টাঙ্গাইল দ্বিতীয় বিভাগ ক্রিকেট লীগে উদয়ন ক্রীড়া চক্র চ্যাম্পিয়ন

নাজমুল হোসেন দিপুর অপরাজিত সেঞ্চুরীসহ ১১২ রানে (৫৪ বলে ১৩টি ৬ ও ৭টি ৪) উদয়ন ক্রীড়া চক্রের এই উদ্বোধনী ব্যাটসম্যান একাই প্রতিপক্ষ ইয়ুথ ক্লাবের বোলারদের বল বিশাল বিশাল ওভার বাউন্ডারী মেরে জয়কে ছিনিয়ে নিয়েছেন। যে কারনে ইয়ুথ ক্লাবের জেতা ম্যাচ উদয়ন ক্রীড়া চক্র ম্যাচের ২ বল বাকী থাকতে ৭ উইকেট হারিয়ে ১৪৮ রান করে জয়লাভ নিশ্চিত করে চ্যাম্পিয়ান হয়েছে।

১৪ এপ্রিল রবিবার সকালে স্থানীয় টাঙ্গাইল স্টেডিয়ামে জেলা ক্রীড়া সংস্থা ও ২য় বিভাগ ক্রিকেট পরিষদের আয়োজনে টাঙ্গাইল দ্বিতীয় বিভাগ ক্রিকেট লীগের ফাইনালে তীব্র প্রতিদ্বন্দিতাপূর্ন ম্যাচে উদয়ন ক্রীড়া চক্র ৩ উইকেটে ইয়ুথ ক্লাবকে হারিয়ে চ্যাম্পিয়ান হয়েছে।

খেলা শেষে সদরের মাননীয় সংসদ সদস্য মোঃ ছানোয়ার হোসেন পুরস্কার বিতরন করেন।

তিনি বলেন “টাঙ্গাইল স্টেডিয়ামে সব সময় বিভিন্ন খেলার আয়োজন রেখে ক্রীড়াঙ্গনে টাঙ্গাইলের খেলোয়াড়দের বিশেষ যতœ নিতে হবে। তবেই বাংলাদেশ জাতীয় দলে খেলার মতো খেলোয়াড় টাঙ্গাইলে তৈরী হবে।”

এ সময় তার পাশে উপস্থিত ছিলেন জেলা ক্রীড়া সংস্থার সহ-সভাপতি আব্দুর রউফ খান ও সাধারন সম্পাদক মির্জা মঈনুল হোসেন লিন্টু।

পুরস্কার বিতরন অনুষ্ঠানটি পরিচালনা করেন জেলা ক্রীড়া সংস্থার সদস্য ও আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবক লীগের টাঙ্গাইল শাখার সাধারন সম্পাদক মাতিনুজ্জামান সুখন।

খেলায় টস জয়ী ইয়ুথ ক্লাব প্রথমে ব্যাটিং করে নির্ধারিত (কার্টেল) ১৫ ওভারে মাত্র ১টি উইকেট হারিয়ে ১৪৭ রান করে।

দলের পক্ষে জয় অপরাজিত ৭৫ ও ইকবাল ৬৪ রান করে।

বোলিংয়ে উদয়ন ক্রীড়া চক্রের সজিব ১৭ রানে ১টি উইকেট দখল করে। জবাবে উদয়ন ক্রীড়া চক্র নাজমুল হোসেন দিপুর বিধ্বংসী একক ব্যাটিংয়ে (৫৪ বলে ১৩টি ৬ ও ৭টি ৪) ১৪.৪ ওভারে ১৪৮ রান করে জয়ের বন্দরে পৌছায়।

বোলিংয়ে বিজিত ইয়ুথ ক্লাবের সাব্বির ১১ রানে ৩টি ও ইফতি ২৩ রানে ২টি উইকেট দখল করে।

টুর্নামেন্টে সর্বোচ্চ রান করেন ইয়ুথ ক্লাবের রাকিব ১৩৮ রান এবং সর্বোচ্চ উইকেট দখল করে কিশলয় ক্লাবের সোহাগ (১১টি উইকেট)।

উক্ত টুর্নামেন্টে মোট ১৮টি ক্লাব ৪টি গ্রুপে বিভক্ত হয়ে টুর্নামেন্টে অংশগ্রহন করে।

প্রথম পর্ব শেষে ৮টি দল দ্বিতীয় পর্বে উন্নীত হয়। সেগুলো হলো “ক” গ্রুপ থেকে কিশলয় যুব সংঘ ও রেইনবো স্পোটিং ক্লাব। “খ ” গ্রুপ থেকে ইয়ুথ ক্লাব ও মুসলিম রেনেসাঁ ক্লাব। “গ” গ্রুপ থেকে উদয়ন ক্রীড়া চক্র ও থানাপাড়া ব্যায়ামাগার এবং “ঘ” গ্রুপ থেকে সাবালিয়া ক্রীড়া চক্র ও নদীয়া স্পোটিং ক্লাব।

দ্বিতীয় পর্বে উন্নীত হওয়া সব গুলো দল আগামী বছর প্রথম বিভাগ ক্রিকেট লীগে অংশগ্রহন করবে।

কোয়াটার ফাইনালের ৮টি দল থেকে সেমিফাইনালে উঠে উদয়ন ক্রীড়া চক্র,ইয়ুথ ক্লাব,সাবালিয়া ক্রীড়া চক্র ও কিশলয় যুব সংঘ।

(আরমান কবীর সৈকত, ঘাটাইলডটকম)/-

43total visits,1visits today