কালিহাতীর নারান্দিয়া কলেজে শিক্ষক পেটানোর ঘটনায় তদন্ত কমিটি

গত ৭ মার্চ টাঙ্গাইলের কালিহাতী উপজেলার নারান্দিয়া টি.আর.কে.এন উচ্চ মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে (স্কুল এন্ড কলেজ) অধ্যক্ষ কর্তৃক ২ শিক্ষককে পিটিয়ে রক্তাক্ত করার ঘটনায় গত ১১ মার্চ সোমবার সকালে প্রতিষ্ঠানের গভর্নিং বডির এক সভায় ৩ সদস্য বিশিষ্ট একটি তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে।

যদিও ১০ মার্চ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা অমিত দেবনাথ প্রতিষ্ঠানে যাওয়ার কথা ছিলো প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নেয়ার জন্য, কিন্তু ১০ মার্চ তিনি না গিয়ে তার প্রতিনিধি হিসেবে উপজেলা পল্লী উন্নয়ন কর্মকর্তাকে প্রেরণ করেন। তার সঙ্গে অধ্যক্ষের সাক্ষাতের পরেই ১১ মার্চ সকালে গভর্নিং বডির সভার সংবাদ পান গভর্নিং বডির সদস্যবৃন্দ।

গভর্নিং বডির সভাপতি মোজহারুল ইসলাম তালুকদার এর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায় মিনহাজ উদ্দিন তালুকদাকে আহ্বায়ক এবং গভনির্ংবডির অপর সদস্য রমজান আলী ও শিক্ষক প্রতিনিধি (স্কুল সেকশন) শাহিনুর আক্তারকে সদস্য করা হয়েছে।

এ বিষয়ে আহ্বায়ক মিনহাজ তালুকদার মুঠো ফোনে জানান, আমাদেরকে ১০ দিন সময় দেওয়া হয়েছে ও এই অপ্রীতিকর ঘটনার প্রতি একটি নিন্দা প্রস্তাব আনা হয়েছে।

অপরদিকে নামপ্রকাশে অনিচ্ছুক একজন অভিভাবক জানান, জেনেছি আমাদের প্রতিষ্ঠানের ঘটনার সুষ্ঠু সমাধানের জন্য তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। তবে তদন্তের সময়টা বেশি হওয়ায় এটি “আই ওয়াশ” বলে অনেকে মনে করছেন। আবার ভিকটিম এবং অভিযুক্ত কাউকেই সুষ্ঠু তদন্তের স্বার্থে বাধ্যতামূলক ছুটি বা কারণ দর্শানোর নোটিশ না দেওয়ায় তদন্ত প্রভাবিত হতে পারে বলে এলাকার মানুষ ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন। এছাড়া শিক্ষক মন্ডলি ক্লাশ কার্যক্রমে বিব্রত বোধ করছেন বলে অভিভাবক এবং শিক্ষার্থীরা জানিয়েছেন।

উল্লেখ্য গত ৭ মার্চ বৃহস্পতিবার নারান্দিয়া টি.আর.কে.এন উচ্চ মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে (স্কুল এন্ড কলেজ) ৭ মার্চ যথাযথ মর্যাদায় পালন না করায় শিক্ষকদের আপত্তির মুখে অধ্যক্ষ কর্তৃক স্কুল সেকশনের সহকারী ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক মো. নজরুল ইসলাম ও সহকারী শিক্ষক আব্দুর রহিমকে পিটিয়ে রক্তাক্ত করা হয়।

(কালিহাতী সংবাদদাতা, ঘাটাইলডটকম)/-

244total visits,3visits today