জাহাজ বিধ্বংসী ক্ষেপণাস্ত্রের পরীক্ষা চালাল যুক্তরাষ্ট্র

সংগৃহীত ছবি

আন্তর্জাতিক মহলে উত্তাপ ছড়িয়ে যুদ্ধের জন্য পুরোপুরি প্রস্তুত উত্তর কোরিয়া ও যুক্তরাষ্ট্র। চলছে একর পর এক শক্তি প্রদর্শনের মহড়া।
আর তারই ধারাবাহিকতায় এবার পরমাণু বোমা বহনে সক্ষম বোমারু বিমান থেকে জাহাজ বিধ্বংসী দূরপাল্লার ক্ষেপণাস্ত্র বা এলআরএএসএমের পরীক্ষা চালিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র। শুক্রবার এক বিবৃতিতে একথা জানায় দেশটির নৌবাহিনী।

এ ব্যাপারে মার্কিন নৌবাহিনীর পক্ষ থেকে বিবৃতিতে বলা হয়েছে, বুধবার ক্যালিফোর্নিয়ার দক্ষিণাঞ্চলে কৌশলগত ভারী বোমারু বিমান বি-১বি ল্যান্সার থেকে এ পরীক্ষা চালানো হয়। ক্ষেপণাস্ত্র পরীক্ষাটি সফল হয়েছে বলে দাবি করেছে নৌবাহিনী।

এদিকে, এ পরীক্ষাকে উল্লেখযোগ্য নতুন সাফল্য হিসেবে মার্কিন প্রতিরক্ষা দফতর পেন্টাগন। তাদের মতে, বর্তমানে ব্যবহৃত জাহাজ বিধ্বংসী হারপুন ক্ষেপণাস্ত্রের পরিবর্তে মার্কিন নৌবাহিনী এখন থেকে রাডার ফাঁকি দিতে সক্ষম ক্রুজ ক্ষেপণাস্ত্র এলআরএএসএম ব্যবহার করবে।

উল্লেখ্য, এর আগে অাগস্টের মাঝামাঝি সময়েই গুয়ামের দিকে ক্ষেপণাস্ত্র ছোড়ার বিষয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে জানিয়েছিল উত্তর কোরিয়া। এছাড়া ক্ষেপণাস্ত্র হামলা কী ভাবে হবে, কোন পথে হবে, তা বিশদে ছকে ফেলা হয়েছে বলেও পিয়ংইয়ং জানিয়েছিল।

আর তারই জের ধরে বুধবার উত্তর কোরিয়া ঘোষণা দেয়, তারা প্রশান্ত মহাসাগরে অবস্থিত মার্কিন দ্বীপ গুয়ামের জলসীমায় চারটি মধ্যম পাল্লার ক্ষেপণাস্ত্র নিক্ষেপের প্রস্তুতি নিচ্ছে। গুয়ামে যুক্তরাষ্ট্রের কয়েকটি সামরিক ঘাঁটি রয়েছে।

দুই দেশের মধ্যে চলমান এ টানাপড়েনের মধ্যেই বোমারু বিমান থেকে এ ক্ষেপণাস্ত্র পরীক্ষা চালাল যুক্তরাষ্ট্র।

সূত্র: স্পুটনিক নিউজ

Leave a Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.