পরকীয়া, বিএসএমএমইউ কর্মচারীর আত্মহত্যা

ঢাকা শাহবাগে আজিজ সুপার মার্কেটের চতুর্থ তলার একটি কক্ষে রাসেল খান নামক এক যুবক তার প্রেমিকা রুবিনার ওড়না নিয়ে গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছেন। সোমবার (২৯ জানুয়ারি) সকাল সাড়ে ১০টার দিকে এ ঘটনা ঘটে।

রাসেল খান (২৮) টাঙ্গাইলের ঘাটাইল উপজেলার কুমারপাড়া গ্রামের আতাউর খানের ছেলে। বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় ও হাসপাতালের ৪র্থ শ্রেণির কর্মচারী তিনি।

রাসেলের প্রেমিকা রুবিনা আক্তার ইডেন মহিলা কলেজের ছাত্রী।

রাসেল খানের এক সহকর্মী জানান, সকালে প্রেমিকা ইডেন কলেজের ছাত্রী রুবিনার খবর পেয়ে ওই কক্ষ থেকে ঝুলন্ত রাসেলকে উদ্ধার করে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে (ঢামেক) নেয়া হলে চিকিৎসকরা মৃত ঘোষণা করেন।

কান্নাজড়িত কণ্ঠে রুবিনা বলেন, ‘রাসেল ও আমার মধ্যে প্রেমের সম্পর্ক দুই পরিবারই অবগত ছিল। ৬ বছর আগে আমার অমতে পরিবার আমাকে বিয়ে দিয়েছে। এতে আমি অনেক আঘাত পেয়েছি, একা একা কেঁদেছি। বাধ্য হয়ে ভাগ্যকে মেনেও নিয়েছি। কিন্তু রাসেল কিছুতেই শান্ত হয়নি। আমার বিয়ে হয়ে গেলেও, সে আমার সঙ্গে যোগাযোগ রাখার চেষ্টা করতো, আমাকে ডিস্টার্ব করতো।’

 

তিনি বলেন, ‘কয়েকদিন ধরে রাসেলের পাগলামি বেড়ে গেছে। যখন-তখন সে আমার সঙ্গে যোগাযোগ করার চেষ্টা করে, দেখা করতে চাই, তাই তাকে বুঝাতে তার রুমে এসেছি। তাকে অনেক বুঝিয়েছি। কিন্তু সে কোন কথাই শুনেনি।’

তিনি জানান, ‘আজিজ মার্কেটের চতুর্থ তলার ওই রুমে দুজনের কথা বলার এক পর্যায়ে ওড়না রেখে টয়লেটে যান রুবিনা। টয়লেট থেকে বের হয়ে দেখতে পান রাসেল তার ওড়নায় সিলিং ফ্যানের সঙ্গে ঝুলছে। এসময় তার চিৎকারে আশপাশের লোকজন ও রুবিনা রাসেলকে ঢামেকে নিয়ে যান। বেলা সাড়ে ১২টার দিকে ঢামেকের কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।’

ঢামেক পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ এসআই মো. বাচ্চু মিয়া বলেন, ‘প্রেমঘটিত বিষয় নিয়ে যুবক আত্মহত্যা করেছেন। লাশ মর্গে রাখা হয়েছে। ময়নাতদন্তের পর পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হবে। তার পরিবারের সদস্যদের খবর দেয়া হয়েছে।’

(মেডিকেল করেসপন্ডেন্ট, ঘাটাইল ডট কম)/-

116total visits,1visits today