বলতে চাই, আমিতো হাই কোর্ট সুপ্রিম কোর্ট ওঠানোর কথা বলি নাই। ডিসিপ্লিনারি রুলস দিয়ে হাই কোর্ট সুপ্রিম কোর্ট ওঠে না। এজলাসে বসে আপনার এগুলো বলারতো দরকার হয় না। আলাপ-আলোচনাতো আমি করবই। আমি গতকাল যশোরে ছিলাম। উনার কথা শুনে আমি ফোন করে বলেছি, আমি আসতেছি, বৃহস্পতিবার বসব। আমাদের সদিচ্ছা আছে।

আমরা মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনায় দেশের কাজে নিয়োজিত। দেশের মানুষের যতটুকুতে উপকার হয় ততোটুকু করবোই। এর মধ্যে আমরা কোনো আপস করবো না। কিন্তু সেই উপকার দেশের মানুষের হতে হবে, অন্য কারও না।

 

বঙ্গবন্ধু আওয়ামী আইনজীবী পরিষদের এ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের। এছাড়া প্রেসিডিয়াম সদস্য আবদুল মতিন খসরু, অ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলমসহ সরকার সমর্থক আইনজীবী নেতারা উপস্থিত ছিলেন।

 

(ঘাটাইল.কম)/-

218total visits,1visits today

Leave a Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.