নাগরপুরে ইটভাটার আগুনে পুড়ে গেছে ৩ একর জমির বোরো ধান

টাঙ্গাইলের নাগরপুরে অবৈধ ইট খোলার আগুনে প্রায় ৩ একর জমির বোরো ধান পুড়ে গেছে। এদিকে ঘটনার ৫দিন পেরিয়ে গেলেও ক্ষতিগ্রস্থ কৃষকরা এখন পর্যন্ত ক্ষতিপূরন পায়নি বলে অভিযোগ উঠেছে। মঙ্গলবার (১৬ এপ্রিল) সকালে স্থানীয় সাংবাদিকরা এসংক্রান্ত তথ্য সংগ্রহ করতে গেলে ওই ইট খোলার তত্বাবধায়ক তেরে আসে এবং সাংবাদিকদের হুমকি ধামকি দেয়।

এলাকাবাসী ও ক্ষতিগ্রস্থ পরিবার সূত্রে জানা যায়, উপজেলার সহবতপুর ইউনিয়নের নলসন্ধা গ্রামের মো.কাদের মোল্লা সিয়াম ব্রিকস নামে ইট খোলা স্থাপন করে প্রায় ১বছর যাবৎ ব্যাবসা পরিচালনা করে আসছে। কার্যক্রম শুরু হওয়ার আগে থেকে এলাকাবাসী বিভিন্ন দপ্তরে কাদের মোল্লার নামে লিখিত অভিযোগ করে। তবে কাদের মোল্লা স্থানীয় প্রভাবশালী হওয়ায় ভূক্তভোগিরা কোন প্রতিকার পায়নি বলে অভিযোগ রয়েছে।

বৃহস্পতিবার সকালে ইট খোলার চুল্লি খুলে দিলে আগুন বের হয়ে আশপাশের প্রায় ৩ একর জমির বোরোধান পুড়ে যায়। এদিকে কৃষকের বহু কষ্টে আবাদ করা বোরাধান পুড়ে যাওয়ায় তারা (কৃষক) দিশেহারা হয়ে পরেছে। এ খবর পেয়ে স্থানীয় সংবাদকর্মীরা সরেজমিন তথ্য সংগ্রহ করতে গেলে সিয়াম ব্রিকসের তত্ববধায়ক কাদের মোল্লাসহ তার লোকজন সাংবাদিকদের গালাগালি করে এবং সংবাদ প্রকাশ না করার জন্য হুমকি দেয়।

এ প্রসংঙ্গে জানতে চাইলে সিয়াম ব্রিকসের তত্ববধায়ক কাদের মোল্লা সাংবাদিকদের সাথে অপ্রীতিকর ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন, ক্ষতিগ্রস্থ কৃষকদের যথাযথ ক্ষতিপূরন দেয়া হয়েছে। বৈধভাবেই ইটখোলা স্থাপন করা হয়েছে বলেও তিনি জানান।

এদিকে ক্ষতি পুরন দেয়ার দাবী অস্বীকার করে ক্ষতিগ্রস্থ জমির একাদিক জানান, তারা এখন পর্যন্ত কোন ক্ষতিপুরন পায়নি।

এ ব্যাপারে উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ইউএনও) সৈয়দ ফয়েজুল ইসলাম জানান, এ বিষয়ে কোন অভিযোগ পাইনি । অভিযোগ পেলে অবশ্যই আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে বলে জানান তিনি।

(নাগরপুর সংবাদদাতা, ঘাটাইলডটকম)/-

100total visits,1visits today