পাওনা টাকা চাওয়ায় সখীপুরে বিএনপির নেতার লাথিতে বয়োজ্যেষ্ঠর মৃত্যু

টাঙ্গাইলের সখীপুরে পাওনা টাকা চাইতে গেলে শেখ জাহাঙ্গীর আলম নামের এক বিএনপি নেতার কিল-ঘুষি ও লাথির আঘাতে আবুল হোসেন (৭০) নামের এক বৃদ্ধের মৃত্যু হয়েছে। মঙ্গলবার (৩০ জানুয়ারি) সকালে পৌরসভার ৬ নম্বর ওয়ার্ডে এ ঘটনা ঘটে।

নিহত বয়োজ্যেষ্ঠ পৌরসভার ৫ নম্বর ওয়ার্ডের ময়থাচালা গ্রামের বাসিন্দা।

জানা যায়, বৃদ্ধ আবুল হোসেন মঙ্গলবার সকালে পৌরসভার ৬ নম্বর ওয়ার্ডের গড়গোবিন্দপুর গ্রামের শেখ আবদুল বারেকের ছেলে উপজেলা স্বেচ্ছাসেবক দলের সাবেক সাধারণ সম্পাদক শেখ জাহাঙ্গীর আলমের কাছে দীর্ঘদিনের পাওনা টাকা চাইতে যায়। এ সময় জাহাঙ্গীর আলম পৌরসভার রেনাজ সিনেমা হল সড়কের গ্রামীণ টাওয়ারের কাছে বৃদ্ধকে নিয়ে আসে। পরে দুজনের মধ্যে কথাকাটির এক পর্যায়ে জাহাঙ্গীর উত্তেজিত হয়ে বৃদ্ধকে কিল-ঘুষি ও লাথি মারলে বৃদ্ধ মাটিতে লুটিয়ে পড়ে।

লোকজন আসার আগেই জাহাঙ্গীর দৌড়ে পালিয়ে যায়। পরে স্থানীয়রা বৃদ্ধকে উদ্ধার করে সখীপুর স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেওয়ার পথে তাঁর মৃত্য হয়।

উপজেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক নাসির উদ্দিন বলেন, শেখ জাহাঙ্গীর এখন আমাদেও দলের কেউ না। তাকে অনেক আগেই দলীয় শৃঙখলা ভঙ্গের কারণে কেন্দ্রীয় পর্যায় থেকে বহিষ্কার করা হয়েছে।

এ বিষয়ে জরুরী বিভাগের চিকিৎসক রাজিয়া সুলতানা বলেন, সকাল সাড়ে ৯টার দিকে বৃদ্ধকে নিয়ে আসলেও ঘনাস্থল কিংবা আনার পথেই সে মারা যায়।

নিহতের ছেলে সামছুল আলম বলেন, বাবা সিমেন্টের খুঁটির ব্যবসা করতো। জাহাঙ্গীর চার মাস আগে দশ হাজার টাকার খুঁটি বানিয়ে নিলেও টাকা দিতে অনেকদিন ধরে তালবাহানা করছিল। তিনি বলেন, সে টাকা চাইতে গিয়ে আমার বাবা জীবন দিল। আমি বাবার এ হত্যাকারীর বিচার চাই।

সখীপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মাকছুদুল আলম বলেন, থানায় মামলার প্রস্তুতি চলছে। অভিযুক্ত জাহাঙ্গীরকে গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে।

(সাজ্জাত লতিফ, সখীপুর, ঘাটাইল ডট কম)/-

92total visits,1visits today