ঘাটাইলে গোপণাঙ্গ কাটা ও ছোট গাছে ঝুলে থাকাবস্থায় বৃদ্ধের মরদেহ উদ্ধার

টাঙ্গাইলের ঘাটাইল উপজেলার আনেহলা ইউনিয়নের সিঙ্গুরিয়া গ্রামে বাড়ির পাশ থেকে গোপণাঙ্গ কাটা আব্দুল হামিদ(৬০) নামে এক বৃদ্ধের মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। রোববার(৬ আগস্ট) বাড়ির পাশে একটি ছোট গাছে ঝুলে থাকাবস্থায় পুলিশ মরদেহটি উদ্ধার করে। তিনি সিঙ্গুরিয়া বাসস্ট্যান্ড সংলগ্ন মৃত মোহাম্মদ আলীর ছেলে।
জানা যায়, শনিবার(৫ আগস্ট) দিবাগত রাতে কে বা কারা কাঠ ব্যবসায়ী আব্দুল হামিদের পুরুষাঙ্গ কেটে বিবস্ত্র অবস্থায় বাড়ির পাশে একটি ছোট গাছে ঝুলিয়ে রেখে যায়। রোববার সকালে মরদেহটি ঝুলে থাকতে দেখে স্থানীয়রা পুলিশে খবর দেয়। পরে বিকালে পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে তার মরদেহ উদ্ধার করে।

পুলিশ জানায়, আব্দুল হামিদের এক ছেলে দুই মেয়ে। ছেলে-মেয়েরা বিবাহিত। একমাত্র ছেলে সোহেল স্ত্রী-সন্তান নিয়ে ঢাকায় থাকেন। বাড়িতে আব্দুল হামিদ ও তার স্ত্রী দু’জনেই থাকতেন। স্ত্রী ঢাকায় ছেলের বাসায় বেড়াতে গেলে আব্দুল হামিদ একই বাড়িতে থাকতেন। ঘটনার দিন রাতেও আব্দুল হামিদ বাড়িতে একা ছিলেন। তার কোন শত্রু ছিল না বলে স্থানীয়রা দাবি করে। একা থাকার সুযোগে দুর্বৃত্তরা আব্দুল হামিদকে খুন করেছে বলে এলাকাবাসী ধারণা করছেন।

আব্দুল হামিদের চাচাত ভাই আব্দুল বাছেদ জানান, আমার ছেলে পাট ক্ষেতে পাট কাটতে যায়। পাট ক্ষেত থেকে তার ঝুলন্ত মরদেহ দেখতে পেয়ে প্রতিবেশিদের ডাকতে থাকে। পরে তারা গিয়ে গাছ থেকে মরদেহটি নামিয়ে বাড়িতে নেন।

 

ঘাটাইল থানার অফিসার ইনচার্জ(তদন্ত) আমীর হোসেন জানান, তিনি ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন। তিনি গভীরভাবে বিষয়টি পর্যবেক্ষণ করেছেন। এটা হত্যাকান্ড না আত্মহত্যা তা এখনই নিশ্চিত হওয়া যাচ্ছে না। তবে বাহ্যিক দৃষ্টিতে এটি হত্যাকান্ড বলে সাধারণ মানুষ ধারণা করছেন। ময়নাতদন্তের পর সঠিক কারণ জানা যাবে বলেও জানান তিনি।

 

(ঘাটাইল.কম)/-

62total visits,1visits today