দুদকে চার দিনে ৫০,০০০ অভিযোগ

দুর্নীতিবাজদের বিরুদ্ধে দেশব্যাপী অভিযানের সুফল পেতে শুরু করেছে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)। প্রতিষ্ঠানটি হটলাইন চালু করার পর মাত্র চার দিনে প্রায় ৫০ হাজার ৫১২টি অভিযোগ জমা পড়েছে। মঙ্গলবার দুদক সূত্র জানিয়েছে, ভুক্তভোগীদের এসব অভিযোগ গুরুত্ব সহকারে খতিয়ে দেখছে দুদক। জানা গেছে, দুর্নীতির অভিযোগ জানাতে গত ২৭ জুলাই দুদকে ১০৬ নম্বরের হটলাইনের উদ্বোধন করেন অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত। যখনই দুর্নীতির ঘটনা, তখনই অভিযোগ- এ স্লোগানকে সামনে রেখে এ হটলাইন চালু করে দুদক।

এরপর যাত্রা শুরু করার মাত্র চার দিনে (৩০ জুলাই পর্য্ন্ত) হটলাইনে ভুক্তভোগীরা ৫০ হাজার ১১২টি অভিযোগ করেছে। এর মধ্যে উদ্বোধনের দিন ২৭ জুলাই (বৃহস্পতিবার) ও ৩০ জুলাই (রোববার) হটলাইনে ফোন করে ৪ হাজার ৯৫১ ও ১৪ হাজার ১১২টি দুর্নীতির অভিযোগ জানায়।

এছাড়া সরকারি ছুটির দিনেও ২৮ ও ২৯ জুলাই যথাক্রমে ১২ হাজার ৯৪৯ ও ১৮ হাজার ১০০ জন ভুক্তভোগী ফোন করেন।

হটলাইনের সিস্টেম এনালিস্ট রাজীব হাসান বলেন, হটলাইন চালু হওয়ার পর মানুষের এ বিষয়ে প্রচুর আগ্রহ দেখা যাচ্ছে। আমি কল রেকর্ডের সংখ্যা জানিয়েছি। ওই কলের মধ্যে অধিকাংশ সেবাগ্রহীতার সঙ্গে দুদক কথা বলতে পারেনি। তবে আমাদের কম্পিউটার সফটওয়্যারের মাধ্যমে রিসিভ হয়েছে।

‘কল রেকর্ড অনুসারে দেখা যায় সরকারি ছুটির দিন শুক্রবার ও শনিবার ৩১ হাজারের বেশি কল এসেছে,’ বলেন তিনি।

রাজীব হাসান আরও বলেন, ‘হটলাইন উদ্বোধনের পর থেকে এ পর্যন্ত প্রায় ১৫০টি অভিযোগ আমরা কমিশনে জমা দিয়েছি। আমরা অভিযোগকারীদের সকল তথ্য গুরুত্বের সঙ্গে বিবেচনা করছি।’

দুদক সূত্রে জানায়, সরকারি অফিস চলাকালীন সকাল নয়টা থেকে বিকেল পাঁচটা পর্যন্ত দুদকের হটলাইন-১০৬ নম্বরে ফ্রি কল করা যাবে। হটলাইনে অভিযোগকারীর নাম, ঠিকানা বা পরিচয় প্রকাশ করবে না দুদক।

92total visits,4visits today